কালবৈশাখী ঝড় ও শিলাবৃষ্টির সম্ভাবনা

রাঙ্গামাটি ও কুমিল্লা অঞ্চলসহ রাজশাহী, রংপুর, ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা ও সিলেট বিভাগের দু’এক জায়গায় কালবৈশাখী ঝড় আঘাত হানতে পারে। কোথাও কোথাও বজ্রসহ শিলাবৃষ্টির আশঙ্কা রয়েছে। গতকাল সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে এ তথ্য জানিয়েছে অধিদপ্তর।

আবহাওয়া অফিস জানায়, রাঙ্গামাটি ও কুমিল্লা অঞ্চলসহ রাজশাহী, রংপুর, ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা ও সিলেট বিভাগের দুয়েক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা অথবা ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এসব স্থানে ঘণ্টায় ৫০ থেকে ৬০ কি.মি. বেশি গতিতে কালবৈশাখী ঝড়ের আশঙ্কা রয়েছে।

এছাড়া দেশের অন্যান্য স্থানে অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা অপরিবর্তিত থাকবে। পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়, ঢাকায় দক্ষিণ ও দক্ষিন-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৬-১২ কি.মি. বেগে যা অস্থায়ীভাবে দমকায় ঘণ্টায় ৫০-৬৯ কি.মি. বেগে বাতাস বইতে পারে।

বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ মো. বজলুর রশিদ বলেন, চৈত্রের এই সময়ে হালকা মেঘ থেকেই বড় ধরনের ঝড়-বৃষ্টি হতে পারে। তাই অনেক আগে থেকে সঠিকভাবে বলা যায় না কখন ঝড়-বৃষ্টি শুরু হবে। তবে আমরা ধারণা করছি সন্ধ্যার পর একাধিক স্থানে ঝোড়ো হাওয়াসহ বজ্রবৃষ্টি হতে পারে। কোথাও কোথাও কালবৈশাখী ঝড় বয়ে যেতে পারে।

শনিবার, ১০ এপ্রিল ২০২১ , ২৬ চৈত্র ১৪২৭ ২৫ শাবান ১৪৪২

কালবৈশাখী ঝড় ও শিলাবৃষ্টির সম্ভাবনা

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

রাঙ্গামাটি ও কুমিল্লা অঞ্চলসহ রাজশাহী, রংপুর, ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা ও সিলেট বিভাগের দু’এক জায়গায় কালবৈশাখী ঝড় আঘাত হানতে পারে। কোথাও কোথাও বজ্রসহ শিলাবৃষ্টির আশঙ্কা রয়েছে। গতকাল সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে এ তথ্য জানিয়েছে অধিদপ্তর।

আবহাওয়া অফিস জানায়, রাঙ্গামাটি ও কুমিল্লা অঞ্চলসহ রাজশাহী, রংপুর, ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা ও সিলেট বিভাগের দুয়েক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা অথবা ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এসব স্থানে ঘণ্টায় ৫০ থেকে ৬০ কি.মি. বেশি গতিতে কালবৈশাখী ঝড়ের আশঙ্কা রয়েছে।

এছাড়া দেশের অন্যান্য স্থানে অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা অপরিবর্তিত থাকবে। পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়, ঢাকায় দক্ষিণ ও দক্ষিন-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৬-১২ কি.মি. বেগে যা অস্থায়ীভাবে দমকায় ঘণ্টায় ৫০-৬৯ কি.মি. বেগে বাতাস বইতে পারে।

বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ মো. বজলুর রশিদ বলেন, চৈত্রের এই সময়ে হালকা মেঘ থেকেই বড় ধরনের ঝড়-বৃষ্টি হতে পারে। তাই অনেক আগে থেকে সঠিকভাবে বলা যায় না কখন ঝড়-বৃষ্টি শুরু হবে। তবে আমরা ধারণা করছি সন্ধ্যার পর একাধিক স্থানে ঝোড়ো হাওয়াসহ বজ্রবৃষ্টি হতে পারে। কোথাও কোথাও কালবৈশাখী ঝড় বয়ে যেতে পারে।