১২ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার

রাজধানীর যাত্রাবাড়ী, বংশাল ও দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ এলাকায় পৃথক অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ ইয়াবা ও হেরোইনসহ ১২জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ ও র‌্যাব। র‌্যাব ১০-এর সহকারী পরিচালক এনায়েত কবির সোয়েব জানান, গতকাল দুপুরে র‌্যাব ১০-এর একটি আভিযানিক দল দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জ এলাকায় গিয়ে আনুমানিক ৬ লাখ ৭৫ হাজার টাকা মূল্যের ৪৫ গ্রাম হেরোইনসহ মাদক ব্যবসায়ী মো. আবুল কালামকে (৪৮) গ্রেপ্তার করে। তার কাছে তিনটি মোবাইল ফোন ও মাদক বিক্রির নগদ ২৩ হাজার ৫০০ টাকা ছিল। র‌্যাব সেগুলো উদ্ধার করেছে।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার রাতে র‌্যাব-১০-এর একটি দল যাত্রাবাড়ী থানাধীন ধলপুর ও সায়েদাবাদ বাস টার্মিনাল এলাকায় দুটি পৃথক অভিযানে ২ হাজার ৯১৫ পিস ইয়াবাসহ তিন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করে। তারা হলোÑ মো. সাইফুল ইসলাম (৩৭), মোছা. রেজিনা (২২) ও মো. ওমর ফারুক (২৫)। তাদের কাছে তিনটি মোবাইল ফোন ও মাদক বিক্রির নগদ ৫ হাজার ৪০০ টাকা পাওয়া গেছে। এছাড়া র‌্যাব-১০-এর অন্য একটি দল ঢাকার ওয়ারী থানাধীন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ১৭৫ পিস ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী মো. আলমগীরকে (২৮) গ্রেপ্তার করে। তার কাছে একটি মোবাইল ফোন পেয়েছে র‌্যাব। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তিরা পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী। তারা বেশ কিছুদিন ধরে দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জ ও যাত্রাবাড়ীসহ ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় ইয়াবা ও অন্য মাদকদ্রব্য সরবরাহ করে আসছিল। গ্রেপ্তারের পর তাদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় মামলা হয়েছে।

এদিকে রাজধানীর বংশাল থানা এলাকা থেকে ৭ হাজার পিস ইয়াবাসহ মো. জুয়েল হোসেন নামে এক মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা লালবাগ বিভাগ। গত বৃহস্পতিবার রাতে বংশালের সৈয়দ নজরুল ইসলাম সরণী (নর্থ সাউথ রোড) থেকে তাকে ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার করা হয়। অভিযানে নেতৃত্ব দেয়া ডিবি লালবাগ বিভাগের অস্ত্র উদ্ধার ও মাদক নিয়ন্ত্রণ টিমের সহকারী পুলিশ কমিশনার মো. ফজলুর রহমান জানান, রাজধানীতে অবৈধ অস্ত্র ও মাদকদ্রব্য উদ্ধার এবং অপরাধী গ্রেপ্তারের লক্ষ্যে বিশেষ অভিযান পরিচালনাকালে খবর আসে, নর্থ সাউথ রোডের সুরিটোলা সরকারি মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে পাকা রাস্তার ওপর একজন ইয়াবা বিক্রির জন্য অবস্থান করছে। এ তথ্যের ভিত্তিতে ওই এলাকায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। পুলিশের উপস্থিতি বুঝতে পেরে পালানোর চেষ্টা করলে জুয়েল নামে ওই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়। তার স্কুল ব্যাগ থেকে ৭ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।

শনিবার, ০৯ অক্টোবর ২০২১ , ২৪ আশ্বিন ১৪২৮ ০১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

যাত্রাবাড়ী, ওয়ারী ও দক্ষিণ কেরানীগঞ্জে

১২ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার

রাজধানীর যাত্রাবাড়ী, বংশাল ও দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ এলাকায় পৃথক অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ ইয়াবা ও হেরোইনসহ ১২জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ ও র‌্যাব। র‌্যাব ১০-এর সহকারী পরিচালক এনায়েত কবির সোয়েব জানান, গতকাল দুপুরে র‌্যাব ১০-এর একটি আভিযানিক দল দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জ এলাকায় গিয়ে আনুমানিক ৬ লাখ ৭৫ হাজার টাকা মূল্যের ৪৫ গ্রাম হেরোইনসহ মাদক ব্যবসায়ী মো. আবুল কালামকে (৪৮) গ্রেপ্তার করে। তার কাছে তিনটি মোবাইল ফোন ও মাদক বিক্রির নগদ ২৩ হাজার ৫০০ টাকা ছিল। র‌্যাব সেগুলো উদ্ধার করেছে।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার রাতে র‌্যাব-১০-এর একটি দল যাত্রাবাড়ী থানাধীন ধলপুর ও সায়েদাবাদ বাস টার্মিনাল এলাকায় দুটি পৃথক অভিযানে ২ হাজার ৯১৫ পিস ইয়াবাসহ তিন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করে। তারা হলোÑ মো. সাইফুল ইসলাম (৩৭), মোছা. রেজিনা (২২) ও মো. ওমর ফারুক (২৫)। তাদের কাছে তিনটি মোবাইল ফোন ও মাদক বিক্রির নগদ ৫ হাজার ৪০০ টাকা পাওয়া গেছে। এছাড়া র‌্যাব-১০-এর অন্য একটি দল ঢাকার ওয়ারী থানাধীন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ১৭৫ পিস ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী মো. আলমগীরকে (২৮) গ্রেপ্তার করে। তার কাছে একটি মোবাইল ফোন পেয়েছে র‌্যাব। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তিরা পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী। তারা বেশ কিছুদিন ধরে দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জ ও যাত্রাবাড়ীসহ ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় ইয়াবা ও অন্য মাদকদ্রব্য সরবরাহ করে আসছিল। গ্রেপ্তারের পর তাদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় মামলা হয়েছে।

এদিকে রাজধানীর বংশাল থানা এলাকা থেকে ৭ হাজার পিস ইয়াবাসহ মো. জুয়েল হোসেন নামে এক মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা লালবাগ বিভাগ। গত বৃহস্পতিবার রাতে বংশালের সৈয়দ নজরুল ইসলাম সরণী (নর্থ সাউথ রোড) থেকে তাকে ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার করা হয়। অভিযানে নেতৃত্ব দেয়া ডিবি লালবাগ বিভাগের অস্ত্র উদ্ধার ও মাদক নিয়ন্ত্রণ টিমের সহকারী পুলিশ কমিশনার মো. ফজলুর রহমান জানান, রাজধানীতে অবৈধ অস্ত্র ও মাদকদ্রব্য উদ্ধার এবং অপরাধী গ্রেপ্তারের লক্ষ্যে বিশেষ অভিযান পরিচালনাকালে খবর আসে, নর্থ সাউথ রোডের সুরিটোলা সরকারি মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে পাকা রাস্তার ওপর একজন ইয়াবা বিক্রির জন্য অবস্থান করছে। এ তথ্যের ভিত্তিতে ওই এলাকায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। পুলিশের উপস্থিতি বুঝতে পেরে পালানোর চেষ্টা করলে জুয়েল নামে ওই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়। তার স্কুল ব্যাগ থেকে ৭ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।