ই-অরেঞ্জের বিথী-সোহেলের হিসাব তলব

আলোচিত ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ই-অরেঞ্জের মালিক বিথী আক্তার ও তার স্বামী পুলিশ পরিদর্শক শেখ সোহেল রানাসহ পাঁচজনের ব্যাংক হিসাব তলব করেছে বাংলাদেশ ফিন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিটের (বিএফআইইউ)। চিঠিতে প্রত্যেকের বিস্তারিত ঠিকানার পাশাপাশি জন্ম তারিখ ও জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর উল্লেখ করা হয়েছে। গত রোববার অক্টোবর ব্যাংকগুলোর কাছে পাঠানো চিঠিতে গতকালের মধ্যে লেনদেনের যাবতীয় তথ্য দিতে বলেছে বিএফআইইউ।

চিঠিতে বিথী আক্তারকে ই-অরেঞ্জের মালিক উল্লেখ করে পুলিশ পরিদর্শক শেখ সোহেল রানার স্ত্রী হিসেবে মোমেনা আক্তার মাসুমা ও নাজমা সুলতানা প্রিয়া নামের আরও দুই নারীর নামও রয়েছে। এই দুই নারীর ব্যাংক হিসাবের তথ্য চাওয়া হয়েছে। তথ্য চাওয়ার তালিকায়, সোনিয়া মেহজাবিনের নামও রয়েছে।

বিএফআইইউ থেকে পাঠানো চিঠিতে উল্লেখিত ব্যক্তি ও তাদের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের নামে কোন হিসাব (ইসলামী ব্যাংকিংসহ) অতীতে বা বর্তমানে পরিচালিত হয়ে থাকলে সে সকল হিসাবের যাবতীয় তথ্য (যাবতীয় কাগজপত্রাদিসহ হিসাব খোলার আবেদন ফর্ম, কেওয়াইসি, ট্রানজেকশন প্রোফাইল, শুরু থেকে হালনাগাদ লেনদেন বিবরণী) সংশ্লিষ্ট সব ধরনের তথ্য পাঠাতে বলা হয়েছে।

তাদের নামে কোন ফিক্সড ডিপোজিট, ঋণ হিসাব, এলসি খোলা হলে সে তথ্যও দিতে হবে। এসব হিসাবের নমিনির তথ্য ও নমিনিদের নামে কোন হিসাব পরিচালিত হলে সেগুলোরও বিস্তারিত তথ্য চেয়েছে বিএফআইইউ।

২০০৭ সালে যাত্রা শুরু করা ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ই-অরেঞ্জের বিরুদ্ধে টাকা নিয়ে সময়মতো পণ্য সরবরাহ না করার অভিযোগ করেছেন গ্রাহকরা।

মঙ্গলবার, ১২ অক্টোবর ২০২১ , ২৭ আশ্বিন ১৪২৮ ০৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

ই-অরেঞ্জের বিথী-সোহেলের হিসাব তলব

আলোচিত ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ই-অরেঞ্জের মালিক বিথী আক্তার ও তার স্বামী পুলিশ পরিদর্শক শেখ সোহেল রানাসহ পাঁচজনের ব্যাংক হিসাব তলব করেছে বাংলাদেশ ফিন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিটের (বিএফআইইউ)। চিঠিতে প্রত্যেকের বিস্তারিত ঠিকানার পাশাপাশি জন্ম তারিখ ও জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর উল্লেখ করা হয়েছে। গত রোববার অক্টোবর ব্যাংকগুলোর কাছে পাঠানো চিঠিতে গতকালের মধ্যে লেনদেনের যাবতীয় তথ্য দিতে বলেছে বিএফআইইউ।

চিঠিতে বিথী আক্তারকে ই-অরেঞ্জের মালিক উল্লেখ করে পুলিশ পরিদর্শক শেখ সোহেল রানার স্ত্রী হিসেবে মোমেনা আক্তার মাসুমা ও নাজমা সুলতানা প্রিয়া নামের আরও দুই নারীর নামও রয়েছে। এই দুই নারীর ব্যাংক হিসাবের তথ্য চাওয়া হয়েছে। তথ্য চাওয়ার তালিকায়, সোনিয়া মেহজাবিনের নামও রয়েছে।

বিএফআইইউ থেকে পাঠানো চিঠিতে উল্লেখিত ব্যক্তি ও তাদের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের নামে কোন হিসাব (ইসলামী ব্যাংকিংসহ) অতীতে বা বর্তমানে পরিচালিত হয়ে থাকলে সে সকল হিসাবের যাবতীয় তথ্য (যাবতীয় কাগজপত্রাদিসহ হিসাব খোলার আবেদন ফর্ম, কেওয়াইসি, ট্রানজেকশন প্রোফাইল, শুরু থেকে হালনাগাদ লেনদেন বিবরণী) সংশ্লিষ্ট সব ধরনের তথ্য পাঠাতে বলা হয়েছে।

তাদের নামে কোন ফিক্সড ডিপোজিট, ঋণ হিসাব, এলসি খোলা হলে সে তথ্যও দিতে হবে। এসব হিসাবের নমিনির তথ্য ও নমিনিদের নামে কোন হিসাব পরিচালিত হলে সেগুলোরও বিস্তারিত তথ্য চেয়েছে বিএফআইইউ।

২০০৭ সালে যাত্রা শুরু করা ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ই-অরেঞ্জের বিরুদ্ধে টাকা নিয়ে সময়মতো পণ্য সরবরাহ না করার অভিযোগ করেছেন গ্রাহকরা।