ভারতে আদালত চত্বরে গুলিতে আইনজীবীর মৃত্যু

ভারতের উত্তরপ্রদেশের একটি নিম্ন আদালতে কোর্ট শুরুর কিছু সময় পরেই উত্তরপ্রদেশের শাহজাহানপুর জেলা আদালতে আচমকাই এক দুষ্কৃতকারী হামলা চালায়। এক আইনজীবীকে লক্ষ্য করেই গুলি করা হয়। গুলির আঘাতে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় ভূপেন্দ্র সিংহ নামে ওই আইনজীবীর। আনন্দবাজার পত্রিকাটি জানিয়েছে, শাহজাহানপুর জেলা আদালতের তৃতীয় তলায় এক ব্যক্তির সঙ্গে কথা বলছিলেন ওই আইনজীবী। সেই সময়ই হঠাৎ বিকট চিৎকার করে মেঝেতে লুটিয়ে পড়েন তিনি। কিছুক্ষণের মধ্যেই তার মৃত্যু হয়। পরে মৃতদেহের সামনে থেকে একটি দেশীয় পিস্তল উদ্ধার করে পুলিশ।

শাহজাহানপুরের পুলিশ সুপার জানান, এক ব্যক্তি একাই আদালত চত্বরে প্রবেশ করে গুলি চালায়। ওই ব্যক্তি ছাড়া ঘটনাস্থলের আশপাশে সন্দেহজনক কাউকে দেখা যায়নি। ফরেনসিক দল কাজ করছে। খুনের কারণ এখনও জানা যায়নি।

আদালতের এক বর্ষীয়ান আইনজীবী বলেন, ‘কীভাবে ঘটনাটি ঘটল তার বিস্তারিত জানি না। আমরা কোর্টের ভেতরে ছিলাম। তখনই হঠাৎ খবর পাই গুলিবিদ্ধ হয়েছেন এক ব্যক্তি। পরে এসে দেখতে পাই আমাদেরই এক আইনজীবীর দেহে গুলি লেগেছে। ওই ব্যক্তি আগে ব্যাংকে চাকরি করতেন। শেষ চার-পাঁচ বছর ধরে এখানে কাজ করছেন।’

মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১ , ০৩ কার্তিক ১৪২৮ ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

ভারতে আদালত চত্বরে গুলিতে আইনজীবীর মৃত্যু

ভারতের উত্তরপ্রদেশের একটি নিম্ন আদালতে কোর্ট শুরুর কিছু সময় পরেই উত্তরপ্রদেশের শাহজাহানপুর জেলা আদালতে আচমকাই এক দুষ্কৃতকারী হামলা চালায়। এক আইনজীবীকে লক্ষ্য করেই গুলি করা হয়। গুলির আঘাতে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় ভূপেন্দ্র সিংহ নামে ওই আইনজীবীর। আনন্দবাজার পত্রিকাটি জানিয়েছে, শাহজাহানপুর জেলা আদালতের তৃতীয় তলায় এক ব্যক্তির সঙ্গে কথা বলছিলেন ওই আইনজীবী। সেই সময়ই হঠাৎ বিকট চিৎকার করে মেঝেতে লুটিয়ে পড়েন তিনি। কিছুক্ষণের মধ্যেই তার মৃত্যু হয়। পরে মৃতদেহের সামনে থেকে একটি দেশীয় পিস্তল উদ্ধার করে পুলিশ।

শাহজাহানপুরের পুলিশ সুপার জানান, এক ব্যক্তি একাই আদালত চত্বরে প্রবেশ করে গুলি চালায়। ওই ব্যক্তি ছাড়া ঘটনাস্থলের আশপাশে সন্দেহজনক কাউকে দেখা যায়নি। ফরেনসিক দল কাজ করছে। খুনের কারণ এখনও জানা যায়নি।

আদালতের এক বর্ষীয়ান আইনজীবী বলেন, ‘কীভাবে ঘটনাটি ঘটল তার বিস্তারিত জানি না। আমরা কোর্টের ভেতরে ছিলাম। তখনই হঠাৎ খবর পাই গুলিবিদ্ধ হয়েছেন এক ব্যক্তি। পরে এসে দেখতে পাই আমাদেরই এক আইনজীবীর দেহে গুলি লেগেছে। ওই ব্যক্তি আগে ব্যাংকে চাকরি করতেন। শেষ চার-পাঁচ বছর ধরে এখানে কাজ করছেন।’