সংসদ অধিবেশন শুরু

স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে একাদশ জাতীয় সংসদের পঞ্চদশ অধিবেশন গতকাল বিকাল চারটায় শুরু হয়। কোভিড-১৯ নেগেটিভ সনদ থাকা সংসদ সদস্যরাই অধিবেশনে যোগ দিতে পারবেন। প্রতিদিন ১০০-১২০ জন সংসদ সদস্যের উপস্থিতিতে বসবে সংসদের বৈঠক।

এই অধিবেশনের শেষের দিকে বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে বিশেষ আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে। স্পিকার জানিয়েছেন, আগামী ২৪ ও ২৫ নভেম্বর এ আলোচনা হতে পারে, যেখানে ভাষণ দেবেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। অধিবেশনের শুরুতে স্পিকার প্রথমে অধিবেশনে সভাপতিমন্ডলী মনোনয়ন করেন। এবার অধিবেশনে সভাপতিমন্ডলীর সদস্যরা হলেন শামসুল হক টুকু, এবি তাজুল ইসলাম, নজরুল ইসলাম বাবু, কাজী ফিরোজ রশীদ ও বাসন্তী চাকমা। স্পিকার

ডেপুটি স্পিকারের অনুপস্থিতিতে এদের মধ্যে অগ্রবর্তীজন অধিবেশনে সভাপতিত্ব করবে। পরে স্পিকার শোক প্রস্তাব উত্থাপন করেন। সাবেক সংসদ সদস্য মিজানুল হক, জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু, ফজলুল হক আসপিয়া, মকবুল হোসেন, আলী ওসমান খান, শেখ সাহিদুর রহমানের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করা হয়।

এছাড়া আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য ও সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি আবদুল বাসেত মজুমদার, স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শব্দ সৈনিক কুলসুম জাহান, সিলেট জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান লুৎফুর রহমান, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি সৈয়দ আবু নছর, পীরগঞ্জ আওয়ামী লীগের সভাপতি আজিজুর রহমান রাঙা, একুশে ও স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত অভিনেতা ইনামুল হক, অভিনেতা মাহমুদ সাজ্জাদ, শিশু সাহিত্যিক ও বর্ষীয়ান সাংবাদিক রফিকুল হক দাদুভাই, সাবেক মন্ত্রিপরিষদ সচিব কাজী সামসুল আলম, সংসদ সচিবালয়ের সাবেক যুগ্মসচিব আবদুস শহীদ, সহকারী সচিব আইউব আলী খানের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করা হয়।

এছাড়া সিয়েরা লিওনের রাজধানী ফ্রিটাউনে তেলবাহী ট্যাংকার ও লরির সংঘর্ষে বিস্ফোরণে হতাহত, বিভিন্ন দুর্ঘটনায় হতাহত এবং করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশ-বিদেশে যারা মারা গেছেন তাদের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করা হয়।

এদিকে মহামারিকালের অন্য অধিবেশনগুলোর মতো এবারও স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিত সংখ্যক সংসদ সদস্য অধিবেশনে অংশ নেবেন।

প্রতিদিন নির্দিষ্ট সংখ্যক আইনপ্রণেতা সংসদের বৈঠকে বসবেন। তবে দুইদিন ব্যাপী বিশেষ আলোচনায় দুই দিন কোভিড-১৯ পরীক্ষায় ‘নেগেটিভ’ সকল সংসদ সদস্য অংশ নেবেন।

সোমবার, ১৫ নভেম্বর ২০২১ , ৩০ কার্তিক ১৪২৮ ৯ রবিউস সানি ১৪৪৩

সংসদ অধিবেশন শুরু

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

image

স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে একাদশ জাতীয় সংসদের পঞ্চদশ অধিবেশন গতকাল বিকাল চারটায় শুরু হয়। কোভিড-১৯ নেগেটিভ সনদ থাকা সংসদ সদস্যরাই অধিবেশনে যোগ দিতে পারবেন। প্রতিদিন ১০০-১২০ জন সংসদ সদস্যের উপস্থিতিতে বসবে সংসদের বৈঠক।

এই অধিবেশনের শেষের দিকে বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে বিশেষ আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে। স্পিকার জানিয়েছেন, আগামী ২৪ ও ২৫ নভেম্বর এ আলোচনা হতে পারে, যেখানে ভাষণ দেবেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। অধিবেশনের শুরুতে স্পিকার প্রথমে অধিবেশনে সভাপতিমন্ডলী মনোনয়ন করেন। এবার অধিবেশনে সভাপতিমন্ডলীর সদস্যরা হলেন শামসুল হক টুকু, এবি তাজুল ইসলাম, নজরুল ইসলাম বাবু, কাজী ফিরোজ রশীদ ও বাসন্তী চাকমা। স্পিকার

ডেপুটি স্পিকারের অনুপস্থিতিতে এদের মধ্যে অগ্রবর্তীজন অধিবেশনে সভাপতিত্ব করবে। পরে স্পিকার শোক প্রস্তাব উত্থাপন করেন। সাবেক সংসদ সদস্য মিজানুল হক, জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু, ফজলুল হক আসপিয়া, মকবুল হোসেন, আলী ওসমান খান, শেখ সাহিদুর রহমানের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করা হয়।

এছাড়া আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য ও সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি আবদুল বাসেত মজুমদার, স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শব্দ সৈনিক কুলসুম জাহান, সিলেট জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান লুৎফুর রহমান, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি সৈয়দ আবু নছর, পীরগঞ্জ আওয়ামী লীগের সভাপতি আজিজুর রহমান রাঙা, একুশে ও স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত অভিনেতা ইনামুল হক, অভিনেতা মাহমুদ সাজ্জাদ, শিশু সাহিত্যিক ও বর্ষীয়ান সাংবাদিক রফিকুল হক দাদুভাই, সাবেক মন্ত্রিপরিষদ সচিব কাজী সামসুল আলম, সংসদ সচিবালয়ের সাবেক যুগ্মসচিব আবদুস শহীদ, সহকারী সচিব আইউব আলী খানের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করা হয়।

এছাড়া সিয়েরা লিওনের রাজধানী ফ্রিটাউনে তেলবাহী ট্যাংকার ও লরির সংঘর্ষে বিস্ফোরণে হতাহত, বিভিন্ন দুর্ঘটনায় হতাহত এবং করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশ-বিদেশে যারা মারা গেছেন তাদের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করা হয়।

এদিকে মহামারিকালের অন্য অধিবেশনগুলোর মতো এবারও স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিত সংখ্যক সংসদ সদস্য অধিবেশনে অংশ নেবেন।

প্রতিদিন নির্দিষ্ট সংখ্যক আইনপ্রণেতা সংসদের বৈঠকে বসবেন। তবে দুইদিন ব্যাপী বিশেষ আলোচনায় দুই দিন কোভিড-১৯ পরীক্ষায় ‘নেগেটিভ’ সকল সংসদ সদস্য অংশ নেবেন।