দারুণ জয়ে শীর্ষে রিয়াল মাদ্রিদ

রিয়াল মাদ্রিদ আন্তর্জাতিক বিরতির পর আবার মাঠে নেমে দুরন্ত জয় দিয়ে লা লিগা শুরু করেছে। রোববার তারা ৪-১ গোলের ব্যবধানে গ্রানাডাকে পরাজিত করে আবার পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে উঠে গেছে। রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে একটি করে গোল করেছেন মার্কো আসেনসিও, নাচো ফার্নান্ডেজ, ভিনিসিয়েস জুনিয়র এবং ফার্লান্ড মেন্ডি।

গ্রানাডার মঞ্চু লাল কার্ড খাওয়ায় শেষ ২৫ মিনিট তাদের ১০ জন নিয়ে খেলতে হয়। এ জয়ের ফলে সেভিয়া এবং রিয়াল সোসিয়েদাদকে দুই পয়েন্ট পেছনে ফেললো রিয়াল মাদ্রিদ।

রিয়ালের কোচ কার্লো আনচেলত্তি একাদশে কিছুটা পরিবর্তন এনে ম্যাচের জন্য। মেন্ট্রাল ডিফেন্ডার হিসেবে ডেভিড অ্যালাবার সঙ্গে নাচো ফার্নান্ডেজকে খেলান তিনি। বিশ্রামে ছিলেন ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার মিলিটাও।

রিয়াল মাদ্রিদ সব বিভাগের শ্রেষ্ঠত্ব দেখিয়ে ম্যাচটি জিতে নেয়। লুকা মড্রিচ এবং টনি ক্রুস ভালো খেলায় মাঝ মাঠে তাদের শ্রেষ্ঠত্ব প্রতিষ্ঠিত হয় শুরু থেকেই। এ দুজনের পাস থেকে থেকেই প্রথম গোল দুটি করে রিয়াল মাদ্রিদ। ২-০ গোলে যাওয়ার পর কিছুটা রিল্যাক্স খেলতে থাকে রিয়াল সে সুযোগে গ্রানাডা একটি গোল পরিশোধ করে।

তবে দ্বিতীয়ার্ধে আর রিয়াল মাদ্রিদ আর কোন সুযোগ দেয় নাই। দুরন্ত খেলে তারা আরও দুটি গোল করে সহজ জয় নিশ্চিত করে। বরাবরের মতোই ম্যাচেও দারুণ খেলেছেন ভিনিসিয়েস জুনিয়র। যে কারণে বেশ কয়েকবার প্রতিপক্ষের ফাউলের শিকার হতে হয়েছে তাকে। তাকে ফাউল করেই মঞ্চু দেখেন লাল কার্ড। তাই কোচ বিশেষ কোন ঝুঁকি না নিয়ে খেলার ২০ মিনিট বাকি থাকতে তাকে মাঠ থেকে তুলে নেন। তার বদলে মাঠে নামান আরেক ব্রাজিলিয়ান রড্রিগো গোয়েসকে। এরপরেও একটি গোল করে রিয়াল মাদ্রিদ ক্যাসেমিরোর পাস থেকে ফারল্যান্ড মেন্ডি গোলের হালি পূর্ণ করেন।

মঙ্গলবার, ২৩ নভেম্বর ২০২১ , ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ ১৭ রবিউস সানি ১৪৪৩

দারুণ জয়ে শীর্ষে রিয়াল মাদ্রিদ

image

রিয়াল মাদ্রিদ আন্তর্জাতিক বিরতির পর আবার মাঠে নেমে দুরন্ত জয় দিয়ে লা লিগা শুরু করেছে। রোববার তারা ৪-১ গোলের ব্যবধানে গ্রানাডাকে পরাজিত করে আবার পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে উঠে গেছে। রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে একটি করে গোল করেছেন মার্কো আসেনসিও, নাচো ফার্নান্ডেজ, ভিনিসিয়েস জুনিয়র এবং ফার্লান্ড মেন্ডি।

গ্রানাডার মঞ্চু লাল কার্ড খাওয়ায় শেষ ২৫ মিনিট তাদের ১০ জন নিয়ে খেলতে হয়। এ জয়ের ফলে সেভিয়া এবং রিয়াল সোসিয়েদাদকে দুই পয়েন্ট পেছনে ফেললো রিয়াল মাদ্রিদ।

রিয়ালের কোচ কার্লো আনচেলত্তি একাদশে কিছুটা পরিবর্তন এনে ম্যাচের জন্য। মেন্ট্রাল ডিফেন্ডার হিসেবে ডেভিড অ্যালাবার সঙ্গে নাচো ফার্নান্ডেজকে খেলান তিনি। বিশ্রামে ছিলেন ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার মিলিটাও।

রিয়াল মাদ্রিদ সব বিভাগের শ্রেষ্ঠত্ব দেখিয়ে ম্যাচটি জিতে নেয়। লুকা মড্রিচ এবং টনি ক্রুস ভালো খেলায় মাঝ মাঠে তাদের শ্রেষ্ঠত্ব প্রতিষ্ঠিত হয় শুরু থেকেই। এ দুজনের পাস থেকে থেকেই প্রথম গোল দুটি করে রিয়াল মাদ্রিদ। ২-০ গোলে যাওয়ার পর কিছুটা রিল্যাক্স খেলতে থাকে রিয়াল সে সুযোগে গ্রানাডা একটি গোল পরিশোধ করে।

তবে দ্বিতীয়ার্ধে আর রিয়াল মাদ্রিদ আর কোন সুযোগ দেয় নাই। দুরন্ত খেলে তারা আরও দুটি গোল করে সহজ জয় নিশ্চিত করে। বরাবরের মতোই ম্যাচেও দারুণ খেলেছেন ভিনিসিয়েস জুনিয়র। যে কারণে বেশ কয়েকবার প্রতিপক্ষের ফাউলের শিকার হতে হয়েছে তাকে। তাকে ফাউল করেই মঞ্চু দেখেন লাল কার্ড। তাই কোচ বিশেষ কোন ঝুঁকি না নিয়ে খেলার ২০ মিনিট বাকি থাকতে তাকে মাঠ থেকে তুলে নেন। তার বদলে মাঠে নামান আরেক ব্রাজিলিয়ান রড্রিগো গোয়েসকে। এরপরেও একটি গোল করে রিয়াল মাদ্রিদ ক্যাসেমিরোর পাস থেকে ফারল্যান্ড মেন্ডি গোলের হালি পূর্ণ করেন।