সালমা ও জয়ের ‘প্রেমের বাঁশি’

করোনার এই ক্রান্তিকালে সংগীতের ভুবনের নেপথ্যের মানুষগুলোর উপার্জন সচল রাখতে একের পর এক নতুন নতুন গানে কণ্ঠ দিয়ে চলেছেন সংগীতশিল্পী মৌসুমী আক্তার সালমা, একই কথা চিন্তা করে কমিয়েছেন নিজের পরশ্রমিকও। অপর দিকে প্রায় দেড় যুগ পরে সংগীতের ভুবনে ফিরে এসে যেন ছন্দ খুঁজে পেয়েছেন সংগীতশিল্পী জয়। গেল ঈদে তার গান ‘ভালোবাসার বাজি’র সাফল্যের পর থেকে নতুন প্রজন্মের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পীদের সঙ্গে গাওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন জয়।

সম্প্রতি সালমা ও জয় মিলে একটি ডুয়েট গানে কণ্ঠ দিয়েছেন। গানটি প্রকাশ পাবে সাউন্ড টেকের ব্যানারে। গানের শিরোনাম ‘প্রেমের বাঁশি’। আহমেদ রিজভীর লেখা এ গানের সুর করেছেন প্লাবন কোরেশী। মিউজিক করছেন সুমন কল্যাণ। ৫ জুন গানটির রেকর্ডিং হয়েছে। ৫ জুন একই দিনে তিনটি গানে কণ্ঠ দিয়েছেন সালমা।

নতুন গানগুলো সম্পর্কে জানতে চাইলে সালমা বলেন, ‘প্রচুর গানে কণ্ঠ দিচ্ছি, বলে শেষ করা যাবে না, প্রায় প্রতি দিনই নতুন নতুন গানে কণ্ঠ দিচ্ছি, এক দিনে দুই-তিনটি গানেরও রেকর্ড করেছি। প্রতিটা গান নিয়েই নিয়ে আমার ফেসবুক পেজে লাইাভ করা আছে। করোনার এ সময়ে নেপথ্যের মানুষগুলোকে কাজের মধ্যে রাখতেই একটার পর একটা গান করছি। এই কঠিন পরিস্থিতিতে সবাই ভালোভাবে টিকে থাকুক, কাজের মধ্যে থাকুক এটাই আমার চাওয়া।’

অপর দিকে জয় বলেন, ‘আমার ওপর নির্ভর করে সংগীতের অঙ্গনের বেশকিছু শিল্পী ও কলাকুশলীদের উপার্জন। এখন পর্যন্ত তাদের নিয়ে ভালো আছি আমি। করোনার মধ্যে এই মানুষগুলোকে ব্যস্ত রাখতে নানা উদ্যোগ নেই। তারই একটি ছিল আমার গানে ফেরা। এবং প্রায় দেড় যুগ পর ফিরে এতটাই সাড়া পেলাম যে গানে আবার নিয়মিত হয়ে গেলাম। আগামী ঈদে আমার গাওয়া একাধিক গান প্রকাশ পাবে আশা করছি, এর মধ্যে কিছু আছে আমার সিঙ্গেল গাওয়া কিছু আছে এই সময়ের জনপ্রিয় গায়িকাদের সঙ্গে ডুয়েট গাওয়া। বর্তমানে এগুলোর মিউজিক ভিডিও নির্মাণ ও রেকর্ডিংয়ের কাজ চলছে। ‘প্রেমের বাঁশি’ গানের আগে কবির বকুল ভাইয়ের লেখায় ঝিলিকের সঙ্গে একটি ডুয়েট গানে কণ্ঠ দিয়েছি। শিগগিরই দুটি গানেরই মিউজিক ভিডিওর নির্মাণের কাজ শুরু হবে।’

জয়ের প্রথম অ্যালবাম প্রকাশ হয় ২০০১ সালে, মিল্টন খন্দকারের কথা ও সুরে। এই অ্যালবামের নাম ছিল ‘সাদা কাফন পরাইয়া’।

মঙ্গলবার, ০৮ জুন ২০২১ , ২৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮ ২৬ শাওয়াল ১৪৪২

সালমা ও জয়ের ‘প্রেমের বাঁশি’

image

করোনার এই ক্রান্তিকালে সংগীতের ভুবনের নেপথ্যের মানুষগুলোর উপার্জন সচল রাখতে একের পর এক নতুন নতুন গানে কণ্ঠ দিয়ে চলেছেন সংগীতশিল্পী মৌসুমী আক্তার সালমা, একই কথা চিন্তা করে কমিয়েছেন নিজের পরশ্রমিকও। অপর দিকে প্রায় দেড় যুগ পরে সংগীতের ভুবনে ফিরে এসে যেন ছন্দ খুঁজে পেয়েছেন সংগীতশিল্পী জয়। গেল ঈদে তার গান ‘ভালোবাসার বাজি’র সাফল্যের পর থেকে নতুন প্রজন্মের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পীদের সঙ্গে গাওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন জয়।

সম্প্রতি সালমা ও জয় মিলে একটি ডুয়েট গানে কণ্ঠ দিয়েছেন। গানটি প্রকাশ পাবে সাউন্ড টেকের ব্যানারে। গানের শিরোনাম ‘প্রেমের বাঁশি’। আহমেদ রিজভীর লেখা এ গানের সুর করেছেন প্লাবন কোরেশী। মিউজিক করছেন সুমন কল্যাণ। ৫ জুন গানটির রেকর্ডিং হয়েছে। ৫ জুন একই দিনে তিনটি গানে কণ্ঠ দিয়েছেন সালমা।

নতুন গানগুলো সম্পর্কে জানতে চাইলে সালমা বলেন, ‘প্রচুর গানে কণ্ঠ দিচ্ছি, বলে শেষ করা যাবে না, প্রায় প্রতি দিনই নতুন নতুন গানে কণ্ঠ দিচ্ছি, এক দিনে দুই-তিনটি গানেরও রেকর্ড করেছি। প্রতিটা গান নিয়েই নিয়ে আমার ফেসবুক পেজে লাইাভ করা আছে। করোনার এ সময়ে নেপথ্যের মানুষগুলোকে কাজের মধ্যে রাখতেই একটার পর একটা গান করছি। এই কঠিন পরিস্থিতিতে সবাই ভালোভাবে টিকে থাকুক, কাজের মধ্যে থাকুক এটাই আমার চাওয়া।’

অপর দিকে জয় বলেন, ‘আমার ওপর নির্ভর করে সংগীতের অঙ্গনের বেশকিছু শিল্পী ও কলাকুশলীদের উপার্জন। এখন পর্যন্ত তাদের নিয়ে ভালো আছি আমি। করোনার মধ্যে এই মানুষগুলোকে ব্যস্ত রাখতে নানা উদ্যোগ নেই। তারই একটি ছিল আমার গানে ফেরা। এবং প্রায় দেড় যুগ পর ফিরে এতটাই সাড়া পেলাম যে গানে আবার নিয়মিত হয়ে গেলাম। আগামী ঈদে আমার গাওয়া একাধিক গান প্রকাশ পাবে আশা করছি, এর মধ্যে কিছু আছে আমার সিঙ্গেল গাওয়া কিছু আছে এই সময়ের জনপ্রিয় গায়িকাদের সঙ্গে ডুয়েট গাওয়া। বর্তমানে এগুলোর মিউজিক ভিডিও নির্মাণ ও রেকর্ডিংয়ের কাজ চলছে। ‘প্রেমের বাঁশি’ গানের আগে কবির বকুল ভাইয়ের লেখায় ঝিলিকের সঙ্গে একটি ডুয়েট গানে কণ্ঠ দিয়েছি। শিগগিরই দুটি গানেরই মিউজিক ভিডিওর নির্মাণের কাজ শুরু হবে।’

জয়ের প্রথম অ্যালবাম প্রকাশ হয় ২০০১ সালে, মিল্টন খন্দকারের কথা ও সুরে। এই অ্যালবামের নাম ছিল ‘সাদা কাফন পরাইয়া’।