ইসরায়েলি প্রতিরক্ষা মন্ত্রীর গৃহকর্মী ইরানি ‘গুপ্তচর’!

ইসরায়েলি প্রতিরক্ষা মন্ত্রী বেনি গান্তজের এক গৃহকর্মীর বিরুদ্ধে ‘ইরান-সংশ্লিষ্ট’ ব্ল্যাক শ্যাডো হ্যাকার্স গোষ্ঠীর হয়ে ইসরায়েলি প্রতিরক্ষা মন্ত্রীর ওপর গোয়েন্দা নজরদারি চালানোর অভিযোগ উঠেছে। গত ৪ নভেম্বর তাকে সংশ্লিষ্ট বাহিনী গ্রেপ্তার করে। তার নাম ওমরি গোরেন গোরোচভস্কি (৩৭)। এক বিবৃতিতে ইসরায়েলের বিচার মন্ত্রণালয় এ তথ্য জানিয়েছে। খবর রয়টার্সের। বলা হচ্ছেÑ অভিযুক্ত ওই ব্যক্তি লোদ শহরের বাসিন্দা। তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা অনুযায়ী এর আগেও তিনি ব্যাংক ডাকাতিসহ বেশ কিছু অভিযোগে পাঁচ বছর জেল খেটেছেন। এ ঘটনায় স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠেছে, ইসরায়েলি নিরাপত্তা-ব্যবস্থার নিñিদ্রতা নিয়ে। কেননা এমন একজন দাগি আসামিই কিনা পরিচ্ছন্নকর্মীর কাজ করতেন সবচেয়ে স্পর্শকাতর মন্ত্রণালয়টির মন্ত্রী বেনি গান্তজের বাসায়! দেশটির অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা সংস্থা শিন বেট আলাদা বিবৃতিতে জানায়, গোরোচভস্কি কখনোই কোনো ‘সে ধরনের কোনো তথ্য’ পেতে সক্ষম হয়নি, ফলে রাষ্ট্রীয় গোপনীয়তা ফাঁস করতেও সে সফল হয়নি। এর আগে, গত মাসেই ইসরায়েলের একটি সার্ভারে সাইবার হামলার দাবি করে ব্ল্যাক শ্যাডো হ্যাকার্স। গোরোচভস্কির চার্জশিটে ঐ হ্যাকার গ্রুপটিকে ‘ইরান-সংশ্লিষ্ট’ বলে উল্লেখ করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, টেলিগ্রাম নামে বার্তা ও নথি আদানপ্রদানের অ্যাপে গত ৩১ অক্টোবর ব্ল্যাক শ্যাডো হ্যাকার্সের সাথে যোগাযোগ করেন তিনি। সেখানে টাকার বিনিময়ে ইউএসবি ডিভাইস ব্যবহার করে মন্ত্রীর বাড়ি থেকে গোপনীয় তথ্য বের করে সেগুলো পাচার করার প্রস্তাব দেন। শুধু তা-ই নয়, হ্যাকার গ্রুপের কাছে নিজের বিশ্বাসযোগ্যতা বাড়াতে মন্ত্রীর ছবিসহ বেশ কিছু ব্যবহার্য জিনিসের ছবি তুলেও পাঠান গোরোচভস্কি।

মঙ্গলবার, ২৩ নভেম্বর ২০২১ , ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ ১৭ রবিউস সানি ১৪৪৩

ইসরায়েলি প্রতিরক্ষা মন্ত্রীর গৃহকর্মী ইরানি ‘গুপ্তচর’!

ইসরায়েলি প্রতিরক্ষা মন্ত্রী বেনি গান্তজের এক গৃহকর্মীর বিরুদ্ধে ‘ইরান-সংশ্লিষ্ট’ ব্ল্যাক শ্যাডো হ্যাকার্স গোষ্ঠীর হয়ে ইসরায়েলি প্রতিরক্ষা মন্ত্রীর ওপর গোয়েন্দা নজরদারি চালানোর অভিযোগ উঠেছে। গত ৪ নভেম্বর তাকে সংশ্লিষ্ট বাহিনী গ্রেপ্তার করে। তার নাম ওমরি গোরেন গোরোচভস্কি (৩৭)। এক বিবৃতিতে ইসরায়েলের বিচার মন্ত্রণালয় এ তথ্য জানিয়েছে। খবর রয়টার্সের। বলা হচ্ছেÑ অভিযুক্ত ওই ব্যক্তি লোদ শহরের বাসিন্দা। তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা অনুযায়ী এর আগেও তিনি ব্যাংক ডাকাতিসহ বেশ কিছু অভিযোগে পাঁচ বছর জেল খেটেছেন। এ ঘটনায় স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠেছে, ইসরায়েলি নিরাপত্তা-ব্যবস্থার নিñিদ্রতা নিয়ে। কেননা এমন একজন দাগি আসামিই কিনা পরিচ্ছন্নকর্মীর কাজ করতেন সবচেয়ে স্পর্শকাতর মন্ত্রণালয়টির মন্ত্রী বেনি গান্তজের বাসায়! দেশটির অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা সংস্থা শিন বেট আলাদা বিবৃতিতে জানায়, গোরোচভস্কি কখনোই কোনো ‘সে ধরনের কোনো তথ্য’ পেতে সক্ষম হয়নি, ফলে রাষ্ট্রীয় গোপনীয়তা ফাঁস করতেও সে সফল হয়নি। এর আগে, গত মাসেই ইসরায়েলের একটি সার্ভারে সাইবার হামলার দাবি করে ব্ল্যাক শ্যাডো হ্যাকার্স। গোরোচভস্কির চার্জশিটে ঐ হ্যাকার গ্রুপটিকে ‘ইরান-সংশ্লিষ্ট’ বলে উল্লেখ করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, টেলিগ্রাম নামে বার্তা ও নথি আদানপ্রদানের অ্যাপে গত ৩১ অক্টোবর ব্ল্যাক শ্যাডো হ্যাকার্সের সাথে যোগাযোগ করেন তিনি। সেখানে টাকার বিনিময়ে ইউএসবি ডিভাইস ব্যবহার করে মন্ত্রীর বাড়ি থেকে গোপনীয় তথ্য বের করে সেগুলো পাচার করার প্রস্তাব দেন। শুধু তা-ই নয়, হ্যাকার গ্রুপের কাছে নিজের বিশ্বাসযোগ্যতা বাড়াতে মন্ত্রীর ছবিসহ বেশ কিছু ব্যবহার্য জিনিসের ছবি তুলেও পাঠান গোরোচভস্কি।