সরাইলে মামা হত ভাগ্নে আটক

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে ভাগিনার হাতে খুন হয়েছেন মামা। উপজেলার সদর ইউনিয়নের সৈয়দটুলা গ্রামের দক্ষিণ পাড়ার প্রয়াত নূরুল ইসলামের ছেলে আলমগীর মিয়া তার আপন মামা একই পাড়ার প্রয়াত আ. সালাম মিয়ার ছেলে মাহমুদ মিয়াকে ছুরিকাঘাতে খুন করেন। এ ব্যাপারে সরাইল থানায় একটি হত্যা মামলা হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে চুরিসহ আলমগীরকে আটক করে পুলিশ। জানা যায়, প্রয়াত নূরুল ইসলামের ছেলে আলমগীর ও আনোয়ার-এরমধ্যে মঙ্গলবার দিবাগত রাতে পারিবারিক কলহের সৃষ্টি হয়। খবর পেয়ে তাদের মামা মাহমুদ মিয়া বোনের বাড়িতে যান। বিতন্ডার এক পর্যায়ে উত্তেজিত হয়ে ভাগিনা আলমগীর ছুরি হাতে নিয়ে মামা মাহমুদ মিয়ার পেটে উপর্যুপরি আঘাত করে।

এ গুরুতর আহত মাহমুদ মিয়াকে উদ্ধার করে দ্রুত সরাইল হাসপাতেলে নিয়ে গেলে অবস্থার অবনতি হলে জেলা সদর হাসপাতাল থেকে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা করা হয়। রাত সাড়ে ১২টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

শুক্রবার, ১৯ নভেম্বর ২০২১ , ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ ১৩ রবিউস সানি ১৪৪৩

সরাইলে মামা হত ভাগ্নে আটক

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে ভাগিনার হাতে খুন হয়েছেন মামা। উপজেলার সদর ইউনিয়নের সৈয়দটুলা গ্রামের দক্ষিণ পাড়ার প্রয়াত নূরুল ইসলামের ছেলে আলমগীর মিয়া তার আপন মামা একই পাড়ার প্রয়াত আ. সালাম মিয়ার ছেলে মাহমুদ মিয়াকে ছুরিকাঘাতে খুন করেন। এ ব্যাপারে সরাইল থানায় একটি হত্যা মামলা হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে চুরিসহ আলমগীরকে আটক করে পুলিশ। জানা যায়, প্রয়াত নূরুল ইসলামের ছেলে আলমগীর ও আনোয়ার-এরমধ্যে মঙ্গলবার দিবাগত রাতে পারিবারিক কলহের সৃষ্টি হয়। খবর পেয়ে তাদের মামা মাহমুদ মিয়া বোনের বাড়িতে যান। বিতন্ডার এক পর্যায়ে উত্তেজিত হয়ে ভাগিনা আলমগীর ছুরি হাতে নিয়ে মামা মাহমুদ মিয়ার পেটে উপর্যুপরি আঘাত করে।

এ গুরুতর আহত মাহমুদ মিয়াকে উদ্ধার করে দ্রুত সরাইল হাসপাতেলে নিয়ে গেলে অবস্থার অবনতি হলে জেলা সদর হাসপাতাল থেকে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা করা হয়। রাত সাড়ে ১২টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।