পিপলস লিজিংয়ের ৭ জনকে দুদকে তলব

পিকে হালদারের প্রতারণা কাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে পিপলস লিজিং এর সাবেক চেয়ারম্যান মতিউর এবং পরিচালক আরেফিন সামসুলসহ ৭ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। আগামী ১১ জানুয়ারি থেকে ১৩ জানুয়ারি দুদক কার্যালয়ে হাজির হয়ে ওই ৭ জনকে বক্তব্য দেয়ার জন্য বলা হয়েছে। দুদক বলছে, পিকে হালদার যে অর্থ হাতিয়ে নিয়েছে এবং বিদেশে পাচারসহ নানা প্রতিষ্ঠানে বিনিয়োগ করেছেন এর সঙ্গে অনেকেই জড়িত। যে ৭ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডাকা হয়েছে তাদের বিরুদ্ধে অর্থ লুটের ঘটনায় পিকে হালদারকে নানাভাবে সহযোগিতার অভিযোগ আছে।

দুদক সূত্র জানায়, পিপলস লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্স-এর সাবেক চেয়ারম্যান মতিউর রহমান, সাবেক পরিচালক আরেফিন সামসুল আলামিন, ন্যাচার এন্টারপ্রাইজ ও এমটিবি মেরিন লি.-এর মালিক নওশের উল ইসলাম এবং মমতাজ বেগম, পিকের আত্মীয় সনজিব কুমার হাওলাদার, বাসুদেব ব্যানার্জী এবং পাপিয়া ব্যানার্জীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করা হয়েছে। গতকাল দুদক থেকে তলবি নোটিশ পাঠানো হয়েছে সংশ্লিষ্টদের ঠিকানায়। এরমধ্যে পিপলসের সাবেক চেয়ারম্যান মতিউর এবং পরিচালক সামসুলকে ১১ জানুয়ারি, নওশের, মমতাজ এবং সনজিবকে ১২ জানুয়ারি এবং বাসুদেব ও পাপিয়া বানার্জীকে ১৩ জানুয়ারি দুদকে হাজির থাকতে বলা হয়েছে।

দুদকের অনুসন্ধান সংশ্লিষ্ট টিমের এক কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, বিভিন্ন সময় পিকে হালদার যে ৪ প্রতিষ্ঠান থেকে ঋণের নামে অর্থ নিয়ে আত্মসাৎ, দেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে বিনিয়োগ এবং বিদেশে পাচার করার বিষয়ে সংশ্লিষ্ট ওই ৭ জনের সহযোগিতা ছিল।

আরও খবর
এবার অন্য টিকার জন্য যোগাযোগ শুরু
ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের জন্য টিকা উৎপাদনের অনুমতি পেল ‘গ্লোব বায়োটেক’
একদিনে ১৭ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৯৭৮
হু তদন্ত দলকে ভিসা দেয়নি চীন
যৌথ নদী কমিশনের বৈঠক অভিন্ন ৬ নদীর তথ্য বিনিময়
মায়ানমার কোন প্রতিশ্রুতি কার্যকর করছে না
‘গত বছরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৪৯৬৯
সিনেটে নিয়ন্ত্রণ পেতে যাচ্ছে ডেমোক্র্যাটরা
তিস্তা ভাঙছে : জমি নদীতে মানবেতর জীবনযাপন চরবাসীর
মুক্তিযোদ্ধা যাচাই-বাছাই ৩০ জানুয়ারি
আমৃত্যু নোয়াখালী ও ফেনীর অপরাজনীতির বিরুদ্ধে কথা বলব : কাদের মির্জা
দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গে ব্যবস্থা নিতে কেউ বিশেষ সুবিধা পাবে না
টেকনাফে পুলিশের ওপর হামলা : গুলিতে নিহত ১

বৃহস্পতিবার, ০৭ জানুয়ারী ২০২১ , ২৩ পৌষ ১৪২৭, ২২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪২

পিকে হালদারের সঙ্গে যোগসাজশ

পিপলস লিজিংয়ের ৭ জনকে দুদকে তলব

পিকে হালদারের প্রতারণা কাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে পিপলস লিজিং এর সাবেক চেয়ারম্যান মতিউর এবং পরিচালক আরেফিন সামসুলসহ ৭ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। আগামী ১১ জানুয়ারি থেকে ১৩ জানুয়ারি দুদক কার্যালয়ে হাজির হয়ে ওই ৭ জনকে বক্তব্য দেয়ার জন্য বলা হয়েছে। দুদক বলছে, পিকে হালদার যে অর্থ হাতিয়ে নিয়েছে এবং বিদেশে পাচারসহ নানা প্রতিষ্ঠানে বিনিয়োগ করেছেন এর সঙ্গে অনেকেই জড়িত। যে ৭ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডাকা হয়েছে তাদের বিরুদ্ধে অর্থ লুটের ঘটনায় পিকে হালদারকে নানাভাবে সহযোগিতার অভিযোগ আছে।

দুদক সূত্র জানায়, পিপলস লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্স-এর সাবেক চেয়ারম্যান মতিউর রহমান, সাবেক পরিচালক আরেফিন সামসুল আলামিন, ন্যাচার এন্টারপ্রাইজ ও এমটিবি মেরিন লি.-এর মালিক নওশের উল ইসলাম এবং মমতাজ বেগম, পিকের আত্মীয় সনজিব কুমার হাওলাদার, বাসুদেব ব্যানার্জী এবং পাপিয়া ব্যানার্জীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করা হয়েছে। গতকাল দুদক থেকে তলবি নোটিশ পাঠানো হয়েছে সংশ্লিষ্টদের ঠিকানায়। এরমধ্যে পিপলসের সাবেক চেয়ারম্যান মতিউর এবং পরিচালক সামসুলকে ১১ জানুয়ারি, নওশের, মমতাজ এবং সনজিবকে ১২ জানুয়ারি এবং বাসুদেব ও পাপিয়া বানার্জীকে ১৩ জানুয়ারি দুদকে হাজির থাকতে বলা হয়েছে।

দুদকের অনুসন্ধান সংশ্লিষ্ট টিমের এক কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, বিভিন্ন সময় পিকে হালদার যে ৪ প্রতিষ্ঠান থেকে ঋণের নামে অর্থ নিয়ে আত্মসাৎ, দেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে বিনিয়োগ এবং বিদেশে পাচার করার বিষয়ে সংশ্লিষ্ট ওই ৭ জনের সহযোগিতা ছিল।