মুগদা হাসপাতালে এসি বিস্ফোরণ, আগুনে দগ্ধ ১০ জন

রাজধানীর মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এসি বিস্ফোরণ থেকে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এতে অন্তত ১০ জন দগ্ধ হয়েছেন। গতকাল দুপুর ১২টার পর হাসপাতালের ছয়তলায় এ অগ্নিকা-ের ঘটনা ঘটে। ফায়ার সার্ভিসের গণমাধ্যম বিভাগের কর্মকর্তা মো. রায়হান সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

তিনি জানান, আগুন লাগার খবর পেয়েই প্রথমে ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে কাজ শুরু করে। পরে আরও চারটি ইউনিট যোগ দেয়। বেলা একটায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।

কীভাবে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে, আগুনে কোন ক্ষয়ক্ষতি বা হতাহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে কি না, সে সম্পর্কে তাৎক্ষণিকভাবে কিছু জানাতে পারেনি ফায়ার সার্ভিস। তবে পরে মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল সূত্র জানায়, হাসপাতালের ছয়তলায় অবস্থিত ইকো ক্যাথ ল্যাবে এসির বিস্ফোরণ থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়।

ইকো ক্যাথ ল্যাবের টেকনিশিয়ান জহিরুল হক মজুমদার সাংবাদিকদের জানান, তারা ল্যাবে কাজ করছিলেন। হঠাৎ ল্যাবের এসির বিস্ফোরণ ঘটে। এতে ল্যাবে আগুন ধরে যায়। আগুনে অন্তত ১০ জন দগ্ধ হন।

দগ্ধ ব্যক্তিদের মধ্যে সাতজনের নাম জানা গেছে। তারা হলেন মণিকা পেরেরা, শাহিনা আক্তার, মেরি আক্তার, রুমি খাতুন, সাইদুর রহমান, নাজমুল ইসলাম ও আলমগীর রাজন। এই সাতজনের মধ্যে ছয়জনকে রাজধানীর শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে পাঠানো হয়েছে।

শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউট সূত্রে জানা গেছে, ইকো ক্যাথ ল্যাবের ইনচার্জ মণিকা পেরেরার হাত, পা ও মুখ দগ্ধ হয়েছে। মেরি আক্তারের দুই হাত দগ্ধ হয়েছে। শাহিনা আক্তারের হাত ও মুখ দগ্ধ হয়েছে। রুমি খাতুনের দুই হাত ও বা পা দগ্ধ হয়েছে। নাজমুল ইসলাম ও সাইদুর রহমানের হাত দগ্ধ হয়েছে।

মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল সূত্র জানায়, ইকো ক্যাথ ল্যাবের পাশেই আইসিইউ অবস্থিত। তবে আগুন ইকো ক্যাথ ল্যাবের বাইরে ছড়ায়নি।

শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১ , ০৬ কার্তিক ১৪২৮ ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

মুগদা হাসপাতালে এসি বিস্ফোরণ, আগুনে দগ্ধ ১০ জন

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

রাজধানীর মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এসি বিস্ফোরণ থেকে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এতে অন্তত ১০ জন দগ্ধ হয়েছেন। গতকাল দুপুর ১২টার পর হাসপাতালের ছয়তলায় এ অগ্নিকা-ের ঘটনা ঘটে। ফায়ার সার্ভিসের গণমাধ্যম বিভাগের কর্মকর্তা মো. রায়হান সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

তিনি জানান, আগুন লাগার খবর পেয়েই প্রথমে ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে কাজ শুরু করে। পরে আরও চারটি ইউনিট যোগ দেয়। বেলা একটায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।

কীভাবে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে, আগুনে কোন ক্ষয়ক্ষতি বা হতাহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে কি না, সে সম্পর্কে তাৎক্ষণিকভাবে কিছু জানাতে পারেনি ফায়ার সার্ভিস। তবে পরে মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল সূত্র জানায়, হাসপাতালের ছয়তলায় অবস্থিত ইকো ক্যাথ ল্যাবে এসির বিস্ফোরণ থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়।

ইকো ক্যাথ ল্যাবের টেকনিশিয়ান জহিরুল হক মজুমদার সাংবাদিকদের জানান, তারা ল্যাবে কাজ করছিলেন। হঠাৎ ল্যাবের এসির বিস্ফোরণ ঘটে। এতে ল্যাবে আগুন ধরে যায়। আগুনে অন্তত ১০ জন দগ্ধ হন।

দগ্ধ ব্যক্তিদের মধ্যে সাতজনের নাম জানা গেছে। তারা হলেন মণিকা পেরেরা, শাহিনা আক্তার, মেরি আক্তার, রুমি খাতুন, সাইদুর রহমান, নাজমুল ইসলাম ও আলমগীর রাজন। এই সাতজনের মধ্যে ছয়জনকে রাজধানীর শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে পাঠানো হয়েছে।

শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউট সূত্রে জানা গেছে, ইকো ক্যাথ ল্যাবের ইনচার্জ মণিকা পেরেরার হাত, পা ও মুখ দগ্ধ হয়েছে। মেরি আক্তারের দুই হাত দগ্ধ হয়েছে। শাহিনা আক্তারের হাত ও মুখ দগ্ধ হয়েছে। রুমি খাতুনের দুই হাত ও বা পা দগ্ধ হয়েছে। নাজমুল ইসলাম ও সাইদুর রহমানের হাত দগ্ধ হয়েছে।

মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল সূত্র জানায়, ইকো ক্যাথ ল্যাবের পাশেই আইসিইউ অবস্থিত। তবে আগুন ইকো ক্যাথ ল্যাবের বাইরে ছড়ায়নি।