মেডিকেল অফিসার মালদ্বীপে সহকারী থেকেও নেই!

জামালপুর জেলার সরিষাবাড়ীতে উপজেলার ৫নং পিংনা ইউনিয়নের উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রের মেডিকেল অফিসার ডা. রাফিয়া বিনতে রউফ দীর্ঘদিন ধরে তার কর্মস্থলে অনুপস্থিত রয়েছেন। এ কারণে পিংনা ইউনিয়নের হাজারো মানুষ চিকিৎসা সেবা পাওয়া থেকে বঞ্চিত হয়ে আসছেন। ডা. রাফিয়া ২০১৮ সালে নভেম্বর লিয়েন ছুটি নিয়ে মালদ্বীপে রয়েছেন। তিনি কবে দেশে ফিরবেন তা কেউ বলতে পারছেন না। ওই উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রে আব্দুল মান্নান নামে একজন উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার রয়েছেন। তিনি ব্যক্তিগত কাজে ব্যস্ত থাকেন। এ কারণে রোগীরা তাকে নিয়মিত কর্মস্থলে পান না। ফলে চিকিৎসা নিতে আসা রোগীদের দুর্ভোগ বেড়েছে। উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রে এসে রোগী ও তার লোকজন জানতে পারেন ডাক্তার ছুটিতে আছেন। পরে তারা ছুটে যান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। যেসব রোগী একাধিকবার ও উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রে এসেও ডাক্তারের দেখা পাননি।

এ ব্যাপারে উপ সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার আব্দুল মান্নান জানান, এ উপস্বাস্থ্য কেন্দ্র মেডিকেল অফিসার না থাকায় তার পক্ষে রোগীর চাপ সামলানো মুশকিল হয়ে পড়েছে।

পিংনা ইউপি চেয়ারম্যান মোতাহার হোসেন জয় জানান, পিংনা উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রের মেডিকেল অফিসারকে আমি আজ পর্যন্ত দেখিনি । এছাড়া উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার তিনিও উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়মিত থাকেন না। এ কারণে এ ইউনিয়নের হাজারও মানুষ চিকিৎসাসেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।

এ ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. গাজী রফিকুল হক জানান, ২০১৮ সালের নভেম্বর থেকে ডা. রাফিয়া বিনতে রউফ লিয়েন ছুটি নিয়ে মালদ্বীপে অবস্থান করছেন। বর্তমানে পিংনা উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রটি একজন উপ সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার দিয়ে চালানো হচ্ছে বলেও জানান।

মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১ , ১ আষাড় ১৪২৮ ৩ জিলকদ ১৪৪২

সরিষাবাড়ীর পিংনা উপস্বাস্থ্য কেন্দ্র

মেডিকেল অফিসার মালদ্বীপে সহকারী থেকেও নেই!

জামালপুর জেলার সরিষাবাড়ীতে উপজেলার ৫নং পিংনা ইউনিয়নের উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রের মেডিকেল অফিসার ডা. রাফিয়া বিনতে রউফ দীর্ঘদিন ধরে তার কর্মস্থলে অনুপস্থিত রয়েছেন। এ কারণে পিংনা ইউনিয়নের হাজারো মানুষ চিকিৎসা সেবা পাওয়া থেকে বঞ্চিত হয়ে আসছেন। ডা. রাফিয়া ২০১৮ সালে নভেম্বর লিয়েন ছুটি নিয়ে মালদ্বীপে রয়েছেন। তিনি কবে দেশে ফিরবেন তা কেউ বলতে পারছেন না। ওই উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রে আব্দুল মান্নান নামে একজন উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার রয়েছেন। তিনি ব্যক্তিগত কাজে ব্যস্ত থাকেন। এ কারণে রোগীরা তাকে নিয়মিত কর্মস্থলে পান না। ফলে চিকিৎসা নিতে আসা রোগীদের দুর্ভোগ বেড়েছে। উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রে এসে রোগী ও তার লোকজন জানতে পারেন ডাক্তার ছুটিতে আছেন। পরে তারা ছুটে যান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। যেসব রোগী একাধিকবার ও উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রে এসেও ডাক্তারের দেখা পাননি।

এ ব্যাপারে উপ সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার আব্দুল মান্নান জানান, এ উপস্বাস্থ্য কেন্দ্র মেডিকেল অফিসার না থাকায় তার পক্ষে রোগীর চাপ সামলানো মুশকিল হয়ে পড়েছে।

পিংনা ইউপি চেয়ারম্যান মোতাহার হোসেন জয় জানান, পিংনা উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রের মেডিকেল অফিসারকে আমি আজ পর্যন্ত দেখিনি । এছাড়া উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার তিনিও উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়মিত থাকেন না। এ কারণে এ ইউনিয়নের হাজারও মানুষ চিকিৎসাসেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।

এ ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. গাজী রফিকুল হক জানান, ২০১৮ সালের নভেম্বর থেকে ডা. রাফিয়া বিনতে রউফ লিয়েন ছুটি নিয়ে মালদ্বীপে অবস্থান করছেন। বর্তমানে পিংনা উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রটি একজন উপ সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার দিয়ে চালানো হচ্ছে বলেও জানান।