সামান্য সূচকের সঙ্গে লেনদেনও বেড়েছে শেয়ারবাজারে

আগের কার্যদিবস পতন হলেও গতকাল সামান্য উত্থানে শেষ হয়েছে শেয়ারবাজারের লেনদেন। এদিন শেয়ারবাজারের প্রধান প্রধান সূচক সামান্য বেড়েছে। সূচকের সঙ্গে টাকার পরিমাণে লেনদেনও বেড়েছে। তবে বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর কমেছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ (সিএসই) সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ২.৩৪ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ৯৯৩.৩৩ পয়েন্টে। ডিএসইর অন্য সূচকগুলোর মধ্যে শরিয়াহ সূচক ২.১২ পয়েন্ট এবং ডিএসই-৩০ সূচক ১২.১৮ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ১ হাজার ২৮৪.০৭ পয়েন্টে এবং ২ হাজার ১৯৩.৬৩ পয়েন্টে। ডিএসইতে ১ হাজার ৯০৩ কোটি ৫২ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে যা আগের দিন থেকে ১৬৭ কোটি ১৯ লাখ টাকা বেশি। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ৭৩৬ কোটি ৩৩ লাখ টাকার। ডিএসইতে গতকাল ৩৬৬টি কোম্পানি লেনদেনে অংশ নিয়েছে। এর মধ্যে ১৪৯টির বা ৪০.৭১ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে। শেয়ার দর কমেছে ১৫৪টির বা ৪২.০৮ শতাংশের এবং বাকি ৬৩টির বা ১৭.২১ শতাংশের দর অপরিবর্তিত রয়েছে।

অন্য শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ১৬.৩৮ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৭ হাজার ৩৭৫.৯৫ পয়েন্টে। সিএসইতে গতকাল ২৯৮টি প্রতিষ্ঠান লেনদেনে অংশ নিয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১৩০টির দর বেড়েছে, কমেছে ১২৯টির আর ৩৯টির দর অপরিবর্তিত রয়েছে। সিএসইতে ৯২ কোটি ৩৭ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

গতকাল ডিএসই’র ব্লক মার্কেটে গতকাল ৩৫টি কোম্পানির ৩৯ কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিগুলোর ৭৭ লাখ ৫৫ হাজার ৫৬৫টি শেয়ার ৯৭ বার হাত বদল হয়েছে। এর মাধ্যমে কোম্পানিগুলোর ৩৮ কোটি ৮৯ লাখ ৭৮ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি অর্থাৎ ১০ কোটি ৬৪ লাখ ৭৫ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে জেনেক্সের। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩ কোটি ৮৪ লাখ ৫২ হাজার টাকার ডাচ-বাংলা ব্যাংকের এবং তৃতীয় সর্বোচ্চ ৩ কোটি ৫০ লাখ ৩২ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে এনআরবিসি ব্যাংকের।

এছাড়া আমান কটনের ৭৫ লাখ ৩২ হাজার টাকার, এসিআইয়ের ৯ লাখ ৭০ হাজার টাকার, বিডি ফাইন্যান্সের ৩ কোটি ২৯ লাখ ৮৩ হাজার টাকার, ব্র্যাক ব্যাংকের ৩ কোটি ১ লাখ ৮৯ হাজার টাকার, কন্টিনেন্টাল ইন্স্যুরেন্সের ১২ লাখ ২৫ হাজার টাকার, ডিবিএইচের ২৬ লাখ ৬৯ হাজার টাকার, ডরিন পাওয়ারের ৮ লাখ ৪ হাজার টাকার, ফার্স্ট সিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের ৮৫ লাখ ৪৬ হাজার টাকার, গ্রীন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্সের ২০ লাখ ৪৭ হাজার টাকার, জিএসপি ফাইন্যান্সের ১ কোটি ২৪ লাখ ৮০ হাজার টাকার, ইফাদ অটোসের ৩৪ লাখ টাকার, ইসলামিক ফাইন্যান্সের ১০ লাখ ৯৫ হাজার টাকার, কাট্টালি টেক্সটাইলের ৬৮ লাখ ৬৩ হাজার টাকার, লংকাবাংলা ফাইন্যান্সের ২ কোটি ৮৫ লাখ ৩৪ হাজার টাকার, লিগ্যাসি ফুটওয়্যারের ১০ লাখ ৫৪ হাজার টাকার, ম্যারিকোর ২ কোটি ১০ লাখ টাকার, মার্কেন্টাইল ইন্স্যুরেন্সের ৫ লাখ ৮ হাজার টাকার, ন্যাশনাল ফিডের ৪৬ লাখ ৪০ হাজার টাকার, নর্দার্ন ইসলামী ইন্স্যুরেন্সের ৭৯ লাখ ৮৬ হাজার টাকার, ন্যাশনাল পলিমারের ১ কোটি ২৮ লাখ ৯১ হাজার টাকার, অলিম্পিকের ৫ লাখ ১৮ হাজার টাকার, ফনিক্স ইন্স্যুরেন্সের ১৫ লাখ টাকার, প্রগতি ইন্স্যুরেন্সের ৩৮ লাখ ৭০ হাজার টাকার, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইলের ৫ লাখ ৩৩ হাজার টাকার, আরডি ফুডের ১৩ লাখ ৮৯ হাজার টাকার, রিলায়েন্স ইন্স্যুরেন্সের ১৫ লাখ ৩৬ হাজার টাকার, রূপালী লাইফ ইন্স্যুরেন্সের ১৩ লাখ ৩৯ হাজার টাকার, এসকে ট্রিমসের ২৬ লাখ ৩৫ হাজার টাকার, সোনারবাংলা ইন্স্যুরেন্সের ১৮ লাখ ২৫ হাজার টাকার, স্ট্যান্ডার্ড ইন্স্যুরেন্সের ৩৩ লাখ ৯০ হাজার টাকার, তাওফিকা ফুডসের ১৪ লাখ ৯০ হাজার টাকার এবং উত্তরা ব্যাংকের ১৫ লাখ ৭৬ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে।

গতকাল ডিএসই’র লেনদেনে অংশ নেয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ১৫৪টির বা ৪২.০৮ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর কমেছে। এদিন ইউনিট দর সবচেয়ে বেশি কমেছে এমবিএল ফার্স্ট মিউচ্যুয়াল ফান্ডের। গত সোমবার এমবিএল ফার্স্ট মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ইউনিটের ক্লোজিং দর ছিল ১০.১০ টাকায়। গতকাল লেনদেন শেষে কোম্পানিটির ইউনিটের ক্লোজিং দর দাঁড়ায় ৯.১০ টাকায়। অর্থাৎ গতকাল কোম্পানিটির ইউনিট দর ১ টাকা বা ৯.৯০ শতাংশ কমেছে। এর মাধ্যমে এমবিএল ফার্স্ট মিউচ্যুয়াল ফান্ড ডিএসইর টপটেন লুজার তালিকার শীর্ষে উঠে আসে।

এছাড়া ডিএসইতে টপটেন লুজার তালিকায় উঠে আসা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে এআইবিএল ফার্স্ট মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ৯.১৭ শতাংশ, ফার্স্ট ফাইন্যান্সের ৮.৮২ শতাংশ, ঢাক ব্যাংকের ৬.৮৭ শতাংশ, প্রিমিয়ার লিজিংয়ের ৫ শতাংশ, জিএসপি ফাইন্যান্সের ৪.৯৭ শতাংশ, ফু-ওয়াং সিরামিকের ৪.৮৭ শতাংশ, ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের ৪.৮৬ শতাংশ, তাওফিকা ফডের ৪.৭৭ শতাংশ এবং আফতাব অটোর শেয়ার দর ৪.৭৪ শতাংশ কমেছে।

গতকাল টপটেন গেইনার বা দর বাড়ার শীর্ষে রয়েছে প্রগতি ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড। গতকাল শেয়ারটির দর বেড়েছে ১৭ টাকা ১০ পয়সা বা ২০.৯০ শতাংশ। এদিন শেয়ারটি সর্বশেষ ৯৮ টাকা ৯০ পয়সা দরে লেনদেন হয়। কোম্পানিটি ৩ হাজার ৮২৩ বারে ৩৫ লাখ ৯৬ হাজার ৮৯০টি শেয়ার লেনদেন করে।

তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে গ্লোবাল ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড। গতকাল কোম্পানিটির দর বেড়েছে ৫ টাকা ১০ পয়সা বা ১০ শতাংশ। এদিন কোম্পানিটি সর্বশেষ ৫৬ টাকা ১০ পয়সা দরে লেনদেন হয়। গেইনারের তৃতীয় স্থানে রয়েছে মার্কেন্টাইল ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড। গতকাল কোম্পানিটির দর ৪ টাকা ৮০ পয়সা বা ৯.৯৮ শতাংশ বেড়েছে। এদিন কোম্পানিটির শেয়ার সর্বশেষ ৫২ টাকা ৯০ পয়সা দরে লেনদেন হয়। গেইনার তালিকায় থাকা অন্য কোম্পানিগুলো হচ্ছে রিলায়েন্স ইন্স্যুরেন্স, স্ট্যান্ডার্ড ইন্স্যুরেন্স, গ্রীনডেল্টা ইন্স্যুরেন্স, প্রাইম ইন্স্যুরেন্স, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল, আলহাজ্ব টেক্সটাইল ও আমান কটন ফাইবার্স লিমিটেড।

গতকাল ডিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে উঠে এসেছে বেক্সিমকো লিমিটেড। কোম্পানিটির মোট ১০২ কোটি ৩৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। গতকাল কোম্পানিটি মোট ১ কোটি ১৬ লাখ ৯৫ হাজার ৫৪৭টি শেয়ার হাতবদল করেছে। তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে এনআরবিসি ব্যাংক লিমিটেড। কোম্পানিটির ১ কোটি ৪১ লাখ ৬৭ হাজার ৩২৯টি শেয়ার লেনদেন হয়েছে। যার বাজার মূল্য ৫৪ কোটি ৩৬ লাখ টাকা। পাইওনিয়র ইন্স্যুরেন্স তালিকার তৃতীয় স্থানে রয়েছে। কোম্পানিটির ৩২ লাখ ৮ হাজার ৩২৮টি শেয়ার লেনদেন হয়েছে। যার আর্থিক মূল্য ৪৭ কোটি ৯৪ লাখ টাকা। লেনদেনের তালিকায় থাকা অন্য কোম্পানিগুলো হচ্ছে গ্রীনডেল্টা ইন্স্যুরেন্স, ইফাদ অটোস, নর্দার্ন ইন্স্যুরেন্স, বিডি ফিন্যান্স, লংকাবাংলা ফিন্যান্স, ন্যাশনাল ফিড মিল ও এবি ব্যাংক লিমিটেড।

বুধবার, ০২ জুন ২০২১ , ১৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮ ২০ শাওয়াল ১৪৪২

সামান্য সূচকের সঙ্গে লেনদেনও বেড়েছে শেয়ারবাজারে

আগের কার্যদিবস পতন হলেও গতকাল সামান্য উত্থানে শেষ হয়েছে শেয়ারবাজারের লেনদেন। এদিন শেয়ারবাজারের প্রধান প্রধান সূচক সামান্য বেড়েছে। সূচকের সঙ্গে টাকার পরিমাণে লেনদেনও বেড়েছে। তবে বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর কমেছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ (সিএসই) সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ২.৩৪ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ৯৯৩.৩৩ পয়েন্টে। ডিএসইর অন্য সূচকগুলোর মধ্যে শরিয়াহ সূচক ২.১২ পয়েন্ট এবং ডিএসই-৩০ সূচক ১২.১৮ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ১ হাজার ২৮৪.০৭ পয়েন্টে এবং ২ হাজার ১৯৩.৬৩ পয়েন্টে। ডিএসইতে ১ হাজার ৯০৩ কোটি ৫২ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে যা আগের দিন থেকে ১৬৭ কোটি ১৯ লাখ টাকা বেশি। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ৭৩৬ কোটি ৩৩ লাখ টাকার। ডিএসইতে গতকাল ৩৬৬টি কোম্পানি লেনদেনে অংশ নিয়েছে। এর মধ্যে ১৪৯টির বা ৪০.৭১ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে। শেয়ার দর কমেছে ১৫৪টির বা ৪২.০৮ শতাংশের এবং বাকি ৬৩টির বা ১৭.২১ শতাংশের দর অপরিবর্তিত রয়েছে।

অন্য শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ১৬.৩৮ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৭ হাজার ৩৭৫.৯৫ পয়েন্টে। সিএসইতে গতকাল ২৯৮টি প্রতিষ্ঠান লেনদেনে অংশ নিয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১৩০টির দর বেড়েছে, কমেছে ১২৯টির আর ৩৯টির দর অপরিবর্তিত রয়েছে। সিএসইতে ৯২ কোটি ৩৭ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

গতকাল ডিএসই’র ব্লক মার্কেটে গতকাল ৩৫টি কোম্পানির ৩৯ কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিগুলোর ৭৭ লাখ ৫৫ হাজার ৫৬৫টি শেয়ার ৯৭ বার হাত বদল হয়েছে। এর মাধ্যমে কোম্পানিগুলোর ৩৮ কোটি ৮৯ লাখ ৭৮ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি অর্থাৎ ১০ কোটি ৬৪ লাখ ৭৫ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে জেনেক্সের। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩ কোটি ৮৪ লাখ ৫২ হাজার টাকার ডাচ-বাংলা ব্যাংকের এবং তৃতীয় সর্বোচ্চ ৩ কোটি ৫০ লাখ ৩২ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে এনআরবিসি ব্যাংকের।

এছাড়া আমান কটনের ৭৫ লাখ ৩২ হাজার টাকার, এসিআইয়ের ৯ লাখ ৭০ হাজার টাকার, বিডি ফাইন্যান্সের ৩ কোটি ২৯ লাখ ৮৩ হাজার টাকার, ব্র্যাক ব্যাংকের ৩ কোটি ১ লাখ ৮৯ হাজার টাকার, কন্টিনেন্টাল ইন্স্যুরেন্সের ১২ লাখ ২৫ হাজার টাকার, ডিবিএইচের ২৬ লাখ ৬৯ হাজার টাকার, ডরিন পাওয়ারের ৮ লাখ ৪ হাজার টাকার, ফার্স্ট সিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের ৮৫ লাখ ৪৬ হাজার টাকার, গ্রীন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্সের ২০ লাখ ৪৭ হাজার টাকার, জিএসপি ফাইন্যান্সের ১ কোটি ২৪ লাখ ৮০ হাজার টাকার, ইফাদ অটোসের ৩৪ লাখ টাকার, ইসলামিক ফাইন্যান্সের ১০ লাখ ৯৫ হাজার টাকার, কাট্টালি টেক্সটাইলের ৬৮ লাখ ৬৩ হাজার টাকার, লংকাবাংলা ফাইন্যান্সের ২ কোটি ৮৫ লাখ ৩৪ হাজার টাকার, লিগ্যাসি ফুটওয়্যারের ১০ লাখ ৫৪ হাজার টাকার, ম্যারিকোর ২ কোটি ১০ লাখ টাকার, মার্কেন্টাইল ইন্স্যুরেন্সের ৫ লাখ ৮ হাজার টাকার, ন্যাশনাল ফিডের ৪৬ লাখ ৪০ হাজার টাকার, নর্দার্ন ইসলামী ইন্স্যুরেন্সের ৭৯ লাখ ৮৬ হাজার টাকার, ন্যাশনাল পলিমারের ১ কোটি ২৮ লাখ ৯১ হাজার টাকার, অলিম্পিকের ৫ লাখ ১৮ হাজার টাকার, ফনিক্স ইন্স্যুরেন্সের ১৫ লাখ টাকার, প্রগতি ইন্স্যুরেন্সের ৩৮ লাখ ৭০ হাজার টাকার, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইলের ৫ লাখ ৩৩ হাজার টাকার, আরডি ফুডের ১৩ লাখ ৮৯ হাজার টাকার, রিলায়েন্স ইন্স্যুরেন্সের ১৫ লাখ ৩৬ হাজার টাকার, রূপালী লাইফ ইন্স্যুরেন্সের ১৩ লাখ ৩৯ হাজার টাকার, এসকে ট্রিমসের ২৬ লাখ ৩৫ হাজার টাকার, সোনারবাংলা ইন্স্যুরেন্সের ১৮ লাখ ২৫ হাজার টাকার, স্ট্যান্ডার্ড ইন্স্যুরেন্সের ৩৩ লাখ ৯০ হাজার টাকার, তাওফিকা ফুডসের ১৪ লাখ ৯০ হাজার টাকার এবং উত্তরা ব্যাংকের ১৫ লাখ ৭৬ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে।

গতকাল ডিএসই’র লেনদেনে অংশ নেয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ১৫৪টির বা ৪২.০৮ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর কমেছে। এদিন ইউনিট দর সবচেয়ে বেশি কমেছে এমবিএল ফার্স্ট মিউচ্যুয়াল ফান্ডের। গত সোমবার এমবিএল ফার্স্ট মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ইউনিটের ক্লোজিং দর ছিল ১০.১০ টাকায়। গতকাল লেনদেন শেষে কোম্পানিটির ইউনিটের ক্লোজিং দর দাঁড়ায় ৯.১০ টাকায়। অর্থাৎ গতকাল কোম্পানিটির ইউনিট দর ১ টাকা বা ৯.৯০ শতাংশ কমেছে। এর মাধ্যমে এমবিএল ফার্স্ট মিউচ্যুয়াল ফান্ড ডিএসইর টপটেন লুজার তালিকার শীর্ষে উঠে আসে।

এছাড়া ডিএসইতে টপটেন লুজার তালিকায় উঠে আসা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে এআইবিএল ফার্স্ট মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ৯.১৭ শতাংশ, ফার্স্ট ফাইন্যান্সের ৮.৮২ শতাংশ, ঢাক ব্যাংকের ৬.৮৭ শতাংশ, প্রিমিয়ার লিজিংয়ের ৫ শতাংশ, জিএসপি ফাইন্যান্সের ৪.৯৭ শতাংশ, ফু-ওয়াং সিরামিকের ৪.৮৭ শতাংশ, ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের ৪.৮৬ শতাংশ, তাওফিকা ফডের ৪.৭৭ শতাংশ এবং আফতাব অটোর শেয়ার দর ৪.৭৪ শতাংশ কমেছে।

গতকাল টপটেন গেইনার বা দর বাড়ার শীর্ষে রয়েছে প্রগতি ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড। গতকাল শেয়ারটির দর বেড়েছে ১৭ টাকা ১০ পয়সা বা ২০.৯০ শতাংশ। এদিন শেয়ারটি সর্বশেষ ৯৮ টাকা ৯০ পয়সা দরে লেনদেন হয়। কোম্পানিটি ৩ হাজার ৮২৩ বারে ৩৫ লাখ ৯৬ হাজার ৮৯০টি শেয়ার লেনদেন করে।

তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে গ্লোবাল ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড। গতকাল কোম্পানিটির দর বেড়েছে ৫ টাকা ১০ পয়সা বা ১০ শতাংশ। এদিন কোম্পানিটি সর্বশেষ ৫৬ টাকা ১০ পয়সা দরে লেনদেন হয়। গেইনারের তৃতীয় স্থানে রয়েছে মার্কেন্টাইল ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড। গতকাল কোম্পানিটির দর ৪ টাকা ৮০ পয়সা বা ৯.৯৮ শতাংশ বেড়েছে। এদিন কোম্পানিটির শেয়ার সর্বশেষ ৫২ টাকা ৯০ পয়সা দরে লেনদেন হয়। গেইনার তালিকায় থাকা অন্য কোম্পানিগুলো হচ্ছে রিলায়েন্স ইন্স্যুরেন্স, স্ট্যান্ডার্ড ইন্স্যুরেন্স, গ্রীনডেল্টা ইন্স্যুরেন্স, প্রাইম ইন্স্যুরেন্স, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল, আলহাজ্ব টেক্সটাইল ও আমান কটন ফাইবার্স লিমিটেড।

গতকাল ডিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে উঠে এসেছে বেক্সিমকো লিমিটেড। কোম্পানিটির মোট ১০২ কোটি ৩৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। গতকাল কোম্পানিটি মোট ১ কোটি ১৬ লাখ ৯৫ হাজার ৫৪৭টি শেয়ার হাতবদল করেছে। তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে এনআরবিসি ব্যাংক লিমিটেড। কোম্পানিটির ১ কোটি ৪১ লাখ ৬৭ হাজার ৩২৯টি শেয়ার লেনদেন হয়েছে। যার বাজার মূল্য ৫৪ কোটি ৩৬ লাখ টাকা। পাইওনিয়র ইন্স্যুরেন্স তালিকার তৃতীয় স্থানে রয়েছে। কোম্পানিটির ৩২ লাখ ৮ হাজার ৩২৮টি শেয়ার লেনদেন হয়েছে। যার আর্থিক মূল্য ৪৭ কোটি ৯৪ লাখ টাকা। লেনদেনের তালিকায় থাকা অন্য কোম্পানিগুলো হচ্ছে গ্রীনডেল্টা ইন্স্যুরেন্স, ইফাদ অটোস, নর্দার্ন ইন্স্যুরেন্স, বিডি ফিন্যান্স, লংকাবাংলা ফিন্যান্স, ন্যাশনাল ফিড মিল ও এবি ব্যাংক লিমিটেড।