সঠিক সময়ে রোগ নির্ণয়ে স্তন ক্যান্সার নির্মূল সম্ভব

সঠিক সময়ে রোগ নির্ণয় করা গেলে স্তন ক্যান্সার নির্মূল করা সম্ভব। তাই স্তন ক্যান্সার প্রতিরোধে জন সচেতনতার কোন বিকল্প নেই বলে মন্তব্য করেছেন ইমপেরিয়াল হাসপাতালের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. রবিউল হোসেন। গতকাল সকাল ১০টায় হাসপাতালের সম্মেলন কক্ষে ইনার হুইল ক্লাবের সদস্যবৃন্দের অংশগ্রহনে স্তন ক্যান্সার সচেতনতায় আয়োজিত সেমিনারে তিনি উপরোক্ত মন্তব্য করেন। স্বাগত বক্তব্যে অধ্যাপক ডা. রবিউল হোসেন বলেন, বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মতো বাংলাদেশেও স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে। কিন্তু দেশে প্রাথমিক পর্যায়ে রোগ শনাক্ত হওয়ার সংখ্যা কম। বেশীরভাগ রোগীরই দ্বিতীয় ও তৃতীয় পর্যায়ে রোগ শনাক্ত হয়ে থাকে। অথচ সঠিক সময়ে রোগ নির্ণয় করা গেলে স্তন ক্যান্সার নির্মূল করা সম্ভব। একই সাথে এটি প্রতিরোধে জন সচেতনতার কোন বিকল্প নেই। তিনি বলেন, সচেতন হলে প্রাথমিক পর্যায়ে স্তন ক্যান্সার শনাক্ত করা সম্ভব ও চিকিৎসায় সফলতাও বেশী। ইমপেরিয়াল হাসপাতালের চেয়ারম্যান বলেন, ব্যতিক্রমী প্রতিষ্ঠান ইমপেরিয়াল হাসপাতালের উদ্দেশ্য হল চিকিৎসার জন্য বিদেশমূখীতা  কমিয়ে আনা। চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী ও আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত চক্ষু হাসপাতাল (সিইআইটিসি) প্রতিষ্ঠার অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে বিশ্বমানের এই ইমপেরিয়াল হাসপাতাল প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। বিশ্ব ব্যাংক এর ঋণ নিয়ে এর যাত্রা শুরু হয়। আপনাদের সহযোগিতা পেলেই এই হাসপাতাল প্রতিষ্ঠার উদ্দেশ্য সফল হবে।  সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ডা. দিল আনজিজ। বিশেষ অতিথি ছিলেন, ক্যান্সার এর সাথে যুদ্ধে বিজয়ী সানসাইন গ্রামার স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা সাফিয়া গাজী রহমান। বক্তব্য রাখেন, হাসপাতালের সিএমও অধ্যাপক ডা তারেক আল নাসির, ইনার হুইল ক্লাবের ডিসট্রিক  চেয়ারম্যান এঞ্জেলা বৈশাখী মেন্ডিস, ইনার হুইল ক্লাব চট্টগ্রামের সভাপতি ডা. কামরুন নাহার দস্তগীর, বিশেষজ্ঞ প্যানেলে ছিলেন, হাসপাতালের প্রসূতি ও স্ত্রী রোগ বিশেষজ্ঞ ডা. শিরিন ফাতেমা, চমেক এর সার্জিক্যাল অনকোলজী বিশেষজ্ঞ ডা. আবু খালেদ মুহম্মদ ইকবাল, অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন ইনার হুইল ক্লাব চট্টগ্রামের সেক্রেটারি জারিন নিজাম শেখ। 

রবিবার, ২১ নভেম্বর ২০২১ , ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ ১৫ রবিউস সানি ১৪৪৩

চট্টগ্রামে সচেতনতা বিষয়ক সেমিনারে বক্তারা

সঠিক সময়ে রোগ নির্ণয়ে স্তন ক্যান্সার নির্মূল সম্ভব

সঠিক সময়ে রোগ নির্ণয় করা গেলে স্তন ক্যান্সার নির্মূল করা সম্ভব। তাই স্তন ক্যান্সার প্রতিরোধে জন সচেতনতার কোন বিকল্প নেই বলে মন্তব্য করেছেন ইমপেরিয়াল হাসপাতালের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. রবিউল হোসেন। গতকাল সকাল ১০টায় হাসপাতালের সম্মেলন কক্ষে ইনার হুইল ক্লাবের সদস্যবৃন্দের অংশগ্রহনে স্তন ক্যান্সার সচেতনতায় আয়োজিত সেমিনারে তিনি উপরোক্ত মন্তব্য করেন। স্বাগত বক্তব্যে অধ্যাপক ডা. রবিউল হোসেন বলেন, বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মতো বাংলাদেশেও স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে। কিন্তু দেশে প্রাথমিক পর্যায়ে রোগ শনাক্ত হওয়ার সংখ্যা কম। বেশীরভাগ রোগীরই দ্বিতীয় ও তৃতীয় পর্যায়ে রোগ শনাক্ত হয়ে থাকে। অথচ সঠিক সময়ে রোগ নির্ণয় করা গেলে স্তন ক্যান্সার নির্মূল করা সম্ভব। একই সাথে এটি প্রতিরোধে জন সচেতনতার কোন বিকল্প নেই। তিনি বলেন, সচেতন হলে প্রাথমিক পর্যায়ে স্তন ক্যান্সার শনাক্ত করা সম্ভব ও চিকিৎসায় সফলতাও বেশী। ইমপেরিয়াল হাসপাতালের চেয়ারম্যান বলেন, ব্যতিক্রমী প্রতিষ্ঠান ইমপেরিয়াল হাসপাতালের উদ্দেশ্য হল চিকিৎসার জন্য বিদেশমূখীতা  কমিয়ে আনা। চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী ও আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত চক্ষু হাসপাতাল (সিইআইটিসি) প্রতিষ্ঠার অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে বিশ্বমানের এই ইমপেরিয়াল হাসপাতাল প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। বিশ্ব ব্যাংক এর ঋণ নিয়ে এর যাত্রা শুরু হয়। আপনাদের সহযোগিতা পেলেই এই হাসপাতাল প্রতিষ্ঠার উদ্দেশ্য সফল হবে।  সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ডা. দিল আনজিজ। বিশেষ অতিথি ছিলেন, ক্যান্সার এর সাথে যুদ্ধে বিজয়ী সানসাইন গ্রামার স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা সাফিয়া গাজী রহমান। বক্তব্য রাখেন, হাসপাতালের সিএমও অধ্যাপক ডা তারেক আল নাসির, ইনার হুইল ক্লাবের ডিসট্রিক  চেয়ারম্যান এঞ্জেলা বৈশাখী মেন্ডিস, ইনার হুইল ক্লাব চট্টগ্রামের সভাপতি ডা. কামরুন নাহার দস্তগীর, বিশেষজ্ঞ প্যানেলে ছিলেন, হাসপাতালের প্রসূতি ও স্ত্রী রোগ বিশেষজ্ঞ ডা. শিরিন ফাতেমা, চমেক এর সার্জিক্যাল অনকোলজী বিশেষজ্ঞ ডা. আবু খালেদ মুহম্মদ ইকবাল, অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন ইনার হুইল ক্লাব চট্টগ্রামের সেক্রেটারি জারিন নিজাম শেখ।