বাংলালিংক ও ইউসেপ বাংলাদেশ এর মধ্যে সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষরিত

ডিজিটাল সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান বাংলালিংক সম্প্রতি ইউসেপ (আন্ডারপ্রিভিলেজ চিলড্রেন এডুকেশন প্রোগ্রামস্) বাংলাদেশ-এর সঙ্গে একটি সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর করেছে। এই উদ্যোগের ফলে ইউসেপ জেনারেল স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষিকা ও ছাত্রছাত্রীরা ডিজিটাল লার্নিং ও নতুন ‘ই-স্টাডি গ্রুপ’ মডেলের জন্য বাংলালিংক এর ফ্রি ডেটা ব্যবহার করতে পারবে।

বাংলালিংকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এরিক অস ও ইউসেপ বাংলাদেশের নির্বাহী পরিচালক মো. আব্দুল করিম নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে সমঝোতা চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলালিংকের চিফ কর্পোরেট অ্যান্ড রেগুলেটরি অ্যাফেয়ার্স অফিসার তাইমুর রহমান, হেড অফ করপোরেট কমিউনিকেশনস অ্যান্ড সাস্টেইনেবিলিটি আংকিত সুরেকা, হেড অফ এথিকস অ্যান্ড কমপ্ল্যায়েন্স অ্যান্ড এএমএল প্রোগ্রাম মোহাম্মদ আদিল হোসেন, ইউসেপ বাংলাদেশের ফিন্যান্স অ্যান্ড কমপ্ল্যায়েন্স ডিরেক্টর নাজমুন নাহার এবং রিসোর্স মোবিলাইজেশন, নলেজ ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড কমিউনিকেশন ডেপুটি ডিরেক্টর শাহরিয়ার আলম।

চুক্তি অনুসারে ইউসেপ বাংলাদেশের নির্দিষ্ট সংখ্যক শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রমের জন্য এক বছর মেয়াদি ফ্রি ডেটা পাবেন। চালু করার দিন থেকে এক বছর পর্যন্ত এই ডেটার মেয়াদ থাকবে।

ইউসেপ বাংলাদেশের নির্বাহী পরিচালক মো. আব্দুল করিম বলেন, ‘শিক্ষাক্ষেত্রের বৈষম্য দূর করার লক্ষ্যে ইউসেপ বাংলাদেশ সুবিধাবঞ্চিত শিশু ও কিশোরদের শিক্ষা লাভের সুযোগ তৈরি করছে।

অনলাইন ক্লাসের মাধ্যমে আমাদের শিক্ষার্থীদের পড়ালেখা নিশ্চিত করতে আমরা ই-স্টাডি মডেল গ্রহণ করেছি এবং এখনও ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের সাহায্যে তা চালিয়ে যাচ্ছি। এই উদ্যোগের জন্য আমরা বাংলালিংককে ধন্যবাদ জানাতে চাই। আমি মনে করি, আমাদের শিক্ষক ও ছাত্র-ছাত্রীরা উভয়ই এর মাধ্যমে উপকৃত হবেন। ’ সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

মঙ্গলবার, ২৮ ডিসেম্বর ২০২১ , ১৮ পৌষ ১৪২৮ ২৩ জমাদিউল আউয়াল

বাংলালিংক ও ইউসেপ বাংলাদেশ এর মধ্যে সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষরিত

image

ডিজিটাল সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান বাংলালিংক সম্প্রতি ইউসেপ (আন্ডারপ্রিভিলেজ চিলড্রেন এডুকেশন প্রোগ্রামস্) বাংলাদেশ-এর সঙ্গে একটি সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর করেছে। এই উদ্যোগের ফলে ইউসেপ জেনারেল স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষিকা ও ছাত্রছাত্রীরা ডিজিটাল লার্নিং ও নতুন ‘ই-স্টাডি গ্রুপ’ মডেলের জন্য বাংলালিংক এর ফ্রি ডেটা ব্যবহার করতে পারবে।

বাংলালিংকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এরিক অস ও ইউসেপ বাংলাদেশের নির্বাহী পরিচালক মো. আব্দুল করিম নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে সমঝোতা চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলালিংকের চিফ কর্পোরেট অ্যান্ড রেগুলেটরি অ্যাফেয়ার্স অফিসার তাইমুর রহমান, হেড অফ করপোরেট কমিউনিকেশনস অ্যান্ড সাস্টেইনেবিলিটি আংকিত সুরেকা, হেড অফ এথিকস অ্যান্ড কমপ্ল্যায়েন্স অ্যান্ড এএমএল প্রোগ্রাম মোহাম্মদ আদিল হোসেন, ইউসেপ বাংলাদেশের ফিন্যান্স অ্যান্ড কমপ্ল্যায়েন্স ডিরেক্টর নাজমুন নাহার এবং রিসোর্স মোবিলাইজেশন, নলেজ ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড কমিউনিকেশন ডেপুটি ডিরেক্টর শাহরিয়ার আলম।

চুক্তি অনুসারে ইউসেপ বাংলাদেশের নির্দিষ্ট সংখ্যক শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রমের জন্য এক বছর মেয়াদি ফ্রি ডেটা পাবেন। চালু করার দিন থেকে এক বছর পর্যন্ত এই ডেটার মেয়াদ থাকবে।

ইউসেপ বাংলাদেশের নির্বাহী পরিচালক মো. আব্দুল করিম বলেন, ‘শিক্ষাক্ষেত্রের বৈষম্য দূর করার লক্ষ্যে ইউসেপ বাংলাদেশ সুবিধাবঞ্চিত শিশু ও কিশোরদের শিক্ষা লাভের সুযোগ তৈরি করছে।

অনলাইন ক্লাসের মাধ্যমে আমাদের শিক্ষার্থীদের পড়ালেখা নিশ্চিত করতে আমরা ই-স্টাডি মডেল গ্রহণ করেছি এবং এখনও ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের সাহায্যে তা চালিয়ে যাচ্ছি। এই উদ্যোগের জন্য আমরা বাংলালিংককে ধন্যবাদ জানাতে চাই। আমি মনে করি, আমাদের শিক্ষক ও ছাত্র-ছাত্রীরা উভয়ই এর মাধ্যমে উপকৃত হবেন। ’ সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।