টিকার প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজ পাশাপাশি চলছে

সারাদেশে গতকাল করোনা টিকার প্রথম ডোজ নিয়েছেন ২২ হাজার ৪৫৬ জন। আর টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন এক লাখ ৩৮ হাজার ৮৭৯ জন।

প্রথম ডোজ গ্রহণকারীদের মধ্যে পুরুষ ১৩ হাজার ৬২৮ জন ও নারী আট হাজার ৮২৮ জন। আর দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণকারীদের মধ্যে পুরুষ ৯৩ হাজার ৫৩৪ জন ও নারী ৪৫ হাজার ৩৪৫ জন।

গতকাল রাতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, গতকাল বিকেল সাড়ে ৫টা নাগাদ টিকা নিতে নিবন্ধন করেছেন ৭০ লাখ ৫৮ হাজার ৯৯৯ জন। এর মধ্যে এ পর্যন্ত মোট প্রথম ডোজ নিয়েছেন ৫৬ লাখ ৪৯ হাজার ৫৬৩ জন। টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন পাঁচ লাখ ২২ হাজার ৫৯৬ জন। প্রথম ডোজের মোট টিকাগ্রহীতাদের মধ্যে পুরুষ ৩৫ লাখ দুই হাজার ৭৫৩ জন এবং মহিলা ২১ লাখ ৪৬ হাজার ৮১০ জন।

গত ৭ ফেব্রুয়ারি দেশে করোনার গণটিকাদান কর্মসূচি শুরু করে স্বাস্থ্য বিভাগ। এই কর্মসূচির প্রথম দিন টিকা নিয়েছিলেন ৩১ হাজার ১৬০ জন। এর আগে গত ২৭ জানুয়ারি আনুষ্ঠানিকভাবে টিকা কর্মসূচির উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ওইদিন মোট ২৬ জনকে টিকা দেয়া হয়।

এরপর গত ৮ এপ্রিল টিকার দ্বিতীয় ডোজ দেয়া শুরু করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। সারাদেশের ৯৪৮টি কেন্দ্রে টিকা দেয়া হচ্ছে।

বাংলাদেশে ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটে উৎপাদিত ‘অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা’র উদ্ভাবিত করোনার টিকা দেয়া হচ্ছে। প্রত্যেককেই এই টিকার দুটি ডোজ দেয়া হচ্ছে। প্রথম ডোজ দেয়ার আট সপ্তাহ (দুই মাস) পর দ্বিতীয় ডোজ দেয়া হচ্ছে।

মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১ , ৩০ চৈত্র ১৪২৭ ২৯ শাবান ১৪৪২

টিকার প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজ পাশাপাশি চলছে

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

সারাদেশে গতকাল করোনা টিকার প্রথম ডোজ নিয়েছেন ২২ হাজার ৪৫৬ জন। আর টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন এক লাখ ৩৮ হাজার ৮৭৯ জন।

প্রথম ডোজ গ্রহণকারীদের মধ্যে পুরুষ ১৩ হাজার ৬২৮ জন ও নারী আট হাজার ৮২৮ জন। আর দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণকারীদের মধ্যে পুরুষ ৯৩ হাজার ৫৩৪ জন ও নারী ৪৫ হাজার ৩৪৫ জন।

গতকাল রাতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, গতকাল বিকেল সাড়ে ৫টা নাগাদ টিকা নিতে নিবন্ধন করেছেন ৭০ লাখ ৫৮ হাজার ৯৯৯ জন। এর মধ্যে এ পর্যন্ত মোট প্রথম ডোজ নিয়েছেন ৫৬ লাখ ৪৯ হাজার ৫৬৩ জন। টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন পাঁচ লাখ ২২ হাজার ৫৯৬ জন। প্রথম ডোজের মোট টিকাগ্রহীতাদের মধ্যে পুরুষ ৩৫ লাখ দুই হাজার ৭৫৩ জন এবং মহিলা ২১ লাখ ৪৬ হাজার ৮১০ জন।

গত ৭ ফেব্রুয়ারি দেশে করোনার গণটিকাদান কর্মসূচি শুরু করে স্বাস্থ্য বিভাগ। এই কর্মসূচির প্রথম দিন টিকা নিয়েছিলেন ৩১ হাজার ১৬০ জন। এর আগে গত ২৭ জানুয়ারি আনুষ্ঠানিকভাবে টিকা কর্মসূচির উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ওইদিন মোট ২৬ জনকে টিকা দেয়া হয়।

এরপর গত ৮ এপ্রিল টিকার দ্বিতীয় ডোজ দেয়া শুরু করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। সারাদেশের ৯৪৮টি কেন্দ্রে টিকা দেয়া হচ্ছে।

বাংলাদেশে ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটে উৎপাদিত ‘অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা’র উদ্ভাবিত করোনার টিকা দেয়া হচ্ছে। প্রত্যেককেই এই টিকার দুটি ডোজ দেয়া হচ্ছে। প্রথম ডোজ দেয়ার আট সপ্তাহ (দুই মাস) পর দ্বিতীয় ডোজ দেয়া হচ্ছে।