সেন্টমার্টিন থেকে ৪ ট্রলারসহ ২২ জেলেকে ধরে নিয়ে গেছে মায়ানমারের নৌবাহিনী

বঙ্গোপসাগরের সেন্টমার্টিনের পূর্ব পাশ থেকে মাছ ধরার ৪টি ট্রলারসহ ২২ জেলেকে ধরে নিয়ে গেছে মায়ানমারের নৌবাহিনী। গতকাল সকাল সাড়ে ৯টার দিকে বাংলাদেশের জলসীমা থেকে এসব জেলেকে ধরে নিয়ে যাওয়া হয় বলে নিশ্চিত করেছেন সেন্টমার্টিন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নুর আহমদ। ট্রলার মালিকরা হলেনÑ সেন্টমার্টিনের মোহাম্মদ আজিম, নুরুল আমিন, হোসেন আহমদ ও মোহাম্মদ ইউনুস।

সেন্টমার্টিন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নুর আহমদ জানান, ৪টি ট্রলারসহ ২ জেলেকে মায়ানমারের নৌবাহিনী ধরে নিয়ে যাওয়ার পর মোবাইল ফোনে জেলেদের সঙ্গে আলাপ হয়েছে। জেলেরা জানিয়েছে, তাদের নৌবাহিনীর জাহাজে তুলেছে এবং ট্রলারগুলো জাহাজে বেঁধে রেখেছে। এখন মোবাইল ফোন বন্ধ থাকায় যোগাযোগ সম্ভব হচ্ছে না। বিষয়টি টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্টদের জানানো হয়েছে। টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পারভেজ চৌধুরী জানিয়েছেন, বিষয়টি তিনি অবগত হয়েছেন। এ ব্যাপারে উদ্যোগ গ্রহণের জন্য বিজিবি, কোস্টগার্ডকে জানানো হয়েছে।

রবিবার, ২১ নভেম্বর ২০২১ , ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ ১৫ রবিউস সানি ১৪৪৩

সেন্টমার্টিন থেকে ৪ ট্রলারসহ ২২ জেলেকে ধরে নিয়ে গেছে মায়ানমারের নৌবাহিনী

বঙ্গোপসাগরের সেন্টমার্টিনের পূর্ব পাশ থেকে মাছ ধরার ৪টি ট্রলারসহ ২২ জেলেকে ধরে নিয়ে গেছে মায়ানমারের নৌবাহিনী। গতকাল সকাল সাড়ে ৯টার দিকে বাংলাদেশের জলসীমা থেকে এসব জেলেকে ধরে নিয়ে যাওয়া হয় বলে নিশ্চিত করেছেন সেন্টমার্টিন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নুর আহমদ। ট্রলার মালিকরা হলেনÑ সেন্টমার্টিনের মোহাম্মদ আজিম, নুরুল আমিন, হোসেন আহমদ ও মোহাম্মদ ইউনুস।

সেন্টমার্টিন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নুর আহমদ জানান, ৪টি ট্রলারসহ ২ জেলেকে মায়ানমারের নৌবাহিনী ধরে নিয়ে যাওয়ার পর মোবাইল ফোনে জেলেদের সঙ্গে আলাপ হয়েছে। জেলেরা জানিয়েছে, তাদের নৌবাহিনীর জাহাজে তুলেছে এবং ট্রলারগুলো জাহাজে বেঁধে রেখেছে। এখন মোবাইল ফোন বন্ধ থাকায় যোগাযোগ সম্ভব হচ্ছে না। বিষয়টি টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্টদের জানানো হয়েছে। টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পারভেজ চৌধুরী জানিয়েছেন, বিষয়টি তিনি অবগত হয়েছেন। এ ব্যাপারে উদ্যোগ গ্রহণের জন্য বিজিবি, কোস্টগার্ডকে জানানো হয়েছে।