জমি নিয়ে বিরোধ একজনকে কুপিয়ে হত্যা

মাদারীপুরের শিবচরে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে দাদন চোকদার (৪৫) নামের এক ব্যক্তিকে শরীর থেকে পা বিচ্ছিন্ন করে কুপিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। গতকাল বেলা ৩টার দিকে শিবচর উপজেলার শিবচর পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের পূর্ব শ্যামাইল গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। নিহত দাদন চোকদার ওই এলাকার মৃত আদম চোকদারের ছেলে। সে পেশায় জেলে।

পুলিশ ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, গত বছর দাদন চোকদারের সঙ্গে জমিজমা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে একটি বিবাদ হয়। পরে এই ঘটনায় আদালতে একটি মামলা হয়। সম্প্রতি দাদন চোকদারের পক্ষে মামলায় রায় দেয় আদালত। কিন্তু অভিযুক্ত সেলিম শেখ সে রায় মেনে না নিয়ে দাদন চোকদারকে হত্যার হুমকি দেয়। আজ বেলা ৩টার দিকে দাদন চোকদার শিবচর বাজার থেকে ভ্যানযোগে সেলিম শেখের বাড়ির সামনে দিয়ে তার নিজ বাড়ি যাওয়ার সময় প্রতিপক্ষ সেলিম শেখ, মেহেদি মাদবর, নজরুল শেখ তাকে ভ্যান থেকে নামিয়ে রাস্তার উপর ফেলে এলোপাতারি ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপাতে থাকে। পর্যায়ক্রমে কুপিয়ে দেহ থেকে পা বিচ্ছিন্ন করে। পরে বুকে ও মাথায় কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয় কয়েকজন লোক তার বাড়িতে খবর দেয় ও স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে শিবচর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেলে নেয়ার পথেই শিবচরের পাচ্চর নামক স্থানে দাদন চোকদার মারা যান।

শিবচর থানার ওসি মিরাজ হোসেন বলেন, ঘটনার পরেই থানার পুলিশ এলাকায় অভিযান চালিয়ে ঘটনার সঙ্গে যারা জড়িত তাদের গ্রেপ্তার করার চেষ্টা করছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মাদারীপুর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে এবং এই ঘটনায় নিহতদের পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় একটি মামলা দায়ের করা হবে।

বুধবার, ২৪ নভেম্বর ২০২১ , ৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ ১৮ রবিউস সানি ১৪৪৩

মাদারীপুরের শিবচরে

জমি নিয়ে বিরোধ একজনকে কুপিয়ে হত্যা

মাদারীপুরের শিবচরে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে দাদন চোকদার (৪৫) নামের এক ব্যক্তিকে শরীর থেকে পা বিচ্ছিন্ন করে কুপিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। গতকাল বেলা ৩টার দিকে শিবচর উপজেলার শিবচর পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের পূর্ব শ্যামাইল গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। নিহত দাদন চোকদার ওই এলাকার মৃত আদম চোকদারের ছেলে। সে পেশায় জেলে।

পুলিশ ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, গত বছর দাদন চোকদারের সঙ্গে জমিজমা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে একটি বিবাদ হয়। পরে এই ঘটনায় আদালতে একটি মামলা হয়। সম্প্রতি দাদন চোকদারের পক্ষে মামলায় রায় দেয় আদালত। কিন্তু অভিযুক্ত সেলিম শেখ সে রায় মেনে না নিয়ে দাদন চোকদারকে হত্যার হুমকি দেয়। আজ বেলা ৩টার দিকে দাদন চোকদার শিবচর বাজার থেকে ভ্যানযোগে সেলিম শেখের বাড়ির সামনে দিয়ে তার নিজ বাড়ি যাওয়ার সময় প্রতিপক্ষ সেলিম শেখ, মেহেদি মাদবর, নজরুল শেখ তাকে ভ্যান থেকে নামিয়ে রাস্তার উপর ফেলে এলোপাতারি ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপাতে থাকে। পর্যায়ক্রমে কুপিয়ে দেহ থেকে পা বিচ্ছিন্ন করে। পরে বুকে ও মাথায় কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয় কয়েকজন লোক তার বাড়িতে খবর দেয় ও স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে শিবচর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেলে নেয়ার পথেই শিবচরের পাচ্চর নামক স্থানে দাদন চোকদার মারা যান।

শিবচর থানার ওসি মিরাজ হোসেন বলেন, ঘটনার পরেই থানার পুলিশ এলাকায় অভিযান চালিয়ে ঘটনার সঙ্গে যারা জড়িত তাদের গ্রেপ্তার করার চেষ্টা করছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মাদারীপুর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে এবং এই ঘটনায় নিহতদের পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় একটি মামলা দায়ের করা হবে।