পক্ষপাতিত্বের অভিযোগে বাপার নির্বাচন বোর্ড বাতিল, ভোট স্থগিত

নির্বাচন বোর্ড ও নির্বাচন আপিল বোর্ডের পক্ষপাতমূলক আচরণের অভিযোগে খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ শিল্প প্রতিষ্ঠানের মালিকদের সংগঠন বাংলাদেশ অ্যাগ্রো-প্রসেসরস অ্যাসোসিয়েশনের ২০২১-২০২৩ মেয়াদের কার্যনির্বাহী কমিটির নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে।

সংগঠনটির সাধারণ সদস্যদের অনাস্থার কারণে নির্বাচন বোর্ড ও নির্বাচন আপিল বোর্ড ভেঙে দিয়ে নতুন বোর্ড গঠন করা হয়েছে। সংগঠনটির কার্যনির্বাহী কমিটির জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র নিশ্চিত করেছে।

বাপার ২০২১-২০২৩ মেয়াদে কার্যনির্বাহী কমিটি গঠনের জন্য গত বছরের ৫ মার্চ তিন সদস্য বিশিষ্ট নির্বাচন বোর্ড ও তিন সদস্য বিশিষ্ট নির্বাচন আপিল বোর্ড গঠন করা হয়। নির্বাচন বোর্ডের ঘোষণা অনুযায়ী আগামী ১৯ জুন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু গত ২ জুন বাপার কার্যনির্বাহী কমিটির জরুরি সভা ও ১৬ জুন মুলতবি জরুরি সভায় নির্বাচন বোর্ডের বিরুদ্ধে পক্ষপাতমূলক আচরণ ও সিদ্ধান্ত নেয়ার অভিযোগ ওঠে।

পাশাপাশি সভায় কার্যনির্বাহী কমিটির অধিকাংশ সদস্য নির্বাচন বোর্ডের পক্ষপাতমূলক আচরণের কারণে তাদের প্রতি অনাস্থা জ্ঞাপন করেন।

এমন পরিস্থিতিতে অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের লক্ষ্যে বাপা কর্তৃক গঠিত নির্বাচন বোর্ড ও নির্বাচন আপিল বোর্ডের সদস্যদের দায়িত্ব থেকে অব্যহতি দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি নতুন করে নির্বাচন বোর্ড ও নির্বাচন আপিল বোর্ড গঠন করেছে সংগঠনটির কার্যনির্বাহী কমিটি।

সংগঠনের পক্ষ থেকে বাপার সাধারণ সম্পাদক মো. ইকতাদুল হক স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে গত বুধবার সাধারণ সদস্যদের জানানো হয়েছে, ২০২১-২০২৩ মেয়াদ কার্যনির্বাহী কমিটি গঠনে পক্ষপাতমূলক আচরণ ও সিদ্ধান্তের কারণে নির্বাচন বোর্ড ও নির্বাচন আপিল বোর্ডের সদস্যদের অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। এ পরিপ্রেক্ষিতে অব্যাহতিপ্রাপ্ত নির্বাচন বোর্ড ঘোষিত ১৯ জুনের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে না বলেও জানানো হয়েছে। চিঠিতে আরও বলা হয়, চলতি বছরের ৬ এপ্রিল ব্যবসায়ীক সংগঠনের নির্বাচন বিষয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের জারি করা নির্দেশনা মোতাবেক নির্বাচন করতে গত বুধবার বাপার নতুন নির্বাচন বোর্ড ও নির্বাচন আপিল বোর্ড গঠন করা হয়েছে। বর্তমান করোনা মহামারী নিয়ে সরকারি নিদের্শনা অনুযায়ী বাপার বর্তমান কার্যনির্বাহী কমিটি চলতি বছরের ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে নির্বাচন সম্পন্ন করবে বলে জানানো হয়েছে।

শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১ , ৪ আষাড় ১৪২৮ ৬ জিলকদ ১৪৪২

পক্ষপাতিত্বের অভিযোগে বাপার নির্বাচন বোর্ড বাতিল, ভোট স্থগিত

নির্বাচন বোর্ড ও নির্বাচন আপিল বোর্ডের পক্ষপাতমূলক আচরণের অভিযোগে খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ শিল্প প্রতিষ্ঠানের মালিকদের সংগঠন বাংলাদেশ অ্যাগ্রো-প্রসেসরস অ্যাসোসিয়েশনের ২০২১-২০২৩ মেয়াদের কার্যনির্বাহী কমিটির নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে।

সংগঠনটির সাধারণ সদস্যদের অনাস্থার কারণে নির্বাচন বোর্ড ও নির্বাচন আপিল বোর্ড ভেঙে দিয়ে নতুন বোর্ড গঠন করা হয়েছে। সংগঠনটির কার্যনির্বাহী কমিটির জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র নিশ্চিত করেছে।

বাপার ২০২১-২০২৩ মেয়াদে কার্যনির্বাহী কমিটি গঠনের জন্য গত বছরের ৫ মার্চ তিন সদস্য বিশিষ্ট নির্বাচন বোর্ড ও তিন সদস্য বিশিষ্ট নির্বাচন আপিল বোর্ড গঠন করা হয়। নির্বাচন বোর্ডের ঘোষণা অনুযায়ী আগামী ১৯ জুন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু গত ২ জুন বাপার কার্যনির্বাহী কমিটির জরুরি সভা ও ১৬ জুন মুলতবি জরুরি সভায় নির্বাচন বোর্ডের বিরুদ্ধে পক্ষপাতমূলক আচরণ ও সিদ্ধান্ত নেয়ার অভিযোগ ওঠে।

পাশাপাশি সভায় কার্যনির্বাহী কমিটির অধিকাংশ সদস্য নির্বাচন বোর্ডের পক্ষপাতমূলক আচরণের কারণে তাদের প্রতি অনাস্থা জ্ঞাপন করেন।

এমন পরিস্থিতিতে অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের লক্ষ্যে বাপা কর্তৃক গঠিত নির্বাচন বোর্ড ও নির্বাচন আপিল বোর্ডের সদস্যদের দায়িত্ব থেকে অব্যহতি দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি নতুন করে নির্বাচন বোর্ড ও নির্বাচন আপিল বোর্ড গঠন করেছে সংগঠনটির কার্যনির্বাহী কমিটি।

সংগঠনের পক্ষ থেকে বাপার সাধারণ সম্পাদক মো. ইকতাদুল হক স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে গত বুধবার সাধারণ সদস্যদের জানানো হয়েছে, ২০২১-২০২৩ মেয়াদ কার্যনির্বাহী কমিটি গঠনে পক্ষপাতমূলক আচরণ ও সিদ্ধান্তের কারণে নির্বাচন বোর্ড ও নির্বাচন আপিল বোর্ডের সদস্যদের অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। এ পরিপ্রেক্ষিতে অব্যাহতিপ্রাপ্ত নির্বাচন বোর্ড ঘোষিত ১৯ জুনের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে না বলেও জানানো হয়েছে। চিঠিতে আরও বলা হয়, চলতি বছরের ৬ এপ্রিল ব্যবসায়ীক সংগঠনের নির্বাচন বিষয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের জারি করা নির্দেশনা মোতাবেক নির্বাচন করতে গত বুধবার বাপার নতুন নির্বাচন বোর্ড ও নির্বাচন আপিল বোর্ড গঠন করা হয়েছে। বর্তমান করোনা মহামারী নিয়ে সরকারি নিদের্শনা অনুযায়ী বাপার বর্তমান কার্যনির্বাহী কমিটি চলতি বছরের ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে নির্বাচন সম্পন্ন করবে বলে জানানো হয়েছে।