লালমনিরহাটে বাবা-মাকে মারধর ছেলে গ্রেপ্তার

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলায় বাবা-মাকে মারধর করার পর বাড়ির রাস্তা বন্ধ করে দেয়ার অভিযোগে ছেলে রফিকুল ইসলামকে (৩৮) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গত মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার বড়খাতা ইউনিয়নের পশ্চিম সারডুবী গ্রাম থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। তিনি ওই এলাকার আবদুল আজিজ ও সফিয়া বেগম দম্পতির ছেলে।

জানা গেছে, রফিকুল ঢাকায় একটি বেসরকারি অফিসে চাকরি করে প্রতিমাসে বাবা-মায়ের খরচের টাকা পাঠান। সম্প্রতি বাড়ি ফিরে পাঠানো টাকার হিসাব দাবি করলে বাবা-মায়ের সঙ্গে দ্বন্দ্ব হয় তার। একপর্যায়ে পাঠানো টাকা ফেরত চেয়ে বিভিন্ন সময় বাবা-মাকে মারধর করেন তিনি। এ নিয়ে বাবা আবদুল আজিজ স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ ও থানায় লিখিত অভিযোগ করেও প্রতিকার পাননি। গত ৯ জানুয়ারি টাকা ফেরত চেয়ে আবারও বাবা-মাকে মারধর করেন রফিকুল। পরে স্থানীয় লোকজন তাদের উদ্ধার করে হাতীবান্ধা হাসপাতালে ভর্তি করেন। চিকিৎসা শেষে বাড়ি ফিরে আবদুল আজিজ দেখতে পান তাদের চলাচলের রাস্তাটি টিনের বেড়া দিয়ে বন্ধ করে দিয়েছে রফিকুল।

এ ঘটনায় আইনি সহায়তা চেয়ে গত সোমবার রাতে থানায় আবারও ছেলের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দাখিল করেন বাবা আবদুল আজিজ।

বৃহস্পতিবার, ১৪ জানুয়ারী ২০২১ , ৩০ পৌষ ১৪২৭, ২৯ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪২

লালমনিরহাটে বাবা-মাকে মারধর ছেলে গ্রেপ্তার

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলায় বাবা-মাকে মারধর করার পর বাড়ির রাস্তা বন্ধ করে দেয়ার অভিযোগে ছেলে রফিকুল ইসলামকে (৩৮) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গত মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার বড়খাতা ইউনিয়নের পশ্চিম সারডুবী গ্রাম থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। তিনি ওই এলাকার আবদুল আজিজ ও সফিয়া বেগম দম্পতির ছেলে।

জানা গেছে, রফিকুল ঢাকায় একটি বেসরকারি অফিসে চাকরি করে প্রতিমাসে বাবা-মায়ের খরচের টাকা পাঠান। সম্প্রতি বাড়ি ফিরে পাঠানো টাকার হিসাব দাবি করলে বাবা-মায়ের সঙ্গে দ্বন্দ্ব হয় তার। একপর্যায়ে পাঠানো টাকা ফেরত চেয়ে বিভিন্ন সময় বাবা-মাকে মারধর করেন তিনি। এ নিয়ে বাবা আবদুল আজিজ স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ ও থানায় লিখিত অভিযোগ করেও প্রতিকার পাননি। গত ৯ জানুয়ারি টাকা ফেরত চেয়ে আবারও বাবা-মাকে মারধর করেন রফিকুল। পরে স্থানীয় লোকজন তাদের উদ্ধার করে হাতীবান্ধা হাসপাতালে ভর্তি করেন। চিকিৎসা শেষে বাড়ি ফিরে আবদুল আজিজ দেখতে পান তাদের চলাচলের রাস্তাটি টিনের বেড়া দিয়ে বন্ধ করে দিয়েছে রফিকুল।

এ ঘটনায় আইনি সহায়তা চেয়ে গত সোমবার রাতে থানায় আবারও ছেলের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দাখিল করেন বাবা আবদুল আজিজ।