‘যৌনচিত্র’ কাণ্ডে বেনজেমা দোষী প্রমাণিত

এক বছরের নিষেধাজ্ঞা ও জরিমানা

২০১৫ সালের আলোচিত সেই ‘যৌনচিত্র’ কাণ্ডে ফরাসি স্ট্রাইকার করিম বেনজেমা দোষী প্রমাণিত হয়েছেন । ফ্রান্সের একটি আদালত তাকে সাবেক সতীর্থ ম্যাথিউ ভালবুয়েনাকে ব্ল্যাকমেইল করার সঙ্গে জড়িত থাকায় এক বছরের স্থগিত নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে। আদালতের রায়ে বুধবার তাকে ৭৫ হাজার ইউরো জরিমানাও করা হয়েছে।

ভেরসাইয়ের এই আদালতে রায়ের সময় উপস্থিত ছিলেন না বেনজেমা। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ পর্বের ম্যাচে বুধবার মলডোভার ক্লাব শেরিফ তিরাসপুলের মাঠে খেলবে রিয়াল মাদ্রিদ। দলের সঙ্গে আছেন তিনি। তবে, এই রায়ের বিরুদ্ধে বেনজেমা আপিল করবেন বলে জানিয়েছেন তার আইনজীবী।

বরাবরই নিজেকে নির্দোষ দাবি করেছেন বেনজেমা।

এ বিষয়ে রিয়াল তাৎক্ষনিকভাবে কোন মন্তব্য করতে রাজি হয়নি বলে রয়টার্স তাদের প্রতিবেদনে জানিয়েছে।

প্রসিকিউটরদের মতে, ২০১৫ সালের জুনে প্যারিসের পশ্চিমাঞ্চলে ফ্রেঞ্চ দলের অনুশীলনের সময় ভালবুয়েনা ব্ল্যাকমেইলারদের প্রথম ফোন পান, তখন তাকে ওই ভিডিও ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দেয়া হয়েছিল। ভালবুয়েনা এর আগেই আদালতে বলেন, ব্ল্যাকমেইলার পরিষ্কারভাবে অর্থ চেয়েছিলেন। তার ক্যারিয়ার ও জাতীয় দলে জায়গা খেলা নিয়েও ভয় দেখিয়েছিলেন।

গত অক্টোবরে রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছিল, ব্ল্যাকমেইলাররা প্রথমে সাবেক ফরাসি স্ট্রাইকার জিব্রিল সিসেকে প্রস্তাব দিয়েছিল ভালবুয়েনাকে অর্থ দিয়ে বিষয়টি মিটমাট করার জন্য বোঝাতে। তবে উল্টো তিনি এই ষড়যন্ত্রের বিষয়ে তাকে সতর্ক করে দেন বলে জানান ভালবুয়েনা। এরপরই নাকি ব্ল্যাকমেইলাররা বেনজেমাকে এই কাজে নিয়োগ দেয়।

২০১৫ সালের এই ঘটনা প্রকাশ হলে বেনজেমার মতো ভালবুয়েনাও জাতীয় দলে জায়গা হারান।

৩৩ বছর বয়সী বেনজেমা সব মিলিয়ে জাতীয় দলের হয়ে ৯৪টি ম্যাচ খেলেছেন। ২০১৫ সালের পর প্রথম ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের দলে ডাক পান তিনি।

বৃহস্পতিবার, ২৫ নভেম্বর ২০২১ , ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ ১৯ রবিউস সানি ১৪৪৩

‘যৌনচিত্র’ কাণ্ডে বেনজেমা দোষী প্রমাণিত

এক বছরের নিষেধাজ্ঞা ও জরিমানা

image

২০১৫ সালের আলোচিত সেই ‘যৌনচিত্র’ কাণ্ডে ফরাসি স্ট্রাইকার করিম বেনজেমা দোষী প্রমাণিত হয়েছেন । ফ্রান্সের একটি আদালত তাকে সাবেক সতীর্থ ম্যাথিউ ভালবুয়েনাকে ব্ল্যাকমেইল করার সঙ্গে জড়িত থাকায় এক বছরের স্থগিত নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে। আদালতের রায়ে বুধবার তাকে ৭৫ হাজার ইউরো জরিমানাও করা হয়েছে।

ভেরসাইয়ের এই আদালতে রায়ের সময় উপস্থিত ছিলেন না বেনজেমা। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ পর্বের ম্যাচে বুধবার মলডোভার ক্লাব শেরিফ তিরাসপুলের মাঠে খেলবে রিয়াল মাদ্রিদ। দলের সঙ্গে আছেন তিনি। তবে, এই রায়ের বিরুদ্ধে বেনজেমা আপিল করবেন বলে জানিয়েছেন তার আইনজীবী।

বরাবরই নিজেকে নির্দোষ দাবি করেছেন বেনজেমা।

এ বিষয়ে রিয়াল তাৎক্ষনিকভাবে কোন মন্তব্য করতে রাজি হয়নি বলে রয়টার্স তাদের প্রতিবেদনে জানিয়েছে।

প্রসিকিউটরদের মতে, ২০১৫ সালের জুনে প্যারিসের পশ্চিমাঞ্চলে ফ্রেঞ্চ দলের অনুশীলনের সময় ভালবুয়েনা ব্ল্যাকমেইলারদের প্রথম ফোন পান, তখন তাকে ওই ভিডিও ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দেয়া হয়েছিল। ভালবুয়েনা এর আগেই আদালতে বলেন, ব্ল্যাকমেইলার পরিষ্কারভাবে অর্থ চেয়েছিলেন। তার ক্যারিয়ার ও জাতীয় দলে জায়গা খেলা নিয়েও ভয় দেখিয়েছিলেন।

গত অক্টোবরে রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছিল, ব্ল্যাকমেইলাররা প্রথমে সাবেক ফরাসি স্ট্রাইকার জিব্রিল সিসেকে প্রস্তাব দিয়েছিল ভালবুয়েনাকে অর্থ দিয়ে বিষয়টি মিটমাট করার জন্য বোঝাতে। তবে উল্টো তিনি এই ষড়যন্ত্রের বিষয়ে তাকে সতর্ক করে দেন বলে জানান ভালবুয়েনা। এরপরই নাকি ব্ল্যাকমেইলাররা বেনজেমাকে এই কাজে নিয়োগ দেয়।

২০১৫ সালের এই ঘটনা প্রকাশ হলে বেনজেমার মতো ভালবুয়েনাও জাতীয় দলে জায়গা হারান।

৩৩ বছর বয়সী বেনজেমা সব মিলিয়ে জাতীয় দলের হয়ে ৯৪টি ম্যাচ খেলেছেন। ২০১৫ সালের পর প্রথম ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের দলে ডাক পান তিনি।