বিশ্বে ডিজিটাল ইকোনমিতে বাংলাদেশের নেতৃত্ব দেবে ওয়ালটন : পলক

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, ‘ওয়ালটন মেইড ইন বাংলাদেশ পণ্যের প্রতি আস্থা সৃষ্টি করেছে। ৯০ শতাংশেরও বেশি মানুষ ওয়ালটনের পণ্য কিনছে। আমি নিজেও ওয়ালটন ল্যাপটপ ব্যবহার করছি। ওয়ালটন আমাদের গর্ব। বাংলাদেশই শুধু নয়, ওয়ালটন বিশ্বজুড়ে সুনাম কুঁড়িয়েছে। আমার বিশ্বাস ২০৪১ সালের মধ্যে ওয়ালটন ডিজি-টেক সারা বিশ্বে ডিজিটাল ইকোনমিতে বাংলাদেশের নেতৃত্ব দেবে। এ ক্ষেত্রে সরকার সব ধরনের সহযোগিতা করবে।’

গতকাল ‘ওয়ালটন ল্যাপটপ স্টে হোম অফার অ্যাট ওয়ালটন ই-প্লাজা’ শীর্ষক ভার্চুয়াল মাধ্যমে আয়োজিত এক ডিক্লারেশন প্রোগ্রামে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন প্রতিমন্ত্রী। করোনা সংক্রমণ থেকে ক্রেতাদের সুরক্ষিত রাখতে ‘অকারণে বাইরে নয়, ঘরে বসে পণ্য ক্রয়’ স্লোগানে ওই ক্যাম্পেইন শুরু করল ওয়ালটন ডিজি-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড। এর আওতায় করোনা মহামারীর ঝুঁকি এড়াতে ঘরে বসেই প্রতিষ্ঠানটির অনলাইন শপ ই-প্লাজা থেকে ল্যাপটপ, ডেস্কটপ, অল-ইন-ওয়ান পিসি, মনিটরসহ বিভিন্ন এক্সেসরিজ কিনতে পারছেন গ্রাহক। পণ্যভেদে রয়েছে ২০ শতাংশ পর্যন্ত মূল্যছাড়। অনলাইনে কেনা আইটি পণ্য যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে হোম ডেলিভারিসহ নানা সুবিধা দিচ্ছে ওয়ালটন।

ওয়ালটন ডিজি-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের চেয়ারম্যান এসএম রেজাউল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন একই প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এসএম মঞ্জুরুল আলম এবং ওয়ালকার্ট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাবিহা জারিন অরণা।

অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন ওয়ালটন ডিজি-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের নির্বাহী পরিচালক আজিজুল হাকিম। অনলাইন অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের এএমডি আবুল বাশার হাওলাদার, ডিএমডি নজরুল ইসলাম সরকার, ইভা রিজওয়ানা নিলু, এমদাদুল হক সরকার, হুমায়ূন কবীর ও আলমগীর আলম সরকার, ডিজিটাল প্রোডাক্টস ডিভিশনের সিইও লিয়াকত আলী, প্লাজা ট্রেডের সিইও মোহাম্মদ রায়হান, নির্বাহী পরিচালক এসএম জাহিদ হাসান, উদয় হাকিম, ফিরোজ আলম, জিনাত হাকিম, আদনান আফজাল প্রমুখ।

‘ওয়ালটন ল্যাপটপ স্টে হোম অফার’ উদ্যেগের মাধ্যমে করোনার ঝুঁকি এড়িয়ে মানুষ সহজেই প্রয়োজনীয় পণ্যটি কিনতে পারবেন জানিয়ে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক আরও বলেন, ওয়ালটন ডিজি-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড প্রতিনিয়ত নতুন নতুন উদ্যেগ নিচ্ছে যার ফলে দেশের ডিজিটাল অর্থনীতি সমৃদ্ধ হচ্ছে। তরুণ প্রজন্ম উদ্যেক্তা হিসেবে গড়ে উঠতে পারছে। করোনার সময়ে বিশ্বের বিভিন্ন নামকরা কোম্পানি যখন কর্মী ছাঁটাইয়ে বাধ্য হচ্ছে, তখন ওয়ালটন ৫ হাজার নতুন কর্মী নিয়োগ দিয়েছে যা খুবই প্রশংসনীয়।

image
আরও খবর
অনলাইনে কেনা যাবে টিসিবির পণ্য
৯ কার্যদিবস পর পতন হলেও বেড়েছে লেনদেন
ভোজ্যতেলে লিটারপ্রতি ৫ টাকা দাম বাড়াতে চান ব্যবসায়ীরা
ব্যাংকের নিট মুনাফার ১ শতাংশ দিয়ে ‘স্টার্ট-আপ ফান্ড’ গঠনের নির্দেশ
ডাচ্-বাংলা ব্যাংকের ৩০ শতাংশ লভ্যাংশ ঘোষণা
বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় এফবিসিসিআইয়ের পরিচালকরা নির্বাচিত
এবারও শ্রমিকদের বেতন-বোনাসের টাকা চায় পোশাক কারখানার মালিকরা
প্রি-শিপমেন্ট ক্রেডিট তহবিলের ঋণের সুদহার ৫ শতাংশ
লাইকি’র রমজান অ্যাক্টিভিটি ক্যাম্পেইন শুরু
সিসকোর সেরা রিসেলার পার্টনার পুরস্কার পেল স্মার্ট
করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত সাড়ে ১০ লাখ পরিবার প্রধানমন্ত্রীর আর্থিক সহায়তা পাবে বিকাশে

মঙ্গলবার, ২৭ এপ্রিল ২০২১ , ১৪ বৈশাখ ১৪২৮ ১৪ রমজান ১৪৪২

বিশ্বে ডিজিটাল ইকোনমিতে বাংলাদেশের নেতৃত্ব দেবে ওয়ালটন : পলক

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

image

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, ‘ওয়ালটন মেইড ইন বাংলাদেশ পণ্যের প্রতি আস্থা সৃষ্টি করেছে। ৯০ শতাংশেরও বেশি মানুষ ওয়ালটনের পণ্য কিনছে। আমি নিজেও ওয়ালটন ল্যাপটপ ব্যবহার করছি। ওয়ালটন আমাদের গর্ব। বাংলাদেশই শুধু নয়, ওয়ালটন বিশ্বজুড়ে সুনাম কুঁড়িয়েছে। আমার বিশ্বাস ২০৪১ সালের মধ্যে ওয়ালটন ডিজি-টেক সারা বিশ্বে ডিজিটাল ইকোনমিতে বাংলাদেশের নেতৃত্ব দেবে। এ ক্ষেত্রে সরকার সব ধরনের সহযোগিতা করবে।’

গতকাল ‘ওয়ালটন ল্যাপটপ স্টে হোম অফার অ্যাট ওয়ালটন ই-প্লাজা’ শীর্ষক ভার্চুয়াল মাধ্যমে আয়োজিত এক ডিক্লারেশন প্রোগ্রামে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন প্রতিমন্ত্রী। করোনা সংক্রমণ থেকে ক্রেতাদের সুরক্ষিত রাখতে ‘অকারণে বাইরে নয়, ঘরে বসে পণ্য ক্রয়’ স্লোগানে ওই ক্যাম্পেইন শুরু করল ওয়ালটন ডিজি-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড। এর আওতায় করোনা মহামারীর ঝুঁকি এড়াতে ঘরে বসেই প্রতিষ্ঠানটির অনলাইন শপ ই-প্লাজা থেকে ল্যাপটপ, ডেস্কটপ, অল-ইন-ওয়ান পিসি, মনিটরসহ বিভিন্ন এক্সেসরিজ কিনতে পারছেন গ্রাহক। পণ্যভেদে রয়েছে ২০ শতাংশ পর্যন্ত মূল্যছাড়। অনলাইনে কেনা আইটি পণ্য যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে হোম ডেলিভারিসহ নানা সুবিধা দিচ্ছে ওয়ালটন।

ওয়ালটন ডিজি-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের চেয়ারম্যান এসএম রেজাউল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন একই প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এসএম মঞ্জুরুল আলম এবং ওয়ালকার্ট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাবিহা জারিন অরণা।

অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন ওয়ালটন ডিজি-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের নির্বাহী পরিচালক আজিজুল হাকিম। অনলাইন অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের এএমডি আবুল বাশার হাওলাদার, ডিএমডি নজরুল ইসলাম সরকার, ইভা রিজওয়ানা নিলু, এমদাদুল হক সরকার, হুমায়ূন কবীর ও আলমগীর আলম সরকার, ডিজিটাল প্রোডাক্টস ডিভিশনের সিইও লিয়াকত আলী, প্লাজা ট্রেডের সিইও মোহাম্মদ রায়হান, নির্বাহী পরিচালক এসএম জাহিদ হাসান, উদয় হাকিম, ফিরোজ আলম, জিনাত হাকিম, আদনান আফজাল প্রমুখ।

‘ওয়ালটন ল্যাপটপ স্টে হোম অফার’ উদ্যেগের মাধ্যমে করোনার ঝুঁকি এড়িয়ে মানুষ সহজেই প্রয়োজনীয় পণ্যটি কিনতে পারবেন জানিয়ে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক আরও বলেন, ওয়ালটন ডিজি-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড প্রতিনিয়ত নতুন নতুন উদ্যেগ নিচ্ছে যার ফলে দেশের ডিজিটাল অর্থনীতি সমৃদ্ধ হচ্ছে। তরুণ প্রজন্ম উদ্যেক্তা হিসেবে গড়ে উঠতে পারছে। করোনার সময়ে বিশ্বের বিভিন্ন নামকরা কোম্পানি যখন কর্মী ছাঁটাইয়ে বাধ্য হচ্ছে, তখন ওয়ালটন ৫ হাজার নতুন কর্মী নিয়োগ দিয়েছে যা খুবই প্রশংসনীয়।