নিবেদনের ৮ দিনের সংগীত উৎসব

শুরু হচ্ছে নাম ‘সুরস্রষ্টা সংগীত উৎসব-২০২১’। টানা ৮ দিন সংগীত পরিবেশন ও আলোচনার মাধ্যমে শ্রদ্ধা জানানো হবে দেশের কিংবদন্তি সুরস্রষ্টাদের। সৃজনশীল গানের দল ‘নিবেদন’-এর আয়োজনে অন্তর্জালভিত্তিক এই উৎসবের শুরু হয়েছে ২৩ জানুয়ারি রাত ৮টা থেকে সংগীত পরিচালক খোন্দকার নূরুল আলমকে ঘিরে। ৩০ জানুয়ারি পর্যন্ত প্রতিদিন রাত ৮টায় শুরু হবে এই আয়োজন যেখানে প্রধান আলোচক হিসেবে থাকবেন অন্যতম গীতস্রষ্টা মোহাম্মদ রফিকউজ্জামান। নিবেদনের পরিচালক ড. বিশ্বজিৎ রায় বলেন, ‘বর্তমানে করোনা পরিস্থিতি ক্রমশ দুর্বল হয়ে পড়ছে। তবুও আমরা এই উৎসবটি ফেসবুক গ্রুপে আয়োজন করছি। আতঙ্কিত মানুষের মনের স্মৃতিকোঠায় জেগে থাকা কিছু স্বর্ণালী গান শোনাবার চেষ্টা করবো। তাই নয়, আমরা চাই কিংবদন্তি সুরস্রষ্টাদের সম্পর্কে শ্রোতাদের বিস্তারিত জানাতে। সেই ভাবনা থেকেই এই উৎসবের আয়োজন।’ জানা যায়, খোন্দকার নূরুল আলমকে দিয়ে শুরু হওয়া এই উৎসবের পর্বগুলো হবে যথাক্রমে আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল, সত্য সাহা, খান আতাউর রহমান, আব্দুল আহাদ, আলাউদ্দিন আলী, শেখ সাদী খান এবং শেষ হবে লাকী আখন্দকে ঘিরে।

সোমবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২১ , ১১ মাঘ ১৪২৭, ১১ জমাদিউস সানি ১৪৪২

নিবেদনের ৮ দিনের সংগীত উৎসব

image

শুরু হচ্ছে নাম ‘সুরস্রষ্টা সংগীত উৎসব-২০২১’। টানা ৮ দিন সংগীত পরিবেশন ও আলোচনার মাধ্যমে শ্রদ্ধা জানানো হবে দেশের কিংবদন্তি সুরস্রষ্টাদের। সৃজনশীল গানের দল ‘নিবেদন’-এর আয়োজনে অন্তর্জালভিত্তিক এই উৎসবের শুরু হয়েছে ২৩ জানুয়ারি রাত ৮টা থেকে সংগীত পরিচালক খোন্দকার নূরুল আলমকে ঘিরে। ৩০ জানুয়ারি পর্যন্ত প্রতিদিন রাত ৮টায় শুরু হবে এই আয়োজন যেখানে প্রধান আলোচক হিসেবে থাকবেন অন্যতম গীতস্রষ্টা মোহাম্মদ রফিকউজ্জামান। নিবেদনের পরিচালক ড. বিশ্বজিৎ রায় বলেন, ‘বর্তমানে করোনা পরিস্থিতি ক্রমশ দুর্বল হয়ে পড়ছে। তবুও আমরা এই উৎসবটি ফেসবুক গ্রুপে আয়োজন করছি। আতঙ্কিত মানুষের মনের স্মৃতিকোঠায় জেগে থাকা কিছু স্বর্ণালী গান শোনাবার চেষ্টা করবো। তাই নয়, আমরা চাই কিংবদন্তি সুরস্রষ্টাদের সম্পর্কে শ্রোতাদের বিস্তারিত জানাতে। সেই ভাবনা থেকেই এই উৎসবের আয়োজন।’ জানা যায়, খোন্দকার নূরুল আলমকে দিয়ে শুরু হওয়া এই উৎসবের পর্বগুলো হবে যথাক্রমে আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল, সত্য সাহা, খান আতাউর রহমান, আব্দুল আহাদ, আলাউদ্দিন আলী, শেখ সাদী খান এবং শেষ হবে লাকী আখন্দকে ঘিরে।