টাইগাররা না পারলেও পাকিস্তানকে হারালো টাইগ্রেসরা

পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম দুই টি-২০ হেরে বাংলাদেশের ছেলেরা সিরিজ হারলেও সফল হয়েছেন বাংলাদেশের মেয়েরা। ধারাবাহিকভাবে ভালো পারফর্ম্যান্স করেই যাচ্ছে বাংলাদেশের মেয়েরা। বিশ্বকাপের বাছাই পর্বের ম্যাচে পাকিস্তানের মেয়েদের ৩ উইকেটে হারিয়েছেন নিগার সুলতানারা।

হারারেতে অনুষ্ঠিত ম্যাচটিতে টসজিতে আগে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ। আগে ব্যাট করতে নামা পাকিস্তান শুরুতেই পড়ে বিপাকে। দলীয় ১৪ রানে ২৪ বলে ৬ রান করা আয়েশা জাফরকে রান আউট করেন ফাহিমা খাতুন।

তাদের দলীয় রান ৫০ হওয়ার আগেই ৫ উইকেট তুলে নেয় বাংলাদেশের মেয়েরা। এরপরই হাল ধরেন নিদা ধার ও আলিয়া রিয়াজ। দুজন মিলে গড়েন ১৩৭ রানের জুটি। ৮ চার ও ২ ছক্কায় ১১১ বলে ৮৭ রান করা নিদা ধারকে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে ফেলেন সালমা খাতুন।

তবে শেষ পর্যন্ত অপরাজিত ছিলেন আলিয়া রাজ। ৮২ বলে ৬১ রান করেন তিনি। নির্ধারিত ৫০ ওভার ব্যাট করে ৭ উইকেট হারিয়ে ২০১ রান করে পাকিস্তান। বাংলাদেশের পক্ষে দুইটি করে উইকেট নেন নাহিদা আক্তার ও ঋতু মণি। রুমানা আহমেদ ও সালমা খাতুন নেন একটি করে উইকেট।

জবাব দিতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি বাংলাদেশেরও। দলীয় ১০ রানে ১৯ বলে ৯ রান করে আউট হন ওপেনার মুর্শিদা খাতুন। আরেক ওপেনার শামিমা আক্তার ৬৭ বলে করেন ৩১ রান। ৯০ বলে ৪৫ রান আসে ফারজানা হকের ব্যাট থেকেও।

তবে বাংলাদেশের জয়ের জন্য দুটি গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেলেন রুমানা আহমেদ ও ঋতু মণি। ৭ চারে ৩৭ বলে ৩৩ রান করে ঋতু মণি আউট হলেও শেষ পর্যন্ত অপরাজিত থাকেন রুমানা। ৬ চারে ৪৪ বলে ৫০ রান আসে তার ব্যাট থেকে। শেষ দিকে ১৩ বলে ১৮ রান করেন সালমা খাতুন। ২ বল হাতে রেখে ৩ উইকেটের জয় পায় বাংলাদেশ।

সোমবার, ২২ নভেম্বর ২০২১ , ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ ১৬ রবিউস সানি ১৪৪৩

টাইগাররা না পারলেও পাকিস্তানকে হারালো টাইগ্রেসরা

image

জয়ের পর নারী দলের উল্লাস ...

পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম দুই টি-২০ হেরে বাংলাদেশের ছেলেরা সিরিজ হারলেও সফল হয়েছেন বাংলাদেশের মেয়েরা। ধারাবাহিকভাবে ভালো পারফর্ম্যান্স করেই যাচ্ছে বাংলাদেশের মেয়েরা। বিশ্বকাপের বাছাই পর্বের ম্যাচে পাকিস্তানের মেয়েদের ৩ উইকেটে হারিয়েছেন নিগার সুলতানারা।

হারারেতে অনুষ্ঠিত ম্যাচটিতে টসজিতে আগে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ। আগে ব্যাট করতে নামা পাকিস্তান শুরুতেই পড়ে বিপাকে। দলীয় ১৪ রানে ২৪ বলে ৬ রান করা আয়েশা জাফরকে রান আউট করেন ফাহিমা খাতুন।

তাদের দলীয় রান ৫০ হওয়ার আগেই ৫ উইকেট তুলে নেয় বাংলাদেশের মেয়েরা। এরপরই হাল ধরেন নিদা ধার ও আলিয়া রিয়াজ। দুজন মিলে গড়েন ১৩৭ রানের জুটি। ৮ চার ও ২ ছক্কায় ১১১ বলে ৮৭ রান করা নিদা ধারকে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে ফেলেন সালমা খাতুন।

তবে শেষ পর্যন্ত অপরাজিত ছিলেন আলিয়া রাজ। ৮২ বলে ৬১ রান করেন তিনি। নির্ধারিত ৫০ ওভার ব্যাট করে ৭ উইকেট হারিয়ে ২০১ রান করে পাকিস্তান। বাংলাদেশের পক্ষে দুইটি করে উইকেট নেন নাহিদা আক্তার ও ঋতু মণি। রুমানা আহমেদ ও সালমা খাতুন নেন একটি করে উইকেট।

জবাব দিতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি বাংলাদেশেরও। দলীয় ১০ রানে ১৯ বলে ৯ রান করে আউট হন ওপেনার মুর্শিদা খাতুন। আরেক ওপেনার শামিমা আক্তার ৬৭ বলে করেন ৩১ রান। ৯০ বলে ৪৫ রান আসে ফারজানা হকের ব্যাট থেকেও।

তবে বাংলাদেশের জয়ের জন্য দুটি গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেলেন রুমানা আহমেদ ও ঋতু মণি। ৭ চারে ৩৭ বলে ৩৩ রান করে ঋতু মণি আউট হলেও শেষ পর্যন্ত অপরাজিত থাকেন রুমানা। ৬ চারে ৪৪ বলে ৫০ রান আসে তার ব্যাট থেকে। শেষ দিকে ১৩ বলে ১৮ রান করেন সালমা খাতুন। ২ বল হাতে রেখে ৩ উইকেটের জয় পায় বাংলাদেশ।