শুটিংয়ের ফাঁকে ফাঁকে অফিস করছেন মিথিলা

দীর্ঘদিন ধরেই ‘ব্র্যাক ইন্টারন্যাশনাল’-এ কর্মরত মডেল-অভিনেত্রী মিথিলা। করোনা শুরু হওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত তিনি নিয়মিত অফিস করছেন ‘ওয়ার্ক ফ্রম হোম’র আওতাধীন। যে কারণে এখন স্বাস্থ্যবিধি মেনে নাটক-টেলিফিল্ম এবং সিনেমায় অভিনয় করতে পারছেন আগের তুলনায় অনেকটাই স্বাধীনভাবে। কারণ শুটিং-এর ফাঁকে ফাঁকে পরিচালকের কাছ থেকে অনুমতি নিয়ে মিথিলা ল্যাপটপটা কাছে নিয়ে অফিসিয়াল কাজের সঙ্গে সম্পৃক্ত হতে পারছেন। যোগ দিতে পারছেন মিটিং-এও। গেলো ঈদেও মিথিলা চার/পাঁচটি নাটকে অভিনয় করেছেন। এবারের ঈদে যেন সেই তুলনায় আরেকটু বেশি, এমনটাই জানালেন মিথিলা। মিথিলা জানান এরইমধ্যে তিনি শেষ করেছেন গৌতম কৈরীর পরিচালনায় ‘আমি মিথিলা না’ নাটকের কাজ। শেষ করেছেন আবু হায়াত মাহমুদের পরিচালনায় স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র মনজরুল শিবলীর রচনায় ‘টিয়া পাখি’, হাসান রেজাউলের পরিচালনায় ‘ইবরহম ডড়সধহ’, প্রীতি দত্তের পরিচালনায় ‘টুগেদার’ ও বাবা দিবসের একটি নাটকের কাজ। এছাড়াও তিনি শেষ করেছেন রাকেশ বসু’র রচনা ও পরিচালনায় ‘অন্তর্জলি যাত্রা’ নাটকের কাজ। এছাড়াও গতকাল থেকে মিথিলা শুরু করেছেন তানিম রহমান অংশু’র পরিচালনায় ‘সাহসিকা’ শিরোনামের একটি টেলিফিল্মের কাজ।

এবারের ঈদে কাজ করা প্রসঙ্গে মিথিলা বলেন, ‘এখন অনেকটাই স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারছি। শুটিং-এর ফাঁকে ফাঁকে পরিচালকের অনুমতি নিয়ে ল্যাপটপে বসে অফিস করে নেই কিংবা জরুরি মিটিং-এ যোগ দেই। খুব ভালো ভালো স্ক্রিপ্টের কিছু কাজ করেছি। হাতে আছে আরো ভালো স্ক্রিপ্টের কিছু কাজ। তবে করোনায় লকডাউনের কারণে আমার অভিনীত প্রথম সিনেমার (অনন্য মামুন পরিচালিত অমানুষ) কাজ আটকে আছে।’ এদিকে মিথিলা ‘আরলি চাউল্ডহুড অ্যাডুকেসন’ বিষয়ে পিএইচডি করছেন।

রবিবার, ১৩ জুন ২০২১ , ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮ ৩১ রজব ১৪৪২

শুটিংয়ের ফাঁকে ফাঁকে অফিস করছেন মিথিলা

image

দীর্ঘদিন ধরেই ‘ব্র্যাক ইন্টারন্যাশনাল’-এ কর্মরত মডেল-অভিনেত্রী মিথিলা। করোনা শুরু হওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত তিনি নিয়মিত অফিস করছেন ‘ওয়ার্ক ফ্রম হোম’র আওতাধীন। যে কারণে এখন স্বাস্থ্যবিধি মেনে নাটক-টেলিফিল্ম এবং সিনেমায় অভিনয় করতে পারছেন আগের তুলনায় অনেকটাই স্বাধীনভাবে। কারণ শুটিং-এর ফাঁকে ফাঁকে পরিচালকের কাছ থেকে অনুমতি নিয়ে মিথিলা ল্যাপটপটা কাছে নিয়ে অফিসিয়াল কাজের সঙ্গে সম্পৃক্ত হতে পারছেন। যোগ দিতে পারছেন মিটিং-এও। গেলো ঈদেও মিথিলা চার/পাঁচটি নাটকে অভিনয় করেছেন। এবারের ঈদে যেন সেই তুলনায় আরেকটু বেশি, এমনটাই জানালেন মিথিলা। মিথিলা জানান এরইমধ্যে তিনি শেষ করেছেন গৌতম কৈরীর পরিচালনায় ‘আমি মিথিলা না’ নাটকের কাজ। শেষ করেছেন আবু হায়াত মাহমুদের পরিচালনায় স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র মনজরুল শিবলীর রচনায় ‘টিয়া পাখি’, হাসান রেজাউলের পরিচালনায় ‘ইবরহম ডড়সধহ’, প্রীতি দত্তের পরিচালনায় ‘টুগেদার’ ও বাবা দিবসের একটি নাটকের কাজ। এছাড়াও তিনি শেষ করেছেন রাকেশ বসু’র রচনা ও পরিচালনায় ‘অন্তর্জলি যাত্রা’ নাটকের কাজ। এছাড়াও গতকাল থেকে মিথিলা শুরু করেছেন তানিম রহমান অংশু’র পরিচালনায় ‘সাহসিকা’ শিরোনামের একটি টেলিফিল্মের কাজ।

এবারের ঈদে কাজ করা প্রসঙ্গে মিথিলা বলেন, ‘এখন অনেকটাই স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারছি। শুটিং-এর ফাঁকে ফাঁকে পরিচালকের অনুমতি নিয়ে ল্যাপটপে বসে অফিস করে নেই কিংবা জরুরি মিটিং-এ যোগ দেই। খুব ভালো ভালো স্ক্রিপ্টের কিছু কাজ করেছি। হাতে আছে আরো ভালো স্ক্রিপ্টের কিছু কাজ। তবে করোনায় লকডাউনের কারণে আমার অভিনীত প্রথম সিনেমার (অনন্য মামুন পরিচালিত অমানুষ) কাজ আটকে আছে।’ এদিকে মিথিলা ‘আরলি চাউল্ডহুড অ্যাডুকেসন’ বিষয়ে পিএইচডি করছেন।