গণপরিবহনে হাফ ভাড়া চেয়ে শিক্ষার্থীদের রিট

শিক্ষার্থীদের জন্য দেশের সব ধরনের সরকারি-বেসরকারি বাস, লঞ্চ ও ট্রেন ভাড়া অর্ধেক করার নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট করা হয়েছে। গতকাল সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দ এ রিট দায়ের করেন।

কয়েকদিন ধরে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় গণপরিবহনে শিক্ষার্থীরা অর্ধেক ভাড়া দেয়ার দাবিতে আন্দোলন করছে। এবার এ আন্দোলনকে সমর্থন দিয়ে দেশের সব ধরনের সরকারি-বেসরকারি বাস, লঞ্চ ও ট্রেন ভাড়া অর্ধেক করার নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট করলেন সুপ্রিমকোর্টের এই আইনজীবী।

রিট আবেদনে বলা হয়, সংবিধানের ১৭ অনুচ্ছেদে সরকার শিক্ষার নিশ্চয়তা দিয়েছে। সে কারণে শিক্ষার ব্যয় সরকারকে বহন করা উচিত। অথচ সংবিধান লঙ্ঘন করে শিক্ষার্থীরা অন্য আনুষঙ্গিক ব্যয় বহন করছে। অর্ধেক ভাড়ার বিষয়টি দীর্ঘ দিন ধরে প্রচলনের মাঝেও শিক্ষার্থীদের মৌলিক অধিকার ক্ষুণœ হচ্ছে। এ নিয়ে শিক্ষার্থীরা যে আন্দোলন করছে, সে আন্দোলন সারা দেশে ছড়িয়ে পড়লে অরাজকতা তৈরি হতে পারে।

রিট আবেদনে স্বরাষ্ট্র সচিব, নৌ-সচিব, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সেতু বিভাগের সচিব, রেলপথ মন্ত্রণালয় সচিব ও পুলিশ প্রধানকে বিবাদী করা হয়েছে।

এদিকে এ রিট করার কথা জানিয়ে ইউনুছ আলী আকন্দ জানান, চলতি মাসে তেলের মূল্যবৃদ্ধির কারণে বাস ভাড়া বাড়ানো হয়। বর্ধিত ভাড়ার মধ্যে কয়েক দিন ধরে শিক্ষার্থীরা দাবি জানাচ্ছে, তাদের জন্য অর্ধেক ভাড়া চালুর জন্য। গত কয়েকদিনে ঢাকার সায়েন্সল্যাব, ফার্মগেটসহ কয়েক স্থানে এ দাবিতে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে পরিবহন শ্রমিকদের অনাকাক্সিক্ষত ঘটনাও ঘটেছে।

গত ৪ নভেম্বর ডিজেলের দাম বাড়ানোর পর গণপরিবহনের ভাড়া বাড়ানো হয়। এরপরও নির্ধারিত ভাড়ার চেয়ে বেশি ভাড়া আদায়ের অভিযোগ ওঠে পরিবহন মালিকদের বিরুদ্ধে। পরে শিক্ষার্থীরা গত ১৫ নভেম্বর থেকে হাফ পাসের আন্দোলন শুরু করেন। গত কয়েক দিন ধরে শান্তিপূর্ণভাবে এই আন্দোলন চলছিল। গত বুধবার শিক্ষার্থীদের ওপর প্রথম হামলার ঘটনা ঘটে।

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ) সূত্রে জানা গেছে, নভেম্বরের শুরুতে ডিজেলের মূল্য বাড়লে গাড়ি ভাড়া বাড়ানোর দাবিতে অঘোষিত ধর্মঘট শুরু করেন বাস, ট্রাকসহ পণ্যবাহী যানবাহনের মালিকরা। এ অবস্থায় বাস ভাড়া নির্ধারণের দায়িত্বে থাকা বিআরটিএ গত ৭ নভেম্বর পরিবহন মালিকদের সঙ্গে বৈঠক করে। বৈঠকে নতুন ভাড়া নির্ধারিত হয়। সেখানে শিক্ষার্থীদের অর্ধেক ভাড়ার বিষয়ে কোন আলোচনা হয়নি।

বৃহস্পতিবার, ২৫ নভেম্বর ২০২১ , ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ ১৯ রবিউস সানি ১৪৪৩

গণপরিবহনে হাফ ভাড়া চেয়ে শিক্ষার্থীদের রিট

শিক্ষার্থীদের জন্য দেশের সব ধরনের সরকারি-বেসরকারি বাস, লঞ্চ ও ট্রেন ভাড়া অর্ধেক করার নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট করা হয়েছে। গতকাল সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দ এ রিট দায়ের করেন।

কয়েকদিন ধরে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় গণপরিবহনে শিক্ষার্থীরা অর্ধেক ভাড়া দেয়ার দাবিতে আন্দোলন করছে। এবার এ আন্দোলনকে সমর্থন দিয়ে দেশের সব ধরনের সরকারি-বেসরকারি বাস, লঞ্চ ও ট্রেন ভাড়া অর্ধেক করার নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট করলেন সুপ্রিমকোর্টের এই আইনজীবী।

রিট আবেদনে বলা হয়, সংবিধানের ১৭ অনুচ্ছেদে সরকার শিক্ষার নিশ্চয়তা দিয়েছে। সে কারণে শিক্ষার ব্যয় সরকারকে বহন করা উচিত। অথচ সংবিধান লঙ্ঘন করে শিক্ষার্থীরা অন্য আনুষঙ্গিক ব্যয় বহন করছে। অর্ধেক ভাড়ার বিষয়টি দীর্ঘ দিন ধরে প্রচলনের মাঝেও শিক্ষার্থীদের মৌলিক অধিকার ক্ষুণœ হচ্ছে। এ নিয়ে শিক্ষার্থীরা যে আন্দোলন করছে, সে আন্দোলন সারা দেশে ছড়িয়ে পড়লে অরাজকতা তৈরি হতে পারে।

রিট আবেদনে স্বরাষ্ট্র সচিব, নৌ-সচিব, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সেতু বিভাগের সচিব, রেলপথ মন্ত্রণালয় সচিব ও পুলিশ প্রধানকে বিবাদী করা হয়েছে।

এদিকে এ রিট করার কথা জানিয়ে ইউনুছ আলী আকন্দ জানান, চলতি মাসে তেলের মূল্যবৃদ্ধির কারণে বাস ভাড়া বাড়ানো হয়। বর্ধিত ভাড়ার মধ্যে কয়েক দিন ধরে শিক্ষার্থীরা দাবি জানাচ্ছে, তাদের জন্য অর্ধেক ভাড়া চালুর জন্য। গত কয়েকদিনে ঢাকার সায়েন্সল্যাব, ফার্মগেটসহ কয়েক স্থানে এ দাবিতে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে পরিবহন শ্রমিকদের অনাকাক্সিক্ষত ঘটনাও ঘটেছে।

গত ৪ নভেম্বর ডিজেলের দাম বাড়ানোর পর গণপরিবহনের ভাড়া বাড়ানো হয়। এরপরও নির্ধারিত ভাড়ার চেয়ে বেশি ভাড়া আদায়ের অভিযোগ ওঠে পরিবহন মালিকদের বিরুদ্ধে। পরে শিক্ষার্থীরা গত ১৫ নভেম্বর থেকে হাফ পাসের আন্দোলন শুরু করেন। গত কয়েক দিন ধরে শান্তিপূর্ণভাবে এই আন্দোলন চলছিল। গত বুধবার শিক্ষার্থীদের ওপর প্রথম হামলার ঘটনা ঘটে।

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ) সূত্রে জানা গেছে, নভেম্বরের শুরুতে ডিজেলের মূল্য বাড়লে গাড়ি ভাড়া বাড়ানোর দাবিতে অঘোষিত ধর্মঘট শুরু করেন বাস, ট্রাকসহ পণ্যবাহী যানবাহনের মালিকরা। এ অবস্থায় বাস ভাড়া নির্ধারণের দায়িত্বে থাকা বিআরটিএ গত ৭ নভেম্বর পরিবহন মালিকদের সঙ্গে বৈঠক করে। বৈঠকে নতুন ভাড়া নির্ধারিত হয়। সেখানে শিক্ষার্থীদের অর্ধেক ভাড়ার বিষয়ে কোন আলোচনা হয়নি।