পরীক্ষা কেন্দ্রে দেয়ালঘড়ি বিড়ম্বনা

ঢাকা শহরে প্রায় প্রতি শুক্রবার কোনো না কোনো চাকুরির পরীক্ষা হয়ে থাকে। শহরের হাই স্কুল ও কলেজগুলোই মূলত এসব পরীক্ষার কেন্দ্র। সাধারণত প্রতিটি পরীক্ষার প্রবেশপত্রে নির্দেশনা দেয়া থাকে হাতঘড়িসহ সকল প্রকার ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস সঙ্গে নিয়ে পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশ করা যাবে না। সকল পরীক্ষার্থীকে এই সকল নিয়ম মেনেই পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হয়, অন্যথায় নেমে আসে শাস্তির খড়গ। কিন্তু পরীক্ষার এই নিয়ম মানতে গিয়ে পরীক্ষার্থীদের প্রায় প্রতিনিয়তই অলিখিত বিড়ম্বনার শিকার হতে হচ্ছে। কেননা পরীক্ষা নেওয়া অনেক কেন্দ্রের প্রতিটি কক্ষে ঘড়ি থাকে না। আবার কোনো কোনো কক্ষে ঘড়ি থাকলেও ঘড়ির সময় ঠিক থাকে না।

প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় প্রতিটি সেকেন্ডের মূল্য অনেক। সময়ের সঠিক ব্যবহার করতে না পারার কারণে অনেকে বাদ পড়ে যাচ্ছে খুব সহজেই। অথচ বিষয়টি এমন হওয়ার কথা ছিল না। তাই যে সকল কেন্দ্রে পরীক্ষা গ্রহণ করা হয় সে সকল কেন্দ্রের সকল কক্ষে দেয়ালঘড়ি সচল আছে কিনা তা নিশ্চিত করতে কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

মঞ্জুর রনি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।

বৃহস্পতিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২০ , ৯ মাঘ ১৪২৬, ২৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

পরীক্ষা কেন্দ্রে দেয়ালঘড়ি বিড়ম্বনা

ঢাকা শহরে প্রায় প্রতি শুক্রবার কোনো না কোনো চাকুরির পরীক্ষা হয়ে থাকে। শহরের হাই স্কুল ও কলেজগুলোই মূলত এসব পরীক্ষার কেন্দ্র। সাধারণত প্রতিটি পরীক্ষার প্রবেশপত্রে নির্দেশনা দেয়া থাকে হাতঘড়িসহ সকল প্রকার ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস সঙ্গে নিয়ে পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশ করা যাবে না। সকল পরীক্ষার্থীকে এই সকল নিয়ম মেনেই পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হয়, অন্যথায় নেমে আসে শাস্তির খড়গ। কিন্তু পরীক্ষার এই নিয়ম মানতে গিয়ে পরীক্ষার্থীদের প্রায় প্রতিনিয়তই অলিখিত বিড়ম্বনার শিকার হতে হচ্ছে। কেননা পরীক্ষা নেওয়া অনেক কেন্দ্রের প্রতিটি কক্ষে ঘড়ি থাকে না। আবার কোনো কোনো কক্ষে ঘড়ি থাকলেও ঘড়ির সময় ঠিক থাকে না।

প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় প্রতিটি সেকেন্ডের মূল্য অনেক। সময়ের সঠিক ব্যবহার করতে না পারার কারণে অনেকে বাদ পড়ে যাচ্ছে খুব সহজেই। অথচ বিষয়টি এমন হওয়ার কথা ছিল না। তাই যে সকল কেন্দ্রে পরীক্ষা গ্রহণ করা হয় সে সকল কেন্দ্রের সকল কক্ষে দেয়ালঘড়ি সচল আছে কিনা তা নিশ্চিত করতে কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

মঞ্জুর রনি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।