১৫ বছর পর সিনেমা পরিচালনায় ডিপজল

প্রায় ১৫ বছর পর সিনেমা পরিচালনা করতে যাচ্ছেন মনোয়ার হোসেন ডিপজল। দীর্ঘদিন ধরে তিনি সিনেমা নির্মাণের প্রস্তুতি নিয়েছেন। মাঝে অসুস্থতার কারণে তার সিনেমা নির্মাণ পিছিয়ে যায়। এখন তিনি পুরোপুরি সুস্থ। সুস্থ হয়েই তিনি সিনেমা নির্মাণকাজে নেমে পড়েছেন। আগামী ১৫ জানুয়ারি থেকে তিনি সিনেমা পরিচালনা করতে যাচ্ছেন। সিনেমার নাম ‘মানুষ কেন অমানুষ’। তার সাভারস্থ শুটিং হাউজে সিনেমাটির শুটিং শুরু হবে। পরিচালনার পাশাপাশি তিনি অভিনয়ও করবেন। তার সঙ্গে জুটি হিসেবে থাকবে জয় চৌধুরী ও মৌ খান। এছাড়া অভিনয় করবেন, সুব্রত, রেবেকাসহ আরও অনেকে। সামাজিক ও পারিবারিক গল্প নিয়ে সিনেমাটি নির্মিত হচ্ছে। এর গল্প তৈরি করেছেন ডিপজল নিজে। ডিপজল বলেন, ‘সিনেমা আমার রক্তে মিশে আছে। দর্শক কেমন সিনেমা দেখতে চান, তা আমার দীর্ঘ চলচ্চিত্র জীবনের অভিজ্ঞতা থেকে বুঝেছি। এই অভিজ্ঞতা নিয়েই নতুন করে সিনেমা নির্মাণ করছি। ধারাবাহিকভাবে আরও সাতটি সিনেমা নির্মাণের প্রস্তুতি রয়েছে। প্রত্যেকটি আমিই পরিচালনা করব। যেহেতু গল্প আমার নিজের, তাই পরিচালনার কাজটি নিজেই করতে চাই। তবে প্রয়োজন হলে অন্য কাউকে দিয়ে পরিচালনা করাব। প্রত্যেকটি সিনেমায় নতুন নায়ক-নায়িকা থাকবে। এতে ইন্ডাস্ট্রিতে নতুন নায়ক-নায়িকা তৈরি হবে।

বৃহস্পতিবার, ০৭ জানুয়ারী ২০২১ , ২৩ পৌষ ১৪২৭, ২২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪২

১৫ বছর পর সিনেমা পরিচালনায় ডিপজল

image

প্রায় ১৫ বছর পর সিনেমা পরিচালনা করতে যাচ্ছেন মনোয়ার হোসেন ডিপজল। দীর্ঘদিন ধরে তিনি সিনেমা নির্মাণের প্রস্তুতি নিয়েছেন। মাঝে অসুস্থতার কারণে তার সিনেমা নির্মাণ পিছিয়ে যায়। এখন তিনি পুরোপুরি সুস্থ। সুস্থ হয়েই তিনি সিনেমা নির্মাণকাজে নেমে পড়েছেন। আগামী ১৫ জানুয়ারি থেকে তিনি সিনেমা পরিচালনা করতে যাচ্ছেন। সিনেমার নাম ‘মানুষ কেন অমানুষ’। তার সাভারস্থ শুটিং হাউজে সিনেমাটির শুটিং শুরু হবে। পরিচালনার পাশাপাশি তিনি অভিনয়ও করবেন। তার সঙ্গে জুটি হিসেবে থাকবে জয় চৌধুরী ও মৌ খান। এছাড়া অভিনয় করবেন, সুব্রত, রেবেকাসহ আরও অনেকে। সামাজিক ও পারিবারিক গল্প নিয়ে সিনেমাটি নির্মিত হচ্ছে। এর গল্প তৈরি করেছেন ডিপজল নিজে। ডিপজল বলেন, ‘সিনেমা আমার রক্তে মিশে আছে। দর্শক কেমন সিনেমা দেখতে চান, তা আমার দীর্ঘ চলচ্চিত্র জীবনের অভিজ্ঞতা থেকে বুঝেছি। এই অভিজ্ঞতা নিয়েই নতুন করে সিনেমা নির্মাণ করছি। ধারাবাহিকভাবে আরও সাতটি সিনেমা নির্মাণের প্রস্তুতি রয়েছে। প্রত্যেকটি আমিই পরিচালনা করব। যেহেতু গল্প আমার নিজের, তাই পরিচালনার কাজটি নিজেই করতে চাই। তবে প্রয়োজন হলে অন্য কাউকে দিয়ে পরিচালনা করাব। প্রত্যেকটি সিনেমায় নতুন নায়ক-নায়িকা থাকবে। এতে ইন্ডাস্ট্রিতে নতুন নায়ক-নায়িকা তৈরি হবে।