গম গবেষণার সাবেক মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা খুন

রাজধানীতে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে প্রকাশ্য রাস্তায় ছুরি মেরে গম গবেষণা ইনস্টিটিউটের সাবেক এক কর্মকর্তাকে খুন করা হয়েছে। ৭২ বছর বয়সী ওই কর্মকর্তার নাম আনোয়ার শহীদ। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার পর আদাবরের হলিল্যান্ড গলিতে অজ্ঞাতপরিচয় এক ব্যক্তি ওই বৃদ্ধকে ছুরি মারে। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক রাত সাড়ে ১১টার দিকে তাকে মৃত ঘোষণা এদিকে পুরান ঢাকার চকবাজারে ছুরিকাঘাতে শাকিল আহমেদ (২০) নামে এক যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাতে পুরাতন ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার এলাকা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পুলিশ বলছে, শাকিলের বুকে এবং কোমরে একাধিক ছুরিকাঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য শাকিলের লাশ ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) মর্গে পাঠানো হয়। এ ঘটনায় শাকিলের বন্ধু শিপনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

আদাবরের ঘটনায় জানা গেছে, গম গবেষণা ইনস্টিটিউটের মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা হিসেবে আনোয়ার শহীদ অবসরে গিয়েছিলেন। তার বাসা কল্যাণপুরে। কোন এক ব্যক্তির ফোন পেয়ে তিনি শ্যামলীর হানিফ কাউন্টারে যাওয়ার জন্য বাসা থেকে বেরিয়েছিলেন। আদাবর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সেলিম হোসেন বলেন, এটি পরিকল্পিত হত্যাকা- বলে ধারণা করছি। তাকে ডেকে এনে খুন করা হয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত কাউকে চিহ্নিত বা গ্রেপ্তার করা যায়নি। এ ঘটনায় পুলিশের একাধিক টিম কাজ করছে।

হলিল্যান্ড গলির একজন নিরাপত্তা কর্মী বলেন, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টা ১৩ মিনিট থেকে ৭টা ১৫ মিনিটের মধ্যে ওই হত্যাকা- ঘটে। চেঁচামেচি শুনে তারা এগিয়ে গিয়ে দেখেন রিকশাচালকরা ভিড় করে আছে। রক্তাক্ত লোকটি রাস্তায় পড়ে আছে। রাস্তার উপরই একটি ছুরি পড়ে ছিল। পরে ওই ভবনের সিসি ক্যামেরার ফুটেজে দেখেছি আমরা। এক লোক পকেটে হাত ঢুকিয়ে ৩/৪ মিনিট ধরে গলিতে ঘোরাঘুরি করছিল। শ্যামলী রিং রোডের দিক থেকে ওই বৃদ্ধ গলিতে ঢোকার পর লোকটি সামনে এসে দাঁড়ায়। মুহূর্তের মধ্যে লোকটি পকেট থেকে ছুরি বের করে বৃদ্ধের পেটে আঘাত করে পালিয়ে যায়।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, আনোয়ার শহীদ সর্বশেষ জয়দেবপুরে কর্মরত ছিলেন। তিনি দিনাজপুরের দশ মাইল এলাকায় গম গবেষণা ইনস্টিটিউটে প্রায় ১৫ বছর চাকরি করেন। শ্যামলীর হানিফ পরিবহনের বাস কাউন্টারের পাশেই হলিল্যান্ড গলি। এই গলিটি রিং রোডের সঙ্গে কল্যাণপুর সড়ককে যুক্ত করেছে।

নিহতের ভাগ্নি ময়না বেগম বলেন, পরিচিত একজনের ফোন পেয়ে মামা আনোয়ার শহীদ বাসা থেকে বের হন। ওই শ্যামলীর হানিফ পরিবহন বাসে তুলে দিয়ে বাসায় ফিরছিলেন। পথে হলিল্যান্ড গলিতে মামাকে অজ্ঞাত দুর্বৃত্ত ছুরিকাঘাত করে। সন্ধ্যা ৭টা ২৬ মিনিটে মামার নম্বর থেকে ফোন করে আমাদের বিষয়টি জানানো হয়। মামার কোন সন্তান ছিল না। তার স্ত্রীর সঙ্গে ছাড়াছাড়ি হয়েছে অনেক আগে। ১৪ বছর আগে কৃষিবিদ আনোয়ার শহীদ মামা মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা থেকে অবসর নেন। ডিএমপির তেজগাঁও বিভাগের ডিসি মো. শহিদুল্লাহ বলেন, পরিকল্পিতভাবে এই হত্যাকা- ঘটানো হয়েছে। নিজেদের পরিচিত লোকজন এ হত্যাকা-ে জড়িত থাকতে পারে। আমরা সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে এই ঘটনার রহস্য বের করতে কাজ করছি। হত্যাকা-ের সঙ্গে যারা জড়িত রয়েছে তাদের ধরতে পুলিশের একাধিক টিম কাজ করছে।

এদিকে পুরান ঢাকার চকবাজারে ছুরিকাঘাতে শাকিল আহমেদ (২০) নামে এক যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। চকবাজার থানার এসআই মো. মাসুদুর রহমান বলেন, পুরাতন কেন্দ্রীয় কারাগারের সামনের একটি পানির কারখানায় কাজ করতেন শাকিল। কারাগারের পাশে নির্মাণাধীন কারারক্ষী ব্যারাকের ভেতরে তার লাশ পাওয়া যায়। ধারণা করা হচ্ছে, রাতে কেউ তার বুকে ও কোমরে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে গেছে। তার শরীরে একাধিক ছুরিকাঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

তদন্ত সংশ্লিষ্টরা বলছেন, অন্য দিনের মতো বৃহস্পতিবার রাতে কারখানায় কাজ করছিল শাকিল। সিসিটিভি ফুটেজে দেখা গেছে, কারখানার মধ্যে ঢুকছেন শাকিল। কিছুক্ষণ পর একজনের সঙ্গে তিনি বের হয়ে যান। এরপর শাকিলের খোঁজ মেলে পুরাতন কেন্দ্রীয় কারাগারের পাশে নির্মাণাধীন কারারক্ষী ব্যারাকের ভেতর। মরদেহ দেখে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেন। তার বাবার নাম আমিনুল ইসলাম।

নিহতের মামা আয়নালের অভিযোগ, শাকিলের সহকর্মীরাই হয়তো শাকিলকে খুন করেছে। নিহতের গ্রামের বাড়ি রংপুরের মিঠাপুকুর থানার বজিতপুরে। প্রায় পাঁচবছর ধরে পানির ফ্যাক্টরিতে কাজ করতেন শাকিল। শাকিল দোকানে দোকানে পানি সরবরাহ করতেন এবং কারখানাতেই থাকতেন। কারখানার মালিক গোলাম রহমান রিপন জানান, নেশাগ্রস্ত ছিলেন শাকিল। আর নেশার কারণেই ভাইকে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন শাকিলের বোন।

ডিএমপির চকবাজার জোনের এডিসি মো. কুদরত-ই-খুদা বলেন, শাকিল ও শিপন দুই বন্ধু ছিলেন। তারা একই সঙ্গে পানির কারখানায় কাজ করতেন। তাদের মধ্যে প্রায়ই ছোটখাট বিভিন্ন বিষয়ে মনোমালিন্য ও কথাকাটি হতো। দুইজন একসঙ্গে নেশাও করতো। গত এক সপ্তাহ আগে শিপন একটি চাকু কিনে। বিভিন্ন ক্ষোভ থেকে বৃহস্পতিবার রাতে শাকিলকে ডেকে নিয়ে ছুরিকাঘাতে খুন করে শিপন। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে শিপন হত্যাকা-ে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে।

শনিবার, ১৩ নভেম্বর ২০২১ , ২৮ কার্তিক ১৪২৮ ৭ রবিউস সানি ১৪৪৩

গম গবেষণার সাবেক মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা খুন

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

রাজধানীতে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে প্রকাশ্য রাস্তায় ছুরি মেরে গম গবেষণা ইনস্টিটিউটের সাবেক এক কর্মকর্তাকে খুন করা হয়েছে। ৭২ বছর বয়সী ওই কর্মকর্তার নাম আনোয়ার শহীদ। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার পর আদাবরের হলিল্যান্ড গলিতে অজ্ঞাতপরিচয় এক ব্যক্তি ওই বৃদ্ধকে ছুরি মারে। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক রাত সাড়ে ১১টার দিকে তাকে মৃত ঘোষণা এদিকে পুরান ঢাকার চকবাজারে ছুরিকাঘাতে শাকিল আহমেদ (২০) নামে এক যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাতে পুরাতন ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার এলাকা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পুলিশ বলছে, শাকিলের বুকে এবং কোমরে একাধিক ছুরিকাঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য শাকিলের লাশ ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) মর্গে পাঠানো হয়। এ ঘটনায় শাকিলের বন্ধু শিপনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

আদাবরের ঘটনায় জানা গেছে, গম গবেষণা ইনস্টিটিউটের মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা হিসেবে আনোয়ার শহীদ অবসরে গিয়েছিলেন। তার বাসা কল্যাণপুরে। কোন এক ব্যক্তির ফোন পেয়ে তিনি শ্যামলীর হানিফ কাউন্টারে যাওয়ার জন্য বাসা থেকে বেরিয়েছিলেন। আদাবর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সেলিম হোসেন বলেন, এটি পরিকল্পিত হত্যাকা- বলে ধারণা করছি। তাকে ডেকে এনে খুন করা হয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত কাউকে চিহ্নিত বা গ্রেপ্তার করা যায়নি। এ ঘটনায় পুলিশের একাধিক টিম কাজ করছে।

হলিল্যান্ড গলির একজন নিরাপত্তা কর্মী বলেন, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টা ১৩ মিনিট থেকে ৭টা ১৫ মিনিটের মধ্যে ওই হত্যাকা- ঘটে। চেঁচামেচি শুনে তারা এগিয়ে গিয়ে দেখেন রিকশাচালকরা ভিড় করে আছে। রক্তাক্ত লোকটি রাস্তায় পড়ে আছে। রাস্তার উপরই একটি ছুরি পড়ে ছিল। পরে ওই ভবনের সিসি ক্যামেরার ফুটেজে দেখেছি আমরা। এক লোক পকেটে হাত ঢুকিয়ে ৩/৪ মিনিট ধরে গলিতে ঘোরাঘুরি করছিল। শ্যামলী রিং রোডের দিক থেকে ওই বৃদ্ধ গলিতে ঢোকার পর লোকটি সামনে এসে দাঁড়ায়। মুহূর্তের মধ্যে লোকটি পকেট থেকে ছুরি বের করে বৃদ্ধের পেটে আঘাত করে পালিয়ে যায়।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, আনোয়ার শহীদ সর্বশেষ জয়দেবপুরে কর্মরত ছিলেন। তিনি দিনাজপুরের দশ মাইল এলাকায় গম গবেষণা ইনস্টিটিউটে প্রায় ১৫ বছর চাকরি করেন। শ্যামলীর হানিফ পরিবহনের বাস কাউন্টারের পাশেই হলিল্যান্ড গলি। এই গলিটি রিং রোডের সঙ্গে কল্যাণপুর সড়ককে যুক্ত করেছে।

নিহতের ভাগ্নি ময়না বেগম বলেন, পরিচিত একজনের ফোন পেয়ে মামা আনোয়ার শহীদ বাসা থেকে বের হন। ওই শ্যামলীর হানিফ পরিবহন বাসে তুলে দিয়ে বাসায় ফিরছিলেন। পথে হলিল্যান্ড গলিতে মামাকে অজ্ঞাত দুর্বৃত্ত ছুরিকাঘাত করে। সন্ধ্যা ৭টা ২৬ মিনিটে মামার নম্বর থেকে ফোন করে আমাদের বিষয়টি জানানো হয়। মামার কোন সন্তান ছিল না। তার স্ত্রীর সঙ্গে ছাড়াছাড়ি হয়েছে অনেক আগে। ১৪ বছর আগে কৃষিবিদ আনোয়ার শহীদ মামা মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা থেকে অবসর নেন। ডিএমপির তেজগাঁও বিভাগের ডিসি মো. শহিদুল্লাহ বলেন, পরিকল্পিতভাবে এই হত্যাকা- ঘটানো হয়েছে। নিজেদের পরিচিত লোকজন এ হত্যাকা-ে জড়িত থাকতে পারে। আমরা সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে এই ঘটনার রহস্য বের করতে কাজ করছি। হত্যাকা-ের সঙ্গে যারা জড়িত রয়েছে তাদের ধরতে পুলিশের একাধিক টিম কাজ করছে।

এদিকে পুরান ঢাকার চকবাজারে ছুরিকাঘাতে শাকিল আহমেদ (২০) নামে এক যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। চকবাজার থানার এসআই মো. মাসুদুর রহমান বলেন, পুরাতন কেন্দ্রীয় কারাগারের সামনের একটি পানির কারখানায় কাজ করতেন শাকিল। কারাগারের পাশে নির্মাণাধীন কারারক্ষী ব্যারাকের ভেতরে তার লাশ পাওয়া যায়। ধারণা করা হচ্ছে, রাতে কেউ তার বুকে ও কোমরে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে গেছে। তার শরীরে একাধিক ছুরিকাঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

তদন্ত সংশ্লিষ্টরা বলছেন, অন্য দিনের মতো বৃহস্পতিবার রাতে কারখানায় কাজ করছিল শাকিল। সিসিটিভি ফুটেজে দেখা গেছে, কারখানার মধ্যে ঢুকছেন শাকিল। কিছুক্ষণ পর একজনের সঙ্গে তিনি বের হয়ে যান। এরপর শাকিলের খোঁজ মেলে পুরাতন কেন্দ্রীয় কারাগারের পাশে নির্মাণাধীন কারারক্ষী ব্যারাকের ভেতর। মরদেহ দেখে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেন। তার বাবার নাম আমিনুল ইসলাম।

নিহতের মামা আয়নালের অভিযোগ, শাকিলের সহকর্মীরাই হয়তো শাকিলকে খুন করেছে। নিহতের গ্রামের বাড়ি রংপুরের মিঠাপুকুর থানার বজিতপুরে। প্রায় পাঁচবছর ধরে পানির ফ্যাক্টরিতে কাজ করতেন শাকিল। শাকিল দোকানে দোকানে পানি সরবরাহ করতেন এবং কারখানাতেই থাকতেন। কারখানার মালিক গোলাম রহমান রিপন জানান, নেশাগ্রস্ত ছিলেন শাকিল। আর নেশার কারণেই ভাইকে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন শাকিলের বোন।

ডিএমপির চকবাজার জোনের এডিসি মো. কুদরত-ই-খুদা বলেন, শাকিল ও শিপন দুই বন্ধু ছিলেন। তারা একই সঙ্গে পানির কারখানায় কাজ করতেন। তাদের মধ্যে প্রায়ই ছোটখাট বিভিন্ন বিষয়ে মনোমালিন্য ও কথাকাটি হতো। দুইজন একসঙ্গে নেশাও করতো। গত এক সপ্তাহ আগে শিপন একটি চাকু কিনে। বিভিন্ন ক্ষোভ থেকে বৃহস্পতিবার রাতে শাকিলকে ডেকে নিয়ে ছুরিকাঘাতে খুন করে শিপন। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে শিপন হত্যাকা-ে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে।