আজ মহাসপ্তমী

আজ মহাসপ্তমী। নবপত্রিকা প্রবেশের মধ্য দিয়ে দুর্গাপূজা শুরু। আজ থেকে মণ্ডপে মণ্ডপে শুরু হবে অঞ্জলি, প্রতিমা দর্শন, প্রসাদ বিতরণ। ভক্তদের আনাগোনায় মুখরিত হবে মন্দির প্রাঙ্গণ।

মহাসপ্তমীতে নবপত্রিকা প্রবেশ ও স্থাপন, ষোড়শ উপাচারে দেবীর পূজা হয়। নবপত্রিকা প্রবেশের পর দর্পণে দেবীকে স্নান করা হয়। তারপর দেবীকে আসন, বস্ত্র, অলঙ্কারে সজ্জিত করা। এই সময় ত্রিনয়নীকে চক্ষুদান করা হয়। তারপর শুরু হয় মহাসপ্তমীর অঞ্জলি।

সপ্তমীতে নবপত্রিকা প্রবেশকে অনেকে কলা বউ স্নান বলে। কিন্তু নবপত্রিকা হলো নয়টি উপাদান। এগুলো হলো- কলাগাছ, বেল, অশোক, ধান, কচু, হলুদ, জয়ন্তী, ডালিম ও মান। এই নবপত্রিকা দুর্গাপূজার এক বিশিষ্ট অঙ্গ। একটি সপত্র কলাগাছের সঙ্গে অন্য আটটি উপাদান একত্রে একজোড়া বেলসহ শ্বেত অপরাজিতা লতা দিয়ে বেধে লালপাড় সাদাশাড়ি জড়িয়ে ঘোমটা দেয়া বধূর আকার দেয়া হয়। তারপর তাতে সিঁদুর পরিয়ে দূর্গা প্রতিমার ডানদিকে স্থাপন করা হয় এবং পূজা করা হয়।

সপ্তমীর সন্ধ্যায় মণ্ডপে মণ্ডপে হবে সন্ধ্যাআরতি এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

মঙ্গলবার, ১২ অক্টোবর ২০২১ , ২৭ আশ্বিন ১৪২৮ ০৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

আজ মহাসপ্তমী

আজ মহাসপ্তমী। নবপত্রিকা প্রবেশের মধ্য দিয়ে দুর্গাপূজা শুরু। আজ থেকে মণ্ডপে মণ্ডপে শুরু হবে অঞ্জলি, প্রতিমা দর্শন, প্রসাদ বিতরণ। ভক্তদের আনাগোনায় মুখরিত হবে মন্দির প্রাঙ্গণ।

মহাসপ্তমীতে নবপত্রিকা প্রবেশ ও স্থাপন, ষোড়শ উপাচারে দেবীর পূজা হয়। নবপত্রিকা প্রবেশের পর দর্পণে দেবীকে স্নান করা হয়। তারপর দেবীকে আসন, বস্ত্র, অলঙ্কারে সজ্জিত করা। এই সময় ত্রিনয়নীকে চক্ষুদান করা হয়। তারপর শুরু হয় মহাসপ্তমীর অঞ্জলি।

সপ্তমীতে নবপত্রিকা প্রবেশকে অনেকে কলা বউ স্নান বলে। কিন্তু নবপত্রিকা হলো নয়টি উপাদান। এগুলো হলো- কলাগাছ, বেল, অশোক, ধান, কচু, হলুদ, জয়ন্তী, ডালিম ও মান। এই নবপত্রিকা দুর্গাপূজার এক বিশিষ্ট অঙ্গ। একটি সপত্র কলাগাছের সঙ্গে অন্য আটটি উপাদান একত্রে একজোড়া বেলসহ শ্বেত অপরাজিতা লতা দিয়ে বেধে লালপাড় সাদাশাড়ি জড়িয়ে ঘোমটা দেয়া বধূর আকার দেয়া হয়। তারপর তাতে সিঁদুর পরিয়ে দূর্গা প্রতিমার ডানদিকে স্থাপন করা হয় এবং পূজা করা হয়।

সপ্তমীর সন্ধ্যায় মণ্ডপে মণ্ডপে হবে সন্ধ্যাআরতি এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।