নির্মাণেই বেশি আগ্রহী সুমন

বছরের শুরুতেই জাহাঙ্গীর আলম সুমন একটি খণ্ড নাটক নির্মাণের কাজ শেষ করেছেন। নাটকে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন নিলয় ও তাসনুভা তিশা। সাউন্ডটেকের জন্য নির্মিত নাটকের নাম এখনও ঠিক করা হয়নি জানা গেছে। নাট্য নির্মাতার পাশাপাশি জাহাঙ্গীর একজন অভিনেতা। একটি চলচ্চিত্রও নির্মাণ করেছেন তিনি। আশির দশকের শুরুর দিকে যারা বিটিভির নিয়মিত দর্শক ছিলেন তারা মূলত তাকে অভিনতো হিসেবে বেশি চিনেন, জানেন। ১৯৮১ সালের শুরু থেকেই আলম মনসুরের সঙ্গে প্রযোজনায় সহকারী হিসেবে কাজ করার পাশাপাশি অভিনয়ও করতেন সুমন। ১৯৮৩ সালে তিনি বাংলাদেশ টেলিভিশনের তালিকাভুক্ত শিল্পী হিসেবে কাজ শুরু করেন। ‘যেখানে দেখিবে ছাই’ নাটকে অভিনয়ের মধ্যদিয়ে সুমনের অভিনয়ে যাত্রা শুরু। পরবর্তীতে ‘আনোয়ারা’, ‘আমি তুমি সে’সহ হুমায়ূন আহমেদ’র নির্দেশনাতেও তিনি নাটকে অভিনয় করে বেশ দর্শকপ্রিয়তা পেয়েছিলেন। তবে তিনি জানান অভিনয় করলেও নাটক নির্মাণের প্রতি তিনি বেশি আগ্রহী ছিল। কারণ তিনি আব্দুল্লাহ আল মামুন, শেখ রিয়াজ উদ্দিন বাদশা, মোস্তাফিজুর রহমান, মোস্তফা কামাল সৈয়দের মতো গুণী প্রযোজকদের সঙ্গে বিটিভিতে কাজ করেছিলেন। তাদের সঙ্গে থেকে থেকেই তিনি নাটক নির্মাণে অনুপ্রেরণা পান। তার নির্মিত প্রথম নাটক ছিল ‘কোথায় যে ছায়া সখি’। পরবর্তীতে তিনি বহু নাটক নির্মাণ করেন। সুমন নির্মিত একমাত্র সিনেমা হচ্ছে ‘সোনা বন্ধু’। সুমন বলেন, ‘পেশাগতভাবে নির্মাণ কাজেই আমি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। তবে মাঝে মাঝে অভিনয় করতে ভালো লাগে।’ সুমন জানান তিনি একজন মুক্তিযোদ্ধা। টাঙ্গাইলের কালিহাতীর বরগা গ্রামের সুমন মুক্তিযুদ্ধে অংশ নিয়েছিলেন কাদেরিয়া বাহিনীর হয়ে।

মঙ্গলবার, ১২ জানুয়ারী ২০২১ , ২৮ পৌষ ১৪২৭, ২৭ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪২

নির্মাণেই বেশি আগ্রহী সুমন

image

বছরের শুরুতেই জাহাঙ্গীর আলম সুমন একটি খণ্ড নাটক নির্মাণের কাজ শেষ করেছেন। নাটকে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন নিলয় ও তাসনুভা তিশা। সাউন্ডটেকের জন্য নির্মিত নাটকের নাম এখনও ঠিক করা হয়নি জানা গেছে। নাট্য নির্মাতার পাশাপাশি জাহাঙ্গীর একজন অভিনেতা। একটি চলচ্চিত্রও নির্মাণ করেছেন তিনি। আশির দশকের শুরুর দিকে যারা বিটিভির নিয়মিত দর্শক ছিলেন তারা মূলত তাকে অভিনতো হিসেবে বেশি চিনেন, জানেন। ১৯৮১ সালের শুরু থেকেই আলম মনসুরের সঙ্গে প্রযোজনায় সহকারী হিসেবে কাজ করার পাশাপাশি অভিনয়ও করতেন সুমন। ১৯৮৩ সালে তিনি বাংলাদেশ টেলিভিশনের তালিকাভুক্ত শিল্পী হিসেবে কাজ শুরু করেন। ‘যেখানে দেখিবে ছাই’ নাটকে অভিনয়ের মধ্যদিয়ে সুমনের অভিনয়ে যাত্রা শুরু। পরবর্তীতে ‘আনোয়ারা’, ‘আমি তুমি সে’সহ হুমায়ূন আহমেদ’র নির্দেশনাতেও তিনি নাটকে অভিনয় করে বেশ দর্শকপ্রিয়তা পেয়েছিলেন। তবে তিনি জানান অভিনয় করলেও নাটক নির্মাণের প্রতি তিনি বেশি আগ্রহী ছিল। কারণ তিনি আব্দুল্লাহ আল মামুন, শেখ রিয়াজ উদ্দিন বাদশা, মোস্তাফিজুর রহমান, মোস্তফা কামাল সৈয়দের মতো গুণী প্রযোজকদের সঙ্গে বিটিভিতে কাজ করেছিলেন। তাদের সঙ্গে থেকে থেকেই তিনি নাটক নির্মাণে অনুপ্রেরণা পান। তার নির্মিত প্রথম নাটক ছিল ‘কোথায় যে ছায়া সখি’। পরবর্তীতে তিনি বহু নাটক নির্মাণ করেন। সুমন নির্মিত একমাত্র সিনেমা হচ্ছে ‘সোনা বন্ধু’। সুমন বলেন, ‘পেশাগতভাবে নির্মাণ কাজেই আমি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। তবে মাঝে মাঝে অভিনয় করতে ভালো লাগে।’ সুমন জানান তিনি একজন মুক্তিযোদ্ধা। টাঙ্গাইলের কালিহাতীর বরগা গ্রামের সুমন মুক্তিযুদ্ধে অংশ নিয়েছিলেন কাদেরিয়া বাহিনীর হয়ে।