সাহিদ রেজাকে পর্ষদ থেকে অপসারণের নির্দেশনা কেন্দ্রীয় ব্যাংকের

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত মার্কেন্টাইল ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যান সাহিদ রেজাকে পর্ষদ থেকে অপসারণের নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। প্রশান্ত কুমার (পি কে) হালদারের জালিয়াতির সঙ্গে জড়িত থাকায় মঙ্গলবার এ নির্দেশনা দেয় কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

বাংলাদেশ ব্যাংকের এ সংক্রান্ত নির্দেশনায় বলা হয়েছে, ?‘ব্যাংক-কোম্পানি আইন-১৯৯১ এর ৪৬ ধারার আওতায় মার্কেন্টাইল ব্যাংক লিমিটেডের পরিচালকের পদ থেকে একেএম সাহিদ রেজাকে অপসারণের আদেশ দেয়া হলো। আইনের ৪৬ (৩) ধারার বিধান অনুযায়ী এই আদেশের তারিখ থেকে দুই বছর তিনি উক্ত ব্যাংক-কোম্পানি বা অন্য কোন ব্যাংক-কোম্পানির ব্যবস্থাপনায় প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে সংযুক্ত বা অংশগ্রহণ করতে পারবেন না।’

‘ব্যাংক-কোম্পানি আইন-১৯৯১ এর ৪৮ (১) ধারার আওতায় গঠিত স্থায়ী কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতে একই আইনের ৪৬ ধারায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে এই আদেশ দেয়া হয়েছে।

এই আদেশ দ্বারা সংক্ষুব্ধ হলে তিনি উল্লিখিত আইনের ৪৮ (২) ধারার আওতায় বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিচালক পর্ষদের কাছে আপিল করতে পারবেন। এই আদেশ অবিলম্বে কার্যকর হবে।’

এ বিষয়ে সাহিদ রেজা গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আমার একটি রেগুলার ঋণকে কেন্দ্র করে কেন্দ্রীয় ব্যাংকে নির্দেশনা দিয়েছে। সেন্ট্রাল ব্যাংক মনে করে, ঋণ অনুমোদনের বিষয়ে কিছু সমস্যা ছিল।’

বৃহস্পতিবার, ২৯ এপ্রিল ২০২১ , ১৬ বৈশাখ ১৪২৮ ১৬ রমজান ১৪৪২

সাহিদ রেজাকে পর্ষদ থেকে অপসারণের নির্দেশনা কেন্দ্রীয় ব্যাংকের

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত মার্কেন্টাইল ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যান সাহিদ রেজাকে পর্ষদ থেকে অপসারণের নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। প্রশান্ত কুমার (পি কে) হালদারের জালিয়াতির সঙ্গে জড়িত থাকায় মঙ্গলবার এ নির্দেশনা দেয় কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

বাংলাদেশ ব্যাংকের এ সংক্রান্ত নির্দেশনায় বলা হয়েছে, ?‘ব্যাংক-কোম্পানি আইন-১৯৯১ এর ৪৬ ধারার আওতায় মার্কেন্টাইল ব্যাংক লিমিটেডের পরিচালকের পদ থেকে একেএম সাহিদ রেজাকে অপসারণের আদেশ দেয়া হলো। আইনের ৪৬ (৩) ধারার বিধান অনুযায়ী এই আদেশের তারিখ থেকে দুই বছর তিনি উক্ত ব্যাংক-কোম্পানি বা অন্য কোন ব্যাংক-কোম্পানির ব্যবস্থাপনায় প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে সংযুক্ত বা অংশগ্রহণ করতে পারবেন না।’

‘ব্যাংক-কোম্পানি আইন-১৯৯১ এর ৪৮ (১) ধারার আওতায় গঠিত স্থায়ী কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতে একই আইনের ৪৬ ধারায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে এই আদেশ দেয়া হয়েছে।

এই আদেশ দ্বারা সংক্ষুব্ধ হলে তিনি উল্লিখিত আইনের ৪৮ (২) ধারার আওতায় বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিচালক পর্ষদের কাছে আপিল করতে পারবেন। এই আদেশ অবিলম্বে কার্যকর হবে।’

এ বিষয়ে সাহিদ রেজা গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আমার একটি রেগুলার ঋণকে কেন্দ্র করে কেন্দ্রীয় ব্যাংকে নির্দেশনা দিয়েছে। সেন্ট্রাল ব্যাংক মনে করে, ঋণ অনুমোদনের বিষয়ে কিছু সমস্যা ছিল।’