মুজিববর্ষ উপলক্ষে মৈত্রী থিয়েটারের ‘বর্ণচোরা’

১৬ জানুয়ারি সন্ধ্যা ৫টা ৩০ মিনিটে মৈত্রী থিয়েটারের আয়োজনে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার মূল হলে দলটির ‘বর্ণচোরা’ নাটকের বিশেষ প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হবে। মুজিববর্ষ উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করতে প্রদর্শনী হচ্ছে। অধ্যাপক মমতাজ উদদীন আহমেদের লেখা এ নাটকটির ১৫০টি প্রদর্শনী এযাবৎ হয়েছে। এ বিশেষ প্রদর্শনীতে বর্ণচোরা নাটকটি মূল অংশ ঠিক রেখে ১৯৪৭ সাল থেকে ১৯৭১ সালের স্বাধীনতা অর্জনসহ ইতিহাসের বিভিন্ন প্রেক্ষাপটের আলোকে নাটকে বিস্তৃতি আনার চেষ্টা করা হয়েছে। সেই সাথে ঘটনাপ্রবাহ বিভিন্ন আঙ্গিকে তুলে ধরার চেষ্টা করা হয়েছে বলে জানানো হয়েছে দলটির পক্ষ থেকে। নাটকটির নির্দেশনা দিয়েছেন নিয়াজ আহমেদ এবং নাটকটি পরিকল্পনা ও নবরূপায়ণ করেছেন হামিদুর রহমান পাপ্পু ও আলমগীর। ৫২ জন অভিনেতা-অভিনেত্রী, শিশু শিল্পীসহ ১০ জন টেকনিক্যাল সদস্যসহ মোট ৬২ জনের একটি বিশাল দল নিয়ে এ নাটকটি মঞ্চস্থ হতে যাচ্ছে। অনুষ্ঠানের উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন গোলাম কুদ্দুছ। প্রধান অতিথি থাকবেন ম. হামিদ। বিশেষ অতিথি আহম্মেদ গিয়াস, তপন হাফিজ। শুভেচ্ছা বক্তব্য প্রদান করবেন মৈত্রী থিয়েটারের উপদেষ্টামণ্ডলীর অন্যতম সদস্য মেরাজ আহমেদ এবং শৌখিন থিয়েটারের প্রধান নির্বাহী হামিদুর রহমান পাপ্পু। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন মৈত্রী থিয়েটারের সভাপতি নিয়াজ আহমেদ।

শুক্রবার, ১৫ জানুয়ারী ২০২১ , ১ মাঘ ১৪২৭, ১ জমাদিউস সানি ১৪৪২

মুজিববর্ষ উপলক্ষে মৈত্রী থিয়েটারের ‘বর্ণচোরা’

image

১৬ জানুয়ারি সন্ধ্যা ৫টা ৩০ মিনিটে মৈত্রী থিয়েটারের আয়োজনে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার মূল হলে দলটির ‘বর্ণচোরা’ নাটকের বিশেষ প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হবে। মুজিববর্ষ উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করতে প্রদর্শনী হচ্ছে। অধ্যাপক মমতাজ উদদীন আহমেদের লেখা এ নাটকটির ১৫০টি প্রদর্শনী এযাবৎ হয়েছে। এ বিশেষ প্রদর্শনীতে বর্ণচোরা নাটকটি মূল অংশ ঠিক রেখে ১৯৪৭ সাল থেকে ১৯৭১ সালের স্বাধীনতা অর্জনসহ ইতিহাসের বিভিন্ন প্রেক্ষাপটের আলোকে নাটকে বিস্তৃতি আনার চেষ্টা করা হয়েছে। সেই সাথে ঘটনাপ্রবাহ বিভিন্ন আঙ্গিকে তুলে ধরার চেষ্টা করা হয়েছে বলে জানানো হয়েছে দলটির পক্ষ থেকে। নাটকটির নির্দেশনা দিয়েছেন নিয়াজ আহমেদ এবং নাটকটি পরিকল্পনা ও নবরূপায়ণ করেছেন হামিদুর রহমান পাপ্পু ও আলমগীর। ৫২ জন অভিনেতা-অভিনেত্রী, শিশু শিল্পীসহ ১০ জন টেকনিক্যাল সদস্যসহ মোট ৬২ জনের একটি বিশাল দল নিয়ে এ নাটকটি মঞ্চস্থ হতে যাচ্ছে। অনুষ্ঠানের উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন গোলাম কুদ্দুছ। প্রধান অতিথি থাকবেন ম. হামিদ। বিশেষ অতিথি আহম্মেদ গিয়াস, তপন হাফিজ। শুভেচ্ছা বক্তব্য প্রদান করবেন মৈত্রী থিয়েটারের উপদেষ্টামণ্ডলীর অন্যতম সদস্য মেরাজ আহমেদ এবং শৌখিন থিয়েটারের প্রধান নির্বাহী হামিদুর রহমান পাপ্পু। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন মৈত্রী থিয়েটারের সভাপতি নিয়াজ আহমেদ।