পাকিস্তানের ক্রিকেট নিয়ে মিসবাহর বিস্ফোরক মন্তব্য

পাকিস্তানের কোচের দায়িত্ব ছাড়ার পরেই সে দেশের ক্রিকেট ব্যবস্থা নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করেছেন মিসবাহ উল-হক। তার দাবি, ক্রিকেট সংস্কৃতি এবং নীতি না বদলালে সাফল্য পাওয়া খুবই মুশকিল।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের পরেই আচমকা পাকিস্তানের কোচের পদ থেকে ইস্তফা দেন মিসবাহ। তারপর এই প্রথম মুখ খুললেন তিনি। এক চ্যানেলে বলেছেন, ‘আমাদের ক্রিকেটের সব থেকে বড় সমস্যা হল, এখানে শুধু ফলাফলের দিকে নজর দেয়া হয়। আগামীর জন্য পরিকল্পনা করা বা প্রক্রিয়ার উন্নতি করার মতো সময় দেয়া হয় না।’

মিসবাহর সংযোজন, ‘আমাদের এই সত্যিটা বুঝতে হবে যে ঘরোয়া স্তরে আগে ক্রিকেটারদের উন্নতি করতে হবে। তারপর জাতীয় দলে ওদের নিয়ে এসে দক্ষতার উন্নতির ওপর জোর দিতে হবে। কিন্তু আমরা শুধু ফল চাই। এই সংস্কৃতি পাকিস্তান ক্রিকেটে খুব স্বাভাবিক ব্যাপার হয়ে গিয়েছে। কোন ম্যাচ বা সিরিজ হারার পরেই আমরা দ্রুত কাউকে খুঁজে নিয়ে টার্গেট করে দিই।’

মিসবাহর মতে, রূপসজ্জায় বদল এনে কোনদিন উন্নতি হবে না। কোচ এবং ক্রিকেটারদের বদলানো যেতেই পারে, তবে তাতে সমস্যার সমাধান হবে না। সেটা থেকেই যাবে। এ প্রসঙ্গে পাকিস্তানের নির্বাচকদেরও একহাত নিয়েছেন তিনি। বলেছেন, ‘কী করছে ওরা? কখনও বিশ্বকাপের দলে নতুন ক্রিকেটারদের নেয়া হচ্ছে। যাদের বাদ দেয়া হয়েছে ১০ দিন বাদেই তাদের আবার দলে নেয়া হয়েছে। এটা কী চলছে?’

শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১ , ০৬ কার্তিক ১৪২৮ ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

পাকিস্তানের ক্রিকেট নিয়ে মিসবাহর বিস্ফোরক মন্তব্য

সংবাদ স্পোর্টস ডেস্ক

পাকিস্তানের কোচের দায়িত্ব ছাড়ার পরেই সে দেশের ক্রিকেট ব্যবস্থা নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করেছেন মিসবাহ উল-হক। তার দাবি, ক্রিকেট সংস্কৃতি এবং নীতি না বদলালে সাফল্য পাওয়া খুবই মুশকিল।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের পরেই আচমকা পাকিস্তানের কোচের পদ থেকে ইস্তফা দেন মিসবাহ। তারপর এই প্রথম মুখ খুললেন তিনি। এক চ্যানেলে বলেছেন, ‘আমাদের ক্রিকেটের সব থেকে বড় সমস্যা হল, এখানে শুধু ফলাফলের দিকে নজর দেয়া হয়। আগামীর জন্য পরিকল্পনা করা বা প্রক্রিয়ার উন্নতি করার মতো সময় দেয়া হয় না।’

মিসবাহর সংযোজন, ‘আমাদের এই সত্যিটা বুঝতে হবে যে ঘরোয়া স্তরে আগে ক্রিকেটারদের উন্নতি করতে হবে। তারপর জাতীয় দলে ওদের নিয়ে এসে দক্ষতার উন্নতির ওপর জোর দিতে হবে। কিন্তু আমরা শুধু ফল চাই। এই সংস্কৃতি পাকিস্তান ক্রিকেটে খুব স্বাভাবিক ব্যাপার হয়ে গিয়েছে। কোন ম্যাচ বা সিরিজ হারার পরেই আমরা দ্রুত কাউকে খুঁজে নিয়ে টার্গেট করে দিই।’

মিসবাহর মতে, রূপসজ্জায় বদল এনে কোনদিন উন্নতি হবে না। কোচ এবং ক্রিকেটারদের বদলানো যেতেই পারে, তবে তাতে সমস্যার সমাধান হবে না। সেটা থেকেই যাবে। এ প্রসঙ্গে পাকিস্তানের নির্বাচকদেরও একহাত নিয়েছেন তিনি। বলেছেন, ‘কী করছে ওরা? কখনও বিশ্বকাপের দলে নতুন ক্রিকেটারদের নেয়া হচ্ছে। যাদের বাদ দেয়া হয়েছে ১০ দিন বাদেই তাদের আবার দলে নেয়া হয়েছে। এটা কী চলছে?’