সাপ্তাহিক আগ্রহের শীর্ষে বিএসসি, অনাগ্রহে সোনালী পেপার

গত সপ্তাহে প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেনে অংশ নেয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ২৮৬টির বা ৭৪.৮৭ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে। সপ্তাহটিতে বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশনের (বিএসসি) শেয়ারের প্রতি বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ ছিল সবচেয়ে বেশি। এছাড়া অনাগ্রহের তালিকার শীর্ষে ছিল সোনালী পেপার। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

আগের সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস লেনদেন শেষে বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশনের শেয়ারের ক্লোজিং দর ছিল ৭১.৯০ টাকায়। আর গত সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস লেনদেন শেষে এর শেয়ারের ক্লোজিং দর দাঁড়ায় ১০৪.৬০ টাকায়। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে কোম্পানিটির শেয়ার দর ৩২.৭০ টাকা বা ৪৫.৪৮ শতাংশ বেড়েছে। এর মাধ্যমে বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশন ডিএসইর সাপ্তাহিক টপটেন গেইনার তালিকার শীর্ষে উঠে আসে।

ডিএসইতে সাপ্তাহিক টপটেন গেইনার তালিকায় উঠে আসা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে লাভেলো আইস্ক্রিমের ২৯.৭৬ শতাংশ, ফারইস্ট ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্সের ২৭.১৯ শতাংশ, ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ডের ২৩.৩৬ শতাংশ, এস আলমের ২০.৬৩ শতাংশ, ফরচুন সুজের ২০.০৯ শতাংশ, বসুন্ধরা পেপারের ১৮.৭৯ শতাংশ, ইজেনারেশনের ১৭.৬৮ শতাংশ, কপারটেকের ১৭.৫৬ শতাংশ এবং পাওয়ার গ্রীডের শেয়ার দর ১৬.৯৫ শতাংশ বেড়েছে।

গত সপ্তাহে ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ৮৬টির বা ২২.৫১ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর কমেছে। সপ্তাহটিতে সোনালী পেপারের শেয়ারের প্রতি বিনিয়োগকারীদের অনাগ্রহ ছিল সবচেয়ে বেশি।

আগের সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস লেনদেন শেষে সোনালী পেপারের শেয়ারের ক্লোজিং দর ছিল ৯৫৭.৭০ টাকায়। আর গত সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস লেনদেন শেষে এর শেয়ারের ক্লোজিং দর দাঁড়ায় ৭৬১.১০ টাকায়। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে কোম্পানিটির শেয়ার দর ১৯৬.৬০ টাকা বা ২০.৫৩ শতাংশ কমেছে। এর মাধ্যমে সোনালী পেপার ডিএসইর সাপ্তাহিক টপটেন লুজার তালিকার শীর্ষে উঠে আসে।

ডিএসইতে সাপ্তাহিক টপটেন লুজার তালিকায় উঠে আসা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে এটলাস বাংলাদেশের ১৪.২৪ শতাংশ, এশিয়া ইন্স্যুরেন্সের ৯.৯১ শতাংশ, এএমসিএলের (প্রাণ) ৯.২০ শতাংশ, রেনউইক যজ্ঞেশ্বরের ৮.৬৮ শতাংশ, লিবরা ইনফিউশনের ৮.১২ শতাংশ, ইস্টার্ন ইন্স্যুরেন্সের ৭.৮২ শতাংশ, আইবিবিএল মুদারাবা পার্পেচ্যুয়াল বন্ডের ৬.৩৯ শতাংশ, বাটা সু’র ৬.২৫ শতাংশ এবং বিচ হ্যাচারির শেয়ার দর ৬.১২ শতাংশ কমেছে।

এছাড়া গত সপ্তাহে ডিএসইতে ৬ হাজার ৪৮৮ কোটি ১৫ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। যার ৩৩ শতাংশের বেশি হয়েছে মাত্র ১০ কোম্পানির শেয়ারে। গত সপ্তাহে ৩৮২ কোম্পানির সিকিউরিটিজ লেনদেন হয়েছে। এরমধ্যে গত সপ্তাহের মোট লেনদেনের ৩৩.৪৬ শতাংশ হয়েছে ১০ কোম্পানির শেয়ারে।

রবিবার, ০৯ জানুয়ারী ২০২২ , ২৫ পৌষ ১৪২৮ ৫ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

সাপ্তাহিক আগ্রহের শীর্ষে বিএসসি, অনাগ্রহে সোনালী পেপার

গত সপ্তাহে প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেনে অংশ নেয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ২৮৬টির বা ৭৪.৮৭ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে। সপ্তাহটিতে বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশনের (বিএসসি) শেয়ারের প্রতি বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ ছিল সবচেয়ে বেশি। এছাড়া অনাগ্রহের তালিকার শীর্ষে ছিল সোনালী পেপার। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

আগের সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস লেনদেন শেষে বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশনের শেয়ারের ক্লোজিং দর ছিল ৭১.৯০ টাকায়। আর গত সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস লেনদেন শেষে এর শেয়ারের ক্লোজিং দর দাঁড়ায় ১০৪.৬০ টাকায়। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে কোম্পানিটির শেয়ার দর ৩২.৭০ টাকা বা ৪৫.৪৮ শতাংশ বেড়েছে। এর মাধ্যমে বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশন ডিএসইর সাপ্তাহিক টপটেন গেইনার তালিকার শীর্ষে উঠে আসে।

ডিএসইতে সাপ্তাহিক টপটেন গেইনার তালিকায় উঠে আসা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে লাভেলো আইস্ক্রিমের ২৯.৭৬ শতাংশ, ফারইস্ট ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্সের ২৭.১৯ শতাংশ, ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ডের ২৩.৩৬ শতাংশ, এস আলমের ২০.৬৩ শতাংশ, ফরচুন সুজের ২০.০৯ শতাংশ, বসুন্ধরা পেপারের ১৮.৭৯ শতাংশ, ইজেনারেশনের ১৭.৬৮ শতাংশ, কপারটেকের ১৭.৫৬ শতাংশ এবং পাওয়ার গ্রীডের শেয়ার দর ১৬.৯৫ শতাংশ বেড়েছে।

গত সপ্তাহে ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ৮৬টির বা ২২.৫১ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর কমেছে। সপ্তাহটিতে সোনালী পেপারের শেয়ারের প্রতি বিনিয়োগকারীদের অনাগ্রহ ছিল সবচেয়ে বেশি।

আগের সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস লেনদেন শেষে সোনালী পেপারের শেয়ারের ক্লোজিং দর ছিল ৯৫৭.৭০ টাকায়। আর গত সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস লেনদেন শেষে এর শেয়ারের ক্লোজিং দর দাঁড়ায় ৭৬১.১০ টাকায়। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে কোম্পানিটির শেয়ার দর ১৯৬.৬০ টাকা বা ২০.৫৩ শতাংশ কমেছে। এর মাধ্যমে সোনালী পেপার ডিএসইর সাপ্তাহিক টপটেন লুজার তালিকার শীর্ষে উঠে আসে।

ডিএসইতে সাপ্তাহিক টপটেন লুজার তালিকায় উঠে আসা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে এটলাস বাংলাদেশের ১৪.২৪ শতাংশ, এশিয়া ইন্স্যুরেন্সের ৯.৯১ শতাংশ, এএমসিএলের (প্রাণ) ৯.২০ শতাংশ, রেনউইক যজ্ঞেশ্বরের ৮.৬৮ শতাংশ, লিবরা ইনফিউশনের ৮.১২ শতাংশ, ইস্টার্ন ইন্স্যুরেন্সের ৭.৮২ শতাংশ, আইবিবিএল মুদারাবা পার্পেচ্যুয়াল বন্ডের ৬.৩৯ শতাংশ, বাটা সু’র ৬.২৫ শতাংশ এবং বিচ হ্যাচারির শেয়ার দর ৬.১২ শতাংশ কমেছে।

এছাড়া গত সপ্তাহে ডিএসইতে ৬ হাজার ৪৮৮ কোটি ১৫ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। যার ৩৩ শতাংশের বেশি হয়েছে মাত্র ১০ কোম্পানির শেয়ারে। গত সপ্তাহে ৩৮২ কোম্পানির সিকিউরিটিজ লেনদেন হয়েছে। এরমধ্যে গত সপ্তাহের মোট লেনদেনের ৩৩.৪৬ শতাংশ হয়েছে ১০ কোম্পানির শেয়ারে।