ঢাকা মেডিকেলে জরুরি বিভাগে আগুন

তদন্ত কমিটি গঠন

ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের পুরাতন ভবনের জরুরি বিভাগে অগ্নিকা-ের ঘটনা ঘটেছে। গতকাল ৪র্থ তলার নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রের (আইসিইউ) পাশের বারান্দায় এ ঘটনা ঘটে। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা হাসপাতালে পৌঁছার আগেই হাসপাতালের কর্মচারী ও আনসার সদস্যরা আগুন নিভিয়ে ফেলে। আগুনের ধোঁয়া আইসিইউ’র আশপাশে ছড়িয়ে পড়লেও রোগীর কোন ক্ষতি হয়নি বলে জানা গেছে। পরিত্যক্ত ও ময়লা আবর্জনায় ফেলা জ্বলন্ত সিগারেটের খ- অংশ থেকে আগুন লেগেছে বলে জানিয়েছে ফায়ার সার্ভিস। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষও একই কথা বলছেন। তারপরও আগুনের সূত্রপাত সম্পর্কে পুরোপুরি নিশ্চিত হতে ৯ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে ঢামেক কর্তৃপক্ষ।

ফায়ার সার্ভিস সদর দফতরের সহকারী পরিচালক মো. ছালেহ উদ্দিন জানান, অসতর্কতার কারণে পরিত্যক্ত ও ময়লা আবর্জনা থেকে এই আগুন লাগে। তবুও আমরা তদন্ত করে আগুনের কারণ বের করার চেষ্টা করব।

হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চতুর্থ তলার আইসিইউতে দায়িত্বরত সিনিয়র স্টাফ নার্স মোসা. ফাতেমা খাতুন বলেন, দুপুর দেড়টার দিকে আইসিইউর পাশের বেলকনি থেকে হালকা ধোঁয়া উড়তে দেখা যায়। ধোঁয়ার পরিমাণ আস্তে আন্তে বাড়তে থাকে। পরে হাসপাতালের কর্মকর্তাদের খবর দিলে তারা ছুটে আসেন। ততক্ষণে ধোঁয়ায় চারদিক আচ্ছন্ন হয়ে পড়ে। তবে আবর্জনা থেকে আগুন ধরে উঠেনি। শুধু ধোঁয়াই ছিল।

হাসপাতাল পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. নাজমুল হক জানান, কারও অবহেলা বা ইলেক্ট্রিসিটি থেকেও আগুন লাগতে পারে। তদন্ত করেই সেটা বুঝতে পারব। এজন্য ৯ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। ফায়ার সার্ভিস, ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ, হাসপাতালের কর্মকর্তাসহ অন্যদের নিয়ে কমিটি করা হয়েছে। আগামী পাঁচ কর্মদিবসের ভেতরে তাদের প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। তবে তদন্ত কমিটির প্রধান কে, তা তাৎক্ষণিক জানাতে পারেননি পরিচালক। ফায়ার সার্ভিসের পরামর্শ অনুযায়ী হাসপাতালে সব ধরনের অগ্নিনির্বাপক ব্যবস্থা রয়েছে বলেও দাবি করছেন ঢামেক পরিচালক।

শুক্রবার, ০৮ জানুয়ারী ২০২১ , ২৪ পৌষ ১৪২৭, ২৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪২

ঢাকা মেডিকেলে জরুরি বিভাগে আগুন

তদন্ত কমিটি গঠন
image

ঢামেকে আগুন নেভানোর চেষ্টারত ফায়ার সার্ভিসকর্মী -সংবাদ

ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের পুরাতন ভবনের জরুরি বিভাগে অগ্নিকা-ের ঘটনা ঘটেছে। গতকাল ৪র্থ তলার নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রের (আইসিইউ) পাশের বারান্দায় এ ঘটনা ঘটে। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা হাসপাতালে পৌঁছার আগেই হাসপাতালের কর্মচারী ও আনসার সদস্যরা আগুন নিভিয়ে ফেলে। আগুনের ধোঁয়া আইসিইউ’র আশপাশে ছড়িয়ে পড়লেও রোগীর কোন ক্ষতি হয়নি বলে জানা গেছে। পরিত্যক্ত ও ময়লা আবর্জনায় ফেলা জ্বলন্ত সিগারেটের খ- অংশ থেকে আগুন লেগেছে বলে জানিয়েছে ফায়ার সার্ভিস। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষও একই কথা বলছেন। তারপরও আগুনের সূত্রপাত সম্পর্কে পুরোপুরি নিশ্চিত হতে ৯ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে ঢামেক কর্তৃপক্ষ।

ফায়ার সার্ভিস সদর দফতরের সহকারী পরিচালক মো. ছালেহ উদ্দিন জানান, অসতর্কতার কারণে পরিত্যক্ত ও ময়লা আবর্জনা থেকে এই আগুন লাগে। তবুও আমরা তদন্ত করে আগুনের কারণ বের করার চেষ্টা করব।

হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চতুর্থ তলার আইসিইউতে দায়িত্বরত সিনিয়র স্টাফ নার্স মোসা. ফাতেমা খাতুন বলেন, দুপুর দেড়টার দিকে আইসিইউর পাশের বেলকনি থেকে হালকা ধোঁয়া উড়তে দেখা যায়। ধোঁয়ার পরিমাণ আস্তে আন্তে বাড়তে থাকে। পরে হাসপাতালের কর্মকর্তাদের খবর দিলে তারা ছুটে আসেন। ততক্ষণে ধোঁয়ায় চারদিক আচ্ছন্ন হয়ে পড়ে। তবে আবর্জনা থেকে আগুন ধরে উঠেনি। শুধু ধোঁয়াই ছিল।

হাসপাতাল পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. নাজমুল হক জানান, কারও অবহেলা বা ইলেক্ট্রিসিটি থেকেও আগুন লাগতে পারে। তদন্ত করেই সেটা বুঝতে পারব। এজন্য ৯ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। ফায়ার সার্ভিস, ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ, হাসপাতালের কর্মকর্তাসহ অন্যদের নিয়ে কমিটি করা হয়েছে। আগামী পাঁচ কর্মদিবসের ভেতরে তাদের প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। তবে তদন্ত কমিটির প্রধান কে, তা তাৎক্ষণিক জানাতে পারেননি পরিচালক। ফায়ার সার্ভিসের পরামর্শ অনুযায়ী হাসপাতালে সব ধরনের অগ্নিনির্বাপক ব্যবস্থা রয়েছে বলেও দাবি করছেন ঢামেক পরিচালক।