আহমদুল কবির ছিলেন অসাম্প্রদায়িক রাজনীতি ও বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতার প্রতীক

সংবাদের প্রয়াত প্রধান সম্পাদক, রাজনীতিক আহমদুল কবির ছিলেন অসাম্প্রদায়িক রাজনীতি ও বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতার প্রতীক। আহমদুল কবিরের গ্রামের বিশিষ্ট জনেরা তার ১৮তম মৃত্যুবার্ষিকী অনুষ্ঠানে এমন অভিমত দিয়েছেন।

স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, মুক্তিযোদ্ধা ও সাধারণ মানুষ আহমদুল কবিরকে একজন জনদরদী, আদর্শবাদী সাংবাদিক-রাজনীতিক হিসেবে তাদের শ্রদ্ধার আসনে রেখেছেন বলে মৃত্যুবার্ষিকী অনুষ্ঠানে তারা আবেগাক্রান্ত অভিব্যক্তিতে জানান।

গতকাল ২৪ নভেম্বর ছিল দৈনিক ‘সংবাদ’-এর প্রধান সম্পাদক, দেশের প্রগতিশীল ধারার রাজনীতির পুরোধা ব্যক্তিত্ব ও সাবেক সংসদ সদস্য আহমদুল কবিরের (মনু মিয়া) ১৮তম মৃত্যুবার্ষিকী। এ উপলক্ষে তার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে তার গ্রামের বাড়ি নরসিংদীর ঘোড়াশালে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এসব অনুষ্ঠানে আহমদুল কবিরের বর্ণাঢ্য জীবন নিয়ে আলোচনা, দোয়া, মিলাদ, কোরআন খতম, কাঙ্গালি ভোজ, কৃতী শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান এবং কবরে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে তার প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।

আহমদুল কবিরের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে গতকাল ঘোড়াশালে মিয়া বাড়িতে তার কবরে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষ। আহমদুল কবির (মনু মিয়া) স্মৃতি সংসদের পক্ষে কবরে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন আহমদুল কবিরের বড় ছেলে সংবাদ সম্পাদক আলতামাশ কবির, স্মৃতি সংসদের সাধারণ সম্পাদক কার্তিক চ্যাটার্জী, ঘোড়াশাল পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের কমিশনার নূরুল ইসলাম, মো. লোকমান হোসেন, পাঁচদোনা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ মো. মনির হোসেন প্রধান, মুক্তিযোদ্ধা ফরহাদসহ স্মৃতি সংসদের কর্মকর্তারা।

সংবাদ পরিবারের পক্ষে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন আলতামাশ কবির, আহমদুল কবিরের মেয়ে সংবাদের ডিএমডি, স্মৃতি সংসদের সভাপতি, বিশিষ্ট আইনজীবী ব্যারিস্টার নিহাদ কবির, সংবাদের নির্বাহী সম্পাদক শাহরিয়ার করিম, সংবাদের চিফ রিপোর্টার সালাম জুবায়ের, সংবাদের ইউনিট চিফ ও প্রধান সম্পাদনা সহকারী খোরশেদ আলম, চিফ ফটোগ্রাফার সোহরাব আলম, আবদুল হান্নান, আবদুল কাদের মোল্লা, আলমগীর খান, আনিসুর রহমান জাহাঙ্গীর প্রমুখ।

এ ছাড়াও কবরে পুষ্পস্তবক দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন ডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ সৈয়দ ইকবাল, পাঁচদোনা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ মো. মনির হোসেন প্রধান, আলহাজ একেএম জাকির হোসেন বেনু মাস্টার, মো. শাহজাহান মিয়া, মুক্তিযোদ্ধা ফরহাদ, ঘোড়াশাল ৭নং ওয়ার্ডের কমিশনার নূরুল ইসলাম প্রমুখ।

দুপুরে মিয়াবাড়ি প্রাঙ্গণে প্রয়াত আহমদুল কবিরের বর্ণাঢ্য জীবনের বিভিন্ন দিক নিয়ে স্মৃতি সংসদের উদ্যোগে স্মরণসভা অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্পাদক আলতামাশ কবিরের সভাপতিত্বে স্মরণসভায় আলোচনা করেন, স্মৃতি সংসদের সাধারণ সম্পাদক প্রবীণ সাংবাদিক কার্তিক চেটার্জী, দৈনিক সংবাদের চিফ রিপোর্টার সালাম জুবায়ের, ডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ সৈয়দ ইকবাল, পাঁচদোনা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ মো. মনির হোসেন প্রধান, আলহাজ একেএম জাকির হোসেন বেনু মাস্টার, মো. শাহজাহান মিয়া, বীর মুক্তিযোদ্ধা ফরহাদ প্রমুখ। স্মরণসভা পরিচালনা করেন ঘোড়াশাল ৭নং ওয়ার্ডের কমিশনার নূরুল ইসলাম।

স্মরণসভায় আলতামাশ কবির বলেন, আমার বাবা আহমদুল কবির ছিলেন অসাম্প্রদায়িক রাজনীতি এবং প্রগতিশীল ও বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতার প্রতীক। তিনি ব্রিটিশ, পাকিস্তান ও স্বাধীন বাংলাদেশের রাজনৈতিক ও সাংবাদিক অঙ্গনের প্রতিভাদীপ্ত অবদান রেখে গেছেন। তার রাজনৈতিক দর্শন ছিল এদেশের সাধারণ মানুষের অধিকার আদায়ে কাজ করা। তদানীন্তন পাকিস্তানের রাজনীতিতে অসাম্প্রদায়িক, গণতান্ত্রিক ও প্রগতিশীল যে ধারা এদেশে ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে বিপুল জনগোষ্ঠীর রাজনৈতিক চেতনাকে নাড়া দিয়েছিল, সেই ধারার পুরোধা ব্যক্তিত্ব ছিলেন আহমদুল কবির।

image

মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে গতকাল ঘোড়াশালে সংবাদের প্রধান সম্পাদক আহমদুল কবিরের সমাধিতে সংবাদ পরিবারের ফুলেল শ্রদ্ধা -সংবাদ

আরও খবর
আমাদের অঙ্গীকার হবে বাংলাদেশকে দারিদ্র্য, ক্ষুধা ও বৈষম্যমুক্ত সোনার বাংলায় রূপান্তর করা
কিছু বিচ্ছিন্ন ঘটনা হয়েছে তবে ভোট পড়েছে ৭৪ শতাংশ : সিইসি
ভাসানচরের পথে আরও ৩৭৯ রোহিঙ্গা
ঢাবির ‘ঘ’ ইউনিটের ফল প্রকাশ : ফেল ৯০ দশমিক ১৩%
হাইস্কুলে ভর্তি কার্যক্রম আজ শুরু
ঘুষ গ্রহণের অভিযোগে পাটকেলঘাটার ওসি প্রত্যাহার
মহাসড়কে সন্ত্রাস-চাঁদাবাজি-দুর্ঘটনা তথ্য জানাতে চালু হচ্ছে অ্যাপ
বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ করে মামুনুল
বংশালে জাদুঘরের উদ্বোধন
গণপরিবহনে হাফ ভাড়া চেয়ে শিক্ষার্থীদের রিট
আগরতলার সবকটি বুথকে স্পর্শকাতর ঘোষণা

বৃহস্পতিবার, ২৫ নভেম্বর ২০২১ , ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ ১৯ রবিউস সানি ১৪৪৩

আহমদুল কবির ছিলেন অসাম্প্রদায়িক রাজনীতি ও বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতার প্রতীক

image

মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে গতকাল ঘোড়াশালে সংবাদের প্রধান সম্পাদক আহমদুল কবিরের সমাধিতে সংবাদ পরিবারের ফুলেল শ্রদ্ধা -সংবাদ

সংবাদের প্রয়াত প্রধান সম্পাদক, রাজনীতিক আহমদুল কবির ছিলেন অসাম্প্রদায়িক রাজনীতি ও বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতার প্রতীক। আহমদুল কবিরের গ্রামের বিশিষ্ট জনেরা তার ১৮তম মৃত্যুবার্ষিকী অনুষ্ঠানে এমন অভিমত দিয়েছেন।

স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, মুক্তিযোদ্ধা ও সাধারণ মানুষ আহমদুল কবিরকে একজন জনদরদী, আদর্শবাদী সাংবাদিক-রাজনীতিক হিসেবে তাদের শ্রদ্ধার আসনে রেখেছেন বলে মৃত্যুবার্ষিকী অনুষ্ঠানে তারা আবেগাক্রান্ত অভিব্যক্তিতে জানান।

গতকাল ২৪ নভেম্বর ছিল দৈনিক ‘সংবাদ’-এর প্রধান সম্পাদক, দেশের প্রগতিশীল ধারার রাজনীতির পুরোধা ব্যক্তিত্ব ও সাবেক সংসদ সদস্য আহমদুল কবিরের (মনু মিয়া) ১৮তম মৃত্যুবার্ষিকী। এ উপলক্ষে তার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে তার গ্রামের বাড়ি নরসিংদীর ঘোড়াশালে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এসব অনুষ্ঠানে আহমদুল কবিরের বর্ণাঢ্য জীবন নিয়ে আলোচনা, দোয়া, মিলাদ, কোরআন খতম, কাঙ্গালি ভোজ, কৃতী শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান এবং কবরে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে তার প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।

আহমদুল কবিরের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে গতকাল ঘোড়াশালে মিয়া বাড়িতে তার কবরে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষ। আহমদুল কবির (মনু মিয়া) স্মৃতি সংসদের পক্ষে কবরে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন আহমদুল কবিরের বড় ছেলে সংবাদ সম্পাদক আলতামাশ কবির, স্মৃতি সংসদের সাধারণ সম্পাদক কার্তিক চ্যাটার্জী, ঘোড়াশাল পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের কমিশনার নূরুল ইসলাম, মো. লোকমান হোসেন, পাঁচদোনা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ মো. মনির হোসেন প্রধান, মুক্তিযোদ্ধা ফরহাদসহ স্মৃতি সংসদের কর্মকর্তারা।

সংবাদ পরিবারের পক্ষে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন আলতামাশ কবির, আহমদুল কবিরের মেয়ে সংবাদের ডিএমডি, স্মৃতি সংসদের সভাপতি, বিশিষ্ট আইনজীবী ব্যারিস্টার নিহাদ কবির, সংবাদের নির্বাহী সম্পাদক শাহরিয়ার করিম, সংবাদের চিফ রিপোর্টার সালাম জুবায়ের, সংবাদের ইউনিট চিফ ও প্রধান সম্পাদনা সহকারী খোরশেদ আলম, চিফ ফটোগ্রাফার সোহরাব আলম, আবদুল হান্নান, আবদুল কাদের মোল্লা, আলমগীর খান, আনিসুর রহমান জাহাঙ্গীর প্রমুখ।

এ ছাড়াও কবরে পুষ্পস্তবক দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন ডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ সৈয়দ ইকবাল, পাঁচদোনা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ মো. মনির হোসেন প্রধান, আলহাজ একেএম জাকির হোসেন বেনু মাস্টার, মো. শাহজাহান মিয়া, মুক্তিযোদ্ধা ফরহাদ, ঘোড়াশাল ৭নং ওয়ার্ডের কমিশনার নূরুল ইসলাম প্রমুখ।

দুপুরে মিয়াবাড়ি প্রাঙ্গণে প্রয়াত আহমদুল কবিরের বর্ণাঢ্য জীবনের বিভিন্ন দিক নিয়ে স্মৃতি সংসদের উদ্যোগে স্মরণসভা অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্পাদক আলতামাশ কবিরের সভাপতিত্বে স্মরণসভায় আলোচনা করেন, স্মৃতি সংসদের সাধারণ সম্পাদক প্রবীণ সাংবাদিক কার্তিক চেটার্জী, দৈনিক সংবাদের চিফ রিপোর্টার সালাম জুবায়ের, ডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ সৈয়দ ইকবাল, পাঁচদোনা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ মো. মনির হোসেন প্রধান, আলহাজ একেএম জাকির হোসেন বেনু মাস্টার, মো. শাহজাহান মিয়া, বীর মুক্তিযোদ্ধা ফরহাদ প্রমুখ। স্মরণসভা পরিচালনা করেন ঘোড়াশাল ৭নং ওয়ার্ডের কমিশনার নূরুল ইসলাম।

স্মরণসভায় আলতামাশ কবির বলেন, আমার বাবা আহমদুল কবির ছিলেন অসাম্প্রদায়িক রাজনীতি এবং প্রগতিশীল ও বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতার প্রতীক। তিনি ব্রিটিশ, পাকিস্তান ও স্বাধীন বাংলাদেশের রাজনৈতিক ও সাংবাদিক অঙ্গনের প্রতিভাদীপ্ত অবদান রেখে গেছেন। তার রাজনৈতিক দর্শন ছিল এদেশের সাধারণ মানুষের অধিকার আদায়ে কাজ করা। তদানীন্তন পাকিস্তানের রাজনীতিতে অসাম্প্রদায়িক, গণতান্ত্রিক ও প্রগতিশীল যে ধারা এদেশে ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে বিপুল জনগোষ্ঠীর রাজনৈতিক চেতনাকে নাড়া দিয়েছিল, সেই ধারার পুরোধা ব্যক্তিত্ব ছিলেন আহমদুল কবির।