লীগে প্রথম গোলের দেখা পেলেন মেসি

লিওনেল মেসি ফরাসি লীগ-১ এ প্যারিস সেন্ট জার্মেইর হয়ে প্রথম গোলের দেখা পেয়েছেন এবং তারা শনিবার ৩-১ গোলে নঁতসকে পরাজিত করে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে নিজেদের অবস্থান সুসংহত করেছে। এ জয়ের ফলে দ্বিতীয় স্থানে থাকা দলের সঙ্গে তাদের পয়েন্টের ব্যবধান বেড়ে ১৩ হয়েছে। মেসি খেলা শেষ হওয়ার তিন মিনিট বাকি থাকতে ২০ মিটার দূর থেকে নেয়া বাঁকানো এক কিকে গোলটি করেন।

পিএসজি ম্যাচটি শেষ করেন দশজন নিয়ে। দ্বিতীয়ার্ধের মাঝামাঝি সময়ে তাদের গোলরক্ষক কেইলর নাভাস পেনাল্টি বক্সের বাইরে গিয়ে লুডোভিচ ব্লাসকে ফাউল করলে রেফারি সরাসরি লাল কার্ড দেখান তাকে। এর ফলে দশজন নিয়ে বাকি সময় খেলতে হয় তাদের। এ সুযোগে নঁতস একটি গোল পরিশোধও করে। কিন্তু ডেনিস আপিয়ার আত্মঘাতি গোল নঁতসের সব আশা শেষ করে দেয়। তার আগে খেলার দুই মিনিটের মাথায়ই গোল করে পিএসজিকে এগিয়ে দিয়েছিলেন কাইলিয়ান এমবাপ্পে।

নঁতসের হয়ে গোলটি করেছিলেন র‌্যান্ডাল কোলো মুয়ানি। তিনি গোলমুখে বল পেয়ে ব্যাক হিল করে গোলটি করেছিলেন। লীগে পিএসজির এটা ছিল ১৪তম ম্যাচে ১২তম জয়। এ ম্যাচে শেষ পর্যন্ত তিন গোল খেলেও নঁতসের গোলরক্ষক অ্যালবন লাফন্ট দারুন খেলেছেন। তিনি মেসি এবং নেইমারকে বেশ কয়েকবার গোল বঞ্চিত করেন।

নাভাস লাল কার্ড দেখার পর নেইমারকে তুলে নিয়ে গোলরক্ষক সার্জিও রিকোকে মাঠে নামান পিএসজির কোচ পচেত্তিনো। রিকোও বেশ ভালো খেলেছেন। তিনিও দলকে বেশ কয়েকবার গোল খাওয়া থেকে বাঁচিয়েছেন। মেসির একটি পাস প্রতিহত করতে গিয়ে আপিয়াহ বল নিজেদের জালে পাঠালে পরিস্থিতি বদলে যায়। মেসি লীগে ছয় ম্যাচ খেলে এই প্রথম গোলের দেখা পেলেন। এর আগে তিনি অবশ্য চ্যাম্পিয়ন্স লীগে পিএসজির হয়ে তিনটি গোল করেছেন।

সোমবার, ২২ নভেম্বর ২০২১ , ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ ১৬ রবিউস সানি ১৪৪৩

লীগে প্রথম গোলের দেখা পেলেন মেসি

image

লিওনেল মেসি ফরাসি লীগ-১ এ প্যারিস সেন্ট জার্মেইর হয়ে প্রথম গোলের দেখা পেয়েছেন এবং তারা শনিবার ৩-১ গোলে নঁতসকে পরাজিত করে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে নিজেদের অবস্থান সুসংহত করেছে। এ জয়ের ফলে দ্বিতীয় স্থানে থাকা দলের সঙ্গে তাদের পয়েন্টের ব্যবধান বেড়ে ১৩ হয়েছে। মেসি খেলা শেষ হওয়ার তিন মিনিট বাকি থাকতে ২০ মিটার দূর থেকে নেয়া বাঁকানো এক কিকে গোলটি করেন।

পিএসজি ম্যাচটি শেষ করেন দশজন নিয়ে। দ্বিতীয়ার্ধের মাঝামাঝি সময়ে তাদের গোলরক্ষক কেইলর নাভাস পেনাল্টি বক্সের বাইরে গিয়ে লুডোভিচ ব্লাসকে ফাউল করলে রেফারি সরাসরি লাল কার্ড দেখান তাকে। এর ফলে দশজন নিয়ে বাকি সময় খেলতে হয় তাদের। এ সুযোগে নঁতস একটি গোল পরিশোধও করে। কিন্তু ডেনিস আপিয়ার আত্মঘাতি গোল নঁতসের সব আশা শেষ করে দেয়। তার আগে খেলার দুই মিনিটের মাথায়ই গোল করে পিএসজিকে এগিয়ে দিয়েছিলেন কাইলিয়ান এমবাপ্পে।

নঁতসের হয়ে গোলটি করেছিলেন র‌্যান্ডাল কোলো মুয়ানি। তিনি গোলমুখে বল পেয়ে ব্যাক হিল করে গোলটি করেছিলেন। লীগে পিএসজির এটা ছিল ১৪তম ম্যাচে ১২তম জয়। এ ম্যাচে শেষ পর্যন্ত তিন গোল খেলেও নঁতসের গোলরক্ষক অ্যালবন লাফন্ট দারুন খেলেছেন। তিনি মেসি এবং নেইমারকে বেশ কয়েকবার গোল বঞ্চিত করেন।

নাভাস লাল কার্ড দেখার পর নেইমারকে তুলে নিয়ে গোলরক্ষক সার্জিও রিকোকে মাঠে নামান পিএসজির কোচ পচেত্তিনো। রিকোও বেশ ভালো খেলেছেন। তিনিও দলকে বেশ কয়েকবার গোল খাওয়া থেকে বাঁচিয়েছেন। মেসির একটি পাস প্রতিহত করতে গিয়ে আপিয়াহ বল নিজেদের জালে পাঠালে পরিস্থিতি বদলে যায়। মেসি লীগে ছয় ম্যাচ খেলে এই প্রথম গোলের দেখা পেলেন। এর আগে তিনি অবশ্য চ্যাম্পিয়ন্স লীগে পিএসজির হয়ে তিনটি গোল করেছেন।