শাস্তি পেলেন শাহীন আফ্রিদি

শাস্তি পেলেন পাকিস্তানের পেসার শাহীন আফ্রিদি। আইসিসির আচরণবিধি ভঙ্গ করায় রোববার তার ম্যাচ ফি’র ১৫ শতাংশ জরিমানা করা হয়। পাশাপাশি তাকে একটি ডিমেরিট পয়েন্টও দেয়া হয়। মূলত বাংলাদেশের বিপক্ষে শনিবারের দ্বিতীয় টি-২০ ম্যাচে আফিফ হোসেনকে বল ছুড়ে মারায় তাকে এই শাস্তি দেয়া হয়। যা আইসিসির আচরণবিধির ২.৯ ধারার লঙ্ঘন। যেখানে বলা আছে কোন খেলোয়াড়, খেলোয়াড়ের সহকারী, আম্পায়ার, ম্যাচ রেফারি, ম্যাচ অফিসিয়াল কিংবা তৃতীয় কোন ব্যক্তিকে লক্ষ্য করে বিপজ্জনকভাবে বল কিংবা বোতল ছুড়ে মারা আচরণবিধির লঙ্ঘন। যার সর্বোচ্চ শাস্তি ম্যাচ ফি’র ৫০ শতাংশ জরিমানা ও ২টি ডিমেরিট পয়েন্ট দেয়া। সেক্ষেত্রে শাহীন আফ্রিদি সর্বনিম্ন শাস্তিই পেয়েছেন।

শনিবার বাংলাদেশের ইনিংসের তৃতীয় ওভারের সময় শাহীন আফ্রিদি স্ট্রাইকিং প্রান্তে থাকা বাংলাদেশের ব্যাটসম্যান আফিফ হোসেনের দিকে বল ছুড়ে মারেন। বল আফিফের বাম পায়ের গোড়ালিতে আঘাত করে। তাতে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন তিনি। আফিফ এ সময় পপিং ক্রিজের ভেতরেই ছিলেন। এমনকি তিনি রান নেয়ারও চেষ্টা করেননি। অনেকটা শুধু শুধুই তার দিকে বল ছুড়ে মারেন শাহীন। এই বিষয়টি দৃষ্টি এড়ায়নি আইসিসির। বিষয়টি তারা আমলে নিয়ে রোববার শাস্তি দিয়েছে। শাহীন আফ্রিদিও এই শাস্তি মেনে নেয়ায় আনুষ্ঠানিক কোন শুনানির প্রয়োজন হয়নি।

শাহীনের ম্যাচ ফি’র ১৫ শতাংশ জরিমানার পাশাপাশি দেয়া একটি ডিমেরিট গেল ২৪ মাসের মধ্যে তার প্রথম। পরবর্তী ২৪ মাসের মধ্যে তিনি আরও ৩টি ডিমেরিট পয়েন্ট পেলে টেস্ট, ওয়ানডে কিংবা টি-২০ ম্যাচে নিষিদ্ধ হবেন।

সোমবার, ২২ নভেম্বর ২০২১ , ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ ১৬ রবিউস সানি ১৪৪৩

শাস্তি পেলেন শাহীন আফ্রিদি

শাস্তি পেলেন পাকিস্তানের পেসার শাহীন আফ্রিদি। আইসিসির আচরণবিধি ভঙ্গ করায় রোববার তার ম্যাচ ফি’র ১৫ শতাংশ জরিমানা করা হয়। পাশাপাশি তাকে একটি ডিমেরিট পয়েন্টও দেয়া হয়। মূলত বাংলাদেশের বিপক্ষে শনিবারের দ্বিতীয় টি-২০ ম্যাচে আফিফ হোসেনকে বল ছুড়ে মারায় তাকে এই শাস্তি দেয়া হয়। যা আইসিসির আচরণবিধির ২.৯ ধারার লঙ্ঘন। যেখানে বলা আছে কোন খেলোয়াড়, খেলোয়াড়ের সহকারী, আম্পায়ার, ম্যাচ রেফারি, ম্যাচ অফিসিয়াল কিংবা তৃতীয় কোন ব্যক্তিকে লক্ষ্য করে বিপজ্জনকভাবে বল কিংবা বোতল ছুড়ে মারা আচরণবিধির লঙ্ঘন। যার সর্বোচ্চ শাস্তি ম্যাচ ফি’র ৫০ শতাংশ জরিমানা ও ২টি ডিমেরিট পয়েন্ট দেয়া। সেক্ষেত্রে শাহীন আফ্রিদি সর্বনিম্ন শাস্তিই পেয়েছেন।

শনিবার বাংলাদেশের ইনিংসের তৃতীয় ওভারের সময় শাহীন আফ্রিদি স্ট্রাইকিং প্রান্তে থাকা বাংলাদেশের ব্যাটসম্যান আফিফ হোসেনের দিকে বল ছুড়ে মারেন। বল আফিফের বাম পায়ের গোড়ালিতে আঘাত করে। তাতে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন তিনি। আফিফ এ সময় পপিং ক্রিজের ভেতরেই ছিলেন। এমনকি তিনি রান নেয়ারও চেষ্টা করেননি। অনেকটা শুধু শুধুই তার দিকে বল ছুড়ে মারেন শাহীন। এই বিষয়টি দৃষ্টি এড়ায়নি আইসিসির। বিষয়টি তারা আমলে নিয়ে রোববার শাস্তি দিয়েছে। শাহীন আফ্রিদিও এই শাস্তি মেনে নেয়ায় আনুষ্ঠানিক কোন শুনানির প্রয়োজন হয়নি।

শাহীনের ম্যাচ ফি’র ১৫ শতাংশ জরিমানার পাশাপাশি দেয়া একটি ডিমেরিট গেল ২৪ মাসের মধ্যে তার প্রথম। পরবর্তী ২৪ মাসের মধ্যে তিনি আরও ৩টি ডিমেরিট পয়েন্ট পেলে টেস্ট, ওয়ানডে কিংবা টি-২০ ম্যাচে নিষিদ্ধ হবেন।