না’গঞ্জ প্রেসক্লাবের সেক্রেটারিকে হুমকি

নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক শরীফ উদ্দিন সবুজকে হুমকি দেয়ার অভিযোগ ওঠেছে পরিবহন শ্রমিক নেতা বজলুর রহমান রিপন ওরফে হাজী রিপন ও তার এক সহযোগীর বিরুদ্ধে। গত সোমবার বেলা সোয়া একটার দিকে প্রেসক্লাব ভবনের লিফটে এই ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত রিপন জাতীয় পার্টির রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত হলেও তার বিরুদ্ধে একাধিক চাঁদাবাজি, সন্ত্রাসী কর্মকা-ের অভিযোগ রয়েছে। নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য নাসিম ওসমানের ছেলে আজমেরী ওসমানের ঘনিষ্ঠ সহযোগী সে।

হাজী রিপনের বিরুদ্ধে হুমকির অভিযোগে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন সাংবাদিক শরীফ উদ্দিন সবুজ। জিডিতে তিনি উল্লেখ করেছেন, ‘সোমবার বেলা সোয়া একটার দিকে আমি নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাব ভবনের পঞ্চম তলায় আমার অফিস থেকে লিফটে নামছিলাম। ক্লাবের ষষ্ঠ তলা থেকে লিফটে এসে পঞ্চম তলায় থামে সন্ত্রাসী হিসেবে শহরে পরিচিত নগরীর জামতলা নিবাসী হাজী রিপন। আমি লিফটে ওঠে ক্লাবের তৃতীয় তলায় থামি। এখান থেকে আমার দুইজন বন্ধু লিফটে ওঠে। তারা লিফটে ওঠতে সাত থেকে দশ সেকেন্ড দেরি করে। এ নিয়ে হাজী রিপন ও তার সঙ্গে থাকা নীল শার্ট পরা এক ব্যক্তি খুবই উত্তেজিত হয়ে ওঠে। হাজী রিপন আমাকে আমি মিনিস্টার হয়ে গেছি কিনা, দেখিয়ে দিবো, এ ধরনের কথা বলতে বলতে নিচে নামে।’

জিডিতে সাংবাদিক সবুজ আরও বলেন, ‘ভবনের নিচে লিফট থামলে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের ম্যানেজার শাহ আলমকে দেখতে পাই। হাজী রিপন হৈচৈ করতে থাকলে ম্যানেজার শাহ আলম এর প্রতিবাদ করলে হাজী রিপন তার সঙ্গে উত্তেজিত হয়ে ওঠে। এ সময় নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবু সাউদ মাসুদ, প্রেসক্লাবের পিয়ন রাকিবসহ আশপাশের লোকজন চলে আসে এবং তার উত্তেজিত আচরণের প্রতিবাদ জানায়। এ সময় সবার ক্ষোভের মুখে সে পালিয়ে যায়।’

‘হাজী রিপন নারায়ণগঞ্জে চিহ্নিত সন্ত্রাসী হিসেবে পরিচিত। তার বিরুদ্ধে থানায় একাধিক জিডি ও মামলা রয়েছে। এহেন সন্ত্রাসী ভবিষ্যতে আমার ক্ষতি করতে পারে বলে আমি আশঙ্কা করি। অতএব বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের অনুরোধ রইলো।’ বলে উল্লেখ করা হয় জিডিতে।

উল্লেখ্য, অভিযুক্ত হাজী রিপনের বিরুদ্ধে কিছুদিন পূর্বে ফটো সাংবাদিক মাহমুদুর রহমান প্রীতমকে মারধর করে রক্তাক্ত জখম করার অভিযোগ ওঠে। ওই ঘটনায় ফতুল্লা মডেল থানায় মামলাও করেন ভুক্তভোগী প্রীতম।

বুধবার, ৩০ জুন ২০২১ , ১৬ আষাঢ় ১৪২৮ ১৮ জিলক্বদ ১৪৪২

না’গঞ্জ প্রেসক্লাবের সেক্রেটারিকে হুমকি

নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক শরীফ উদ্দিন সবুজকে হুমকি দেয়ার অভিযোগ ওঠেছে পরিবহন শ্রমিক নেতা বজলুর রহমান রিপন ওরফে হাজী রিপন ও তার এক সহযোগীর বিরুদ্ধে। গত সোমবার বেলা সোয়া একটার দিকে প্রেসক্লাব ভবনের লিফটে এই ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত রিপন জাতীয় পার্টির রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত হলেও তার বিরুদ্ধে একাধিক চাঁদাবাজি, সন্ত্রাসী কর্মকা-ের অভিযোগ রয়েছে। নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য নাসিম ওসমানের ছেলে আজমেরী ওসমানের ঘনিষ্ঠ সহযোগী সে।

হাজী রিপনের বিরুদ্ধে হুমকির অভিযোগে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন সাংবাদিক শরীফ উদ্দিন সবুজ। জিডিতে তিনি উল্লেখ করেছেন, ‘সোমবার বেলা সোয়া একটার দিকে আমি নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাব ভবনের পঞ্চম তলায় আমার অফিস থেকে লিফটে নামছিলাম। ক্লাবের ষষ্ঠ তলা থেকে লিফটে এসে পঞ্চম তলায় থামে সন্ত্রাসী হিসেবে শহরে পরিচিত নগরীর জামতলা নিবাসী হাজী রিপন। আমি লিফটে ওঠে ক্লাবের তৃতীয় তলায় থামি। এখান থেকে আমার দুইজন বন্ধু লিফটে ওঠে। তারা লিফটে ওঠতে সাত থেকে দশ সেকেন্ড দেরি করে। এ নিয়ে হাজী রিপন ও তার সঙ্গে থাকা নীল শার্ট পরা এক ব্যক্তি খুবই উত্তেজিত হয়ে ওঠে। হাজী রিপন আমাকে আমি মিনিস্টার হয়ে গেছি কিনা, দেখিয়ে দিবো, এ ধরনের কথা বলতে বলতে নিচে নামে।’

জিডিতে সাংবাদিক সবুজ আরও বলেন, ‘ভবনের নিচে লিফট থামলে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের ম্যানেজার শাহ আলমকে দেখতে পাই। হাজী রিপন হৈচৈ করতে থাকলে ম্যানেজার শাহ আলম এর প্রতিবাদ করলে হাজী রিপন তার সঙ্গে উত্তেজিত হয়ে ওঠে। এ সময় নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবু সাউদ মাসুদ, প্রেসক্লাবের পিয়ন রাকিবসহ আশপাশের লোকজন চলে আসে এবং তার উত্তেজিত আচরণের প্রতিবাদ জানায়। এ সময় সবার ক্ষোভের মুখে সে পালিয়ে যায়।’

‘হাজী রিপন নারায়ণগঞ্জে চিহ্নিত সন্ত্রাসী হিসেবে পরিচিত। তার বিরুদ্ধে থানায় একাধিক জিডি ও মামলা রয়েছে। এহেন সন্ত্রাসী ভবিষ্যতে আমার ক্ষতি করতে পারে বলে আমি আশঙ্কা করি। অতএব বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের অনুরোধ রইলো।’ বলে উল্লেখ করা হয় জিডিতে।

উল্লেখ্য, অভিযুক্ত হাজী রিপনের বিরুদ্ধে কিছুদিন পূর্বে ফটো সাংবাদিক মাহমুদুর রহমান প্রীতমকে মারধর করে রক্তাক্ত জখম করার অভিযোগ ওঠে। ওই ঘটনায় ফতুল্লা মডেল থানায় মামলাও করেন ভুক্তভোগী প্রীতম।