প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় গুচ্ছ পদ্ধতির ভর্তি পরীক্ষা ৫ ডিসেম্বর শুরু

আগামী ৫ ডিসেম্বর শুরু হবে তিন প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে গুচ্ছ পদ্ধতির ভর্তি কার্যক্রম। বিশ্ববিদ্যালয়গুলো হলো চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়(চুয়েট), খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়(কুয়েট) এবং রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়(রুয়েট)। গতকাল ভর্তি পরীক্ষা আয়োজক কমিটির পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, ৫ ডিসেম্বর সকাল সাড়ে ৯টা থেকে তিন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি কার্যক্রম শুরু হবে। প্রথমপর্যায়ে ‘ক’ গ্রুপে মেধাক্রম ১ থেকে ৩০৮০ এবং ‘খ’ গ্রুপে মেধাক্রম ১ থেকে ১০০ ক্রমিকে থাকা ভর্তিচ্ছুদের নিরীক্ষা কমিটির কাছে উপস্থিত হতে হবে।

মেধাক্রমে থাকা সব প্রার্থীকে https://admissionckruet.ac.bd// লিংকে ঢুকে ‘Online Admission Form’ এ প্রয়োজনীয় তথ্য পূরণ করতে হবে এবং বিশ্ববিদ্যালয় ও বিভাগের পছন্দক্রম দিতে হবে। ‘Online Admission Form’ এ দেয়া তথ্য ও পছন্দক্রম ৪ ডিসেম্বর সকাল ৯টা পর্যন্ত পরিবর্তন করা যাবে।

পূরণকৃত ফরমের এক প্রিন্টেড কপি ভর্তির সময়ে নিয়ে আসতে হবে। চুয়েট, কুয়েট এবং রুয়েট কেন্দ্রে একযোগে ভর্তি কার্যক্রম চলবে। প্রার্থী যে কেন্দ্রে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন, ওই

ে পৃষ্ঠা : ২ ক : ৫

প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়

(১২ পৃষ্ঠার পর)

কেন্দ্রেই ভর্তি কার্যক্রম সম্পন্ন করতে হবে।

প্রথমপর্যায়ে উল্লিখিত মেধাক্রম, তারিখ ও সময়সূচি অনুযায়ী ভর্তিচ্ছুদের নিরীক্ষা কমিটির কাছে উপস্থিত হতে বলা হয়েছে। নিরীক্ষা কমিটি প্রার্থীদের সনদপত্র যাচাই করে জমা নেয়ার পর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হবে। পরের দিন সকালে প্রার্থীদের প্রাপ্ত বিশ্ববিদ্যালয় ও বিভাগ দেখে ভর্তি কমিটি অনুমোদিত স্বাস্থ্য পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের ভর্তির জন্য নির্ধারিত ১৮ হাজার ৫০০ টাকা ফি সংশ্লিষ্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের নির্দেশিত ব্যাংকে অথবা অনলাইনে বিকেল ৩টার মধ্যে জমা দিতে হবে। ভর্তির জন্য চুয়েটে ৯০১টি, কুয়েটে ১ হাজার ৬৫টি এবং রুয়েটে ১ হাজার ২৩৫টি আসন আছে।

ভর্তি সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য তিন প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের সমন্বিত ওয়েবসাইটে (https:// admissionckruet.ac.bd/res.php) পাওয়া যাবে।

শনিবার, ২০ নভেম্বর ২০২১ , ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ ১৪ রবিউস সানি ১৪৪৩

প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় গুচ্ছ পদ্ধতির ভর্তি পরীক্ষা ৫ ডিসেম্বর শুরু

আগামী ৫ ডিসেম্বর শুরু হবে তিন প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে গুচ্ছ পদ্ধতির ভর্তি কার্যক্রম। বিশ্ববিদ্যালয়গুলো হলো চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়(চুয়েট), খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়(কুয়েট) এবং রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়(রুয়েট)। গতকাল ভর্তি পরীক্ষা আয়োজক কমিটির পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, ৫ ডিসেম্বর সকাল সাড়ে ৯টা থেকে তিন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি কার্যক্রম শুরু হবে। প্রথমপর্যায়ে ‘ক’ গ্রুপে মেধাক্রম ১ থেকে ৩০৮০ এবং ‘খ’ গ্রুপে মেধাক্রম ১ থেকে ১০০ ক্রমিকে থাকা ভর্তিচ্ছুদের নিরীক্ষা কমিটির কাছে উপস্থিত হতে হবে।

মেধাক্রমে থাকা সব প্রার্থীকে https://admissionckruet.ac.bd// লিংকে ঢুকে ‘Online Admission Form’ এ প্রয়োজনীয় তথ্য পূরণ করতে হবে এবং বিশ্ববিদ্যালয় ও বিভাগের পছন্দক্রম দিতে হবে। ‘Online Admission Form’ এ দেয়া তথ্য ও পছন্দক্রম ৪ ডিসেম্বর সকাল ৯টা পর্যন্ত পরিবর্তন করা যাবে।

পূরণকৃত ফরমের এক প্রিন্টেড কপি ভর্তির সময়ে নিয়ে আসতে হবে। চুয়েট, কুয়েট এবং রুয়েট কেন্দ্রে একযোগে ভর্তি কার্যক্রম চলবে। প্রার্থী যে কেন্দ্রে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন, ওই

ে পৃষ্ঠা : ২ ক : ৫

প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়

(১২ পৃষ্ঠার পর)

কেন্দ্রেই ভর্তি কার্যক্রম সম্পন্ন করতে হবে।

প্রথমপর্যায়ে উল্লিখিত মেধাক্রম, তারিখ ও সময়সূচি অনুযায়ী ভর্তিচ্ছুদের নিরীক্ষা কমিটির কাছে উপস্থিত হতে বলা হয়েছে। নিরীক্ষা কমিটি প্রার্থীদের সনদপত্র যাচাই করে জমা নেয়ার পর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হবে। পরের দিন সকালে প্রার্থীদের প্রাপ্ত বিশ্ববিদ্যালয় ও বিভাগ দেখে ভর্তি কমিটি অনুমোদিত স্বাস্থ্য পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের ভর্তির জন্য নির্ধারিত ১৮ হাজার ৫০০ টাকা ফি সংশ্লিষ্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের নির্দেশিত ব্যাংকে অথবা অনলাইনে বিকেল ৩টার মধ্যে জমা দিতে হবে। ভর্তির জন্য চুয়েটে ৯০১টি, কুয়েটে ১ হাজার ৬৫টি এবং রুয়েটে ১ হাজার ২৩৫টি আসন আছে।

ভর্তি সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য তিন প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের সমন্বিত ওয়েবসাইটে (https:// admissionckruet.ac.bd/res.php) পাওয়া যাবে।