সূচক কমলেও লেনদেন বেড়েছে শেয়ারবাজারে

আগের কার্যদিবস উত্থান হলেও সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস গতকাল পতনে শেষ হয়েছে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) লেনদেন। তবে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচকের উত্থান হয়েছে। এদিন উভয় শেয়ারবাজারের কমেছে বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর। তবে টাকার পরিমাণে লেনদেন আগের কার্যদিবস থেকে বেড়েছে। গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৬.১৪ পয়েন্ট বা ০.০৮ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে সাত হাজার ৮৫.৬৭ পয়েন্টে। ডিএসইর অপর সূচকগুলোর মধ্যে শরিয়াহ সূচক ৫.০৫ বা ০.৩৪ শতাংশ এবং ডিএসই-৩০ সূচক ১১.১০ পয়েন্ট বা ০.৪১ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে এক হাজার ৪৭৫.২৭ পয়েন্টে এবং দুই হাজার ৬৮৩.৮৪ পয়েন্টে। ডিএসইতে গতকাল এক হাজার ৭৮৫ কোটি ৮২ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে। যা আগের কার্যদিবস থেকে ৩২৪ কোটি ৭৯ লাখ টাকা বেশি। আগের কার্যদিবস লেনদেন হয়েছিল এক হাজার ৪৬১ কোটি ৩ লাখ টাকার। ডিএসইতে গতকাল ৩৫৯টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ১১৪টির বা ৩৭.৭৫ শতাংশের, শেয়ার দর কমেছে ২৩০টির বা ৬৪.০৭ শতাংশের এবং ১৫টির বা ৪.১৮ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর অপরিবর্তিত রয়েছে। অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ১৯.৭৭ পয়েন্ট বা ০.০৯ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২০ হাজার ৭৪২.৮৯ পয়েন্টে। সিএসইতে গতকাল ২৭৮টি প্রতিষ্ঠান লেনদেনে অংশ নিয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ৯৩টির দর বেড়েছে, কমেছে ১৭৩টির আর ১২টির দর অপরিবর্তিত রয়েছে। সিএসইতে ৭১ কোটি ৪৫ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। গতকাল ডিএসই’র ব্লক মার্কেটে ৩৯টি কোম্পানি লেনদেনে অংশ নিয়েছে। এসব কোম্পানির ৩২ কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিগুলোর ৫৬ লাখ ৭০ হাজার ৮৫টি শেয়ার ৭৮ বার হাত বদলের মাধ্যমে ৩২ কোটি ৫৭ লাখ ৫২ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি অর্থাৎ ৮ কোটি ৮৮ লাখ ৭৫ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে বেক্সিমকো ফার্মার। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩ কোটি ৭২ লাখ ৩০ হাজার টাকার হামিদ ফেব্রিক্সের এবং তৃতীয় সর্বোচ্চ ৩ কোটি ৬৩ লাখ ৫৫ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে ওরিয়ন ফার্মার। গতকাল ডিএসইতে লেনদেন হওয়া কোম্পানিগুলোর মধ্যে ২৩০টির বা ৬৪.০৭ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর কমেছে। কোম্পানিগুলোর মধ্যে এসিআইয়ের শেয়ারের প্রতি বিনিয়োগকারীদের অনাগ্রহ ছিল সবচেয়ে বেশি। আগের কার্যদিবস এসিআইয়ের শেয়ারের ক্লোজিং দর ছিল ৩৩৫.৮০ টাকায়। গতকাল লেনদেন শেষে কোম্পানিটির শেয়ারের ক্লোজিং দর দাঁড়িয়েছে ২৯৭.৪০ টাকায়। অর্থাৎ কোম্পানিটির শেয়ার দর ৩৮.৪০ টাকা বা ১১.৪৩ শতাংশ কমেছে। এর মাধ্যমে এসিআই ডিএসইর টপটেন লুজার তালিকার শীর্ষে উঠে এসেছে। এদিন ডিএসইতে টপটেন লুজার তালিকায় উঠে আসা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে আরামিট সিমেন্টের ৯.৯৫ শতাংশ, মনোস্পুল পেপারের ৯.৬২ শতাংশ, মিথুন নিটিংয়ের ৯.৩৭ শতাংশ, আর্গন ডেনিমসের ৯.২৬ শতাংশ, পেপার প্রসেসিংয়ের ৮.৫০ শতাংশ, আলিফ ম্যানুফ্যাকচারিংয়ের ৮.০২ শতাংশ, জিলবাংলা সুগারের ৭.৯৫ শতাংশ, সাফকো স্পিনিংয়ের ৭.৬৬ শতাংশ এবং গোল্ডেন সনের শেয়ার দর ৭.৬২ শতাংশ কমেছে।

গতকাল ডিএসইতে লেনদেন হওয়া কোম্পানিগুলোর মধ্যে ১১৪টির বা ৩৭.৭৫ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে। কোম্পানিগুলোর মধ্যে একমি পেস্টিসাইডসের শেয়ারের প্রতি বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ ছিল সবচেয়ে বেশি। আগের কার্যদিবস একমি পেস্টিসাইডসের শেয়ারের ক্লোজিং দর ছিল ১৬ টাকায়।

গতকাল লেনদেন শেষে কোম্পানিটির শেয়ারের ক্লে¬াজিং দর দাঁড়িয়েছে ১৭.৬০ টাকায়। অর্থাৎ কোম্পানিটির শেয়ার দর ১.৬০ টাকা বা ১০ শতাংশ বেড়েছে। এর মাধ্যমে একমি পেস্টিসাইডস ডিএসইর টপটেন গেইনার তালিকার শীর্ষে উঠে এসেছে। এদিন ডিএসইতে টপটেন গেইনার তালিকায় উঠে আসা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে সেনা কল্যাণ ইন্স্যুরেন্সের ৯.৭৬ শতাংশ, ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের ৯.৬২ শতাংশ, স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকের ৯.৬১ শতাংশ, ওয়ান ব্যাংকের ৯.৫২ শতাংশ, স্যোসাল ইসলামী ব্যাংকের ৯.৪৫ শতাংশ, মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের ৭.৫৭ শতাংশ, প্রিমিয়ার ব্যাংকের ৭.৩৬ শতাংশ, এক্সিম ব্যাংকের ৬.৭৬ শতাংশ এবং আইএলএফএসএলের শেয়ার দর ৫.৯৭ শতাংশ বেড়েছে।

সোমবার, ২২ নভেম্বর ২০২১ , ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ ১৬ রবিউস সানি ১৪৪৩

সূচক কমলেও লেনদেন বেড়েছে শেয়ারবাজারে

আগের কার্যদিবস উত্থান হলেও সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস গতকাল পতনে শেষ হয়েছে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) লেনদেন। তবে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচকের উত্থান হয়েছে। এদিন উভয় শেয়ারবাজারের কমেছে বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর। তবে টাকার পরিমাণে লেনদেন আগের কার্যদিবস থেকে বেড়েছে। গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৬.১৪ পয়েন্ট বা ০.০৮ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে সাত হাজার ৮৫.৬৭ পয়েন্টে। ডিএসইর অপর সূচকগুলোর মধ্যে শরিয়াহ সূচক ৫.০৫ বা ০.৩৪ শতাংশ এবং ডিএসই-৩০ সূচক ১১.১০ পয়েন্ট বা ০.৪১ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে এক হাজার ৪৭৫.২৭ পয়েন্টে এবং দুই হাজার ৬৮৩.৮৪ পয়েন্টে। ডিএসইতে গতকাল এক হাজার ৭৮৫ কোটি ৮২ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে। যা আগের কার্যদিবস থেকে ৩২৪ কোটি ৭৯ লাখ টাকা বেশি। আগের কার্যদিবস লেনদেন হয়েছিল এক হাজার ৪৬১ কোটি ৩ লাখ টাকার। ডিএসইতে গতকাল ৩৫৯টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ১১৪টির বা ৩৭.৭৫ শতাংশের, শেয়ার দর কমেছে ২৩০টির বা ৬৪.০৭ শতাংশের এবং ১৫টির বা ৪.১৮ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর অপরিবর্তিত রয়েছে। অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ১৯.৭৭ পয়েন্ট বা ০.০৯ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২০ হাজার ৭৪২.৮৯ পয়েন্টে। সিএসইতে গতকাল ২৭৮টি প্রতিষ্ঠান লেনদেনে অংশ নিয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ৯৩টির দর বেড়েছে, কমেছে ১৭৩টির আর ১২টির দর অপরিবর্তিত রয়েছে। সিএসইতে ৭১ কোটি ৪৫ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। গতকাল ডিএসই’র ব্লক মার্কেটে ৩৯টি কোম্পানি লেনদেনে অংশ নিয়েছে। এসব কোম্পানির ৩২ কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিগুলোর ৫৬ লাখ ৭০ হাজার ৮৫টি শেয়ার ৭৮ বার হাত বদলের মাধ্যমে ৩২ কোটি ৫৭ লাখ ৫২ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি অর্থাৎ ৮ কোটি ৮৮ লাখ ৭৫ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে বেক্সিমকো ফার্মার। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩ কোটি ৭২ লাখ ৩০ হাজার টাকার হামিদ ফেব্রিক্সের এবং তৃতীয় সর্বোচ্চ ৩ কোটি ৬৩ লাখ ৫৫ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে ওরিয়ন ফার্মার। গতকাল ডিএসইতে লেনদেন হওয়া কোম্পানিগুলোর মধ্যে ২৩০টির বা ৬৪.০৭ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর কমেছে। কোম্পানিগুলোর মধ্যে এসিআইয়ের শেয়ারের প্রতি বিনিয়োগকারীদের অনাগ্রহ ছিল সবচেয়ে বেশি। আগের কার্যদিবস এসিআইয়ের শেয়ারের ক্লোজিং দর ছিল ৩৩৫.৮০ টাকায়। গতকাল লেনদেন শেষে কোম্পানিটির শেয়ারের ক্লোজিং দর দাঁড়িয়েছে ২৯৭.৪০ টাকায়। অর্থাৎ কোম্পানিটির শেয়ার দর ৩৮.৪০ টাকা বা ১১.৪৩ শতাংশ কমেছে। এর মাধ্যমে এসিআই ডিএসইর টপটেন লুজার তালিকার শীর্ষে উঠে এসেছে। এদিন ডিএসইতে টপটেন লুজার তালিকায় উঠে আসা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে আরামিট সিমেন্টের ৯.৯৫ শতাংশ, মনোস্পুল পেপারের ৯.৬২ শতাংশ, মিথুন নিটিংয়ের ৯.৩৭ শতাংশ, আর্গন ডেনিমসের ৯.২৬ শতাংশ, পেপার প্রসেসিংয়ের ৮.৫০ শতাংশ, আলিফ ম্যানুফ্যাকচারিংয়ের ৮.০২ শতাংশ, জিলবাংলা সুগারের ৭.৯৫ শতাংশ, সাফকো স্পিনিংয়ের ৭.৬৬ শতাংশ এবং গোল্ডেন সনের শেয়ার দর ৭.৬২ শতাংশ কমেছে।

গতকাল ডিএসইতে লেনদেন হওয়া কোম্পানিগুলোর মধ্যে ১১৪টির বা ৩৭.৭৫ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে। কোম্পানিগুলোর মধ্যে একমি পেস্টিসাইডসের শেয়ারের প্রতি বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ ছিল সবচেয়ে বেশি। আগের কার্যদিবস একমি পেস্টিসাইডসের শেয়ারের ক্লোজিং দর ছিল ১৬ টাকায়।

গতকাল লেনদেন শেষে কোম্পানিটির শেয়ারের ক্লে¬াজিং দর দাঁড়িয়েছে ১৭.৬০ টাকায়। অর্থাৎ কোম্পানিটির শেয়ার দর ১.৬০ টাকা বা ১০ শতাংশ বেড়েছে। এর মাধ্যমে একমি পেস্টিসাইডস ডিএসইর টপটেন গেইনার তালিকার শীর্ষে উঠে এসেছে। এদিন ডিএসইতে টপটেন গেইনার তালিকায় উঠে আসা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে সেনা কল্যাণ ইন্স্যুরেন্সের ৯.৭৬ শতাংশ, ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের ৯.৬২ শতাংশ, স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকের ৯.৬১ শতাংশ, ওয়ান ব্যাংকের ৯.৫২ শতাংশ, স্যোসাল ইসলামী ব্যাংকের ৯.৪৫ শতাংশ, মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের ৭.৫৭ শতাংশ, প্রিমিয়ার ব্যাংকের ৭.৩৬ শতাংশ, এক্সিম ব্যাংকের ৬.৭৬ শতাংশ এবং আইএলএফএসএলের শেয়ার দর ৫.৯৭ শতাংশ বেড়েছে।