পাঁচ বছরের মধ্যে এডিপি বাস্তবায়ন হার সর্বনিম্ন

চলতি অর্থবছরের (২০২১-২২) প্রথম তিন মাসে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি (এডিপি) বাস্তবায়ন হয়েছে ৫.৩১ শতাংশ। যা গত পাঁচ বছরের মধ্যে সর্বনি¤œ বাস্তবায়ন হার।

এদিকে বাস্তবায়ন পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগ (আইএমইডি) জানায়, প্রথম দিকে এডিপি বাস্তবায়ন কম হলেও বছর শেষে এ হার অন্য সময়ের চেয়ে বাড়বে। আইএমইডির প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে। সংশ্লিষ্টরা জানান, করোনা মহামারীর কারণে দেশে উন্নয়ন প্রকল্পগুলো বাস্তবায়ন বাধাগ্রস্ত হয়েছে। এর প্রভাব এডিবি বাস্তবায়নে পড়েছে।

এর আগে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের প্রথম তিন মাসে এডিপি বাস্তবায়ন হয়েছিল ৮.২৫ শতাংশ এবং ২০২১-২২ অর্থবছরে ৫.৩১ শতাংশ। চলতি অর্থবছরে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সবচেয়ে বেশি বরাদ্দ পেয়েছে। কিন্তু বরাদ্দ বেশি নিয়েও অর্থবছরের শুরুর প্রথম তিন মাসে মন্ত্রণালয়টি বাস্তবায়ন করেছে মাত্র ১.৩১ শতাংশ।

আইএমইডির তথ্য অনুযায়ী, চলতি ২০২১-২২ অর্থবছরের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির আকার ২ লাখ ৩৬ হাজার ৭৯৩ কোটি টাকা। জুলাই থেকে সেপ্টেম্বর তিন মাসে ১ হাজার ৫৯১ প্রকল্পের বিপরীতে খরচ হয়েছে মাত্র ১২ হাজার ৫৬৬ কোটি ৩০ লাখ টাকা। যা মোট বরাদ্দের মাত্র ৫ দশমিক ৩১ শতাংশ। ২০১৭-১৮ অর্থবছরের একই সময়ে এডিপির অগ্রগতি ছিল ১০.২১ শতাংশ, ২০১৮-১৯ অর্থবছরে ৮.২৫ শতাংশ, ২০১৯-২০ অর্থবছরে ৮.০৬ শতাংশ এবং ২০২০-২১ অর্থবছর ৮.০৬ শতাংশ। বাস্তবায়ন হার গত সেপ্টেম্বরে মাত্র ১.৪৮ শতাংশ ছিল। যেখানে আগের বছর একই সময়ে এই বাস্তবায়ন হার ছিল ৪.১৭ শতাংশ।

বৃহস্পতিবার, ১৪ অক্টোবর ২০২১ , ২৯ আশ্বিন ১৪২৮ ০৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

পাঁচ বছরের মধ্যে এডিপি বাস্তবায়ন হার সর্বনিম্ন

চলতি অর্থবছরের (২০২১-২২) প্রথম তিন মাসে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি (এডিপি) বাস্তবায়ন হয়েছে ৫.৩১ শতাংশ। যা গত পাঁচ বছরের মধ্যে সর্বনি¤œ বাস্তবায়ন হার।

এদিকে বাস্তবায়ন পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগ (আইএমইডি) জানায়, প্রথম দিকে এডিপি বাস্তবায়ন কম হলেও বছর শেষে এ হার অন্য সময়ের চেয়ে বাড়বে। আইএমইডির প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে। সংশ্লিষ্টরা জানান, করোনা মহামারীর কারণে দেশে উন্নয়ন প্রকল্পগুলো বাস্তবায়ন বাধাগ্রস্ত হয়েছে। এর প্রভাব এডিবি বাস্তবায়নে পড়েছে।

এর আগে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের প্রথম তিন মাসে এডিপি বাস্তবায়ন হয়েছিল ৮.২৫ শতাংশ এবং ২০২১-২২ অর্থবছরে ৫.৩১ শতাংশ। চলতি অর্থবছরে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সবচেয়ে বেশি বরাদ্দ পেয়েছে। কিন্তু বরাদ্দ বেশি নিয়েও অর্থবছরের শুরুর প্রথম তিন মাসে মন্ত্রণালয়টি বাস্তবায়ন করেছে মাত্র ১.৩১ শতাংশ।

আইএমইডির তথ্য অনুযায়ী, চলতি ২০২১-২২ অর্থবছরের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির আকার ২ লাখ ৩৬ হাজার ৭৯৩ কোটি টাকা। জুলাই থেকে সেপ্টেম্বর তিন মাসে ১ হাজার ৫৯১ প্রকল্পের বিপরীতে খরচ হয়েছে মাত্র ১২ হাজার ৫৬৬ কোটি ৩০ লাখ টাকা। যা মোট বরাদ্দের মাত্র ৫ দশমিক ৩১ শতাংশ। ২০১৭-১৮ অর্থবছরের একই সময়ে এডিপির অগ্রগতি ছিল ১০.২১ শতাংশ, ২০১৮-১৯ অর্থবছরে ৮.২৫ শতাংশ, ২০১৯-২০ অর্থবছরে ৮.০৬ শতাংশ এবং ২০২০-২১ অর্থবছর ৮.০৬ শতাংশ। বাস্তবায়ন হার গত সেপ্টেম্বরে মাত্র ১.৪৮ শতাংশ ছিল। যেখানে আগের বছর একই সময়ে এই বাস্তবায়ন হার ছিল ৪.১৭ শতাংশ।