৪.৫ জি ইন্টারনেটের মান আরও উন্নত করল রবি

দেশজুড়ে গ্রাহকদের ইন্টারনেট ব্যবহারের অভিজ্ঞতা আরো উন্নত করতে সম্প্রতি উল্লেখযোগ্য একটি নেটওয়ার্ক আপগ্রেডেশন প্রকল্প সম্পন্ন করেছে রবি। এই উদ্যোগের মাধ্যমে উন্নত ইনডোর কভারেজ নিশ্চিত করতে দেশে সর্বাধিক সংখ্যক এল৯০০ সাইট স্থাপন করা হয়েছে। অন্যদিকে আউটডোরে গ্রাহকদের অভিজ্ঞতা আরো স্বাচ্ছন্দ্যময় করতে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক এল২১০০ ফোরজি সাইট স্থাপন করেছে অপারেটরটি।

নেটওয়ার্ক আপগ্রেডেশন প্রকল্পটি দেশজুড়ে সম্পন্ন করার পাশাপাশি সিলেট ও ময়মনসিংহ বিভাগে ৪.৫জি নেটওয়ার্ক কভারেজ সম্প্রসারণ করতে বিশেষ গুরুত্ব দিয়েছে অপারেটরটি। ক্রমবর্ধমান ডাটা ব্যবহারের প্রয়োজনীয়তা বিবেচনা করে সকল অপারেটরের মধ্যে শুধু রবি ১৮০০ মেগাহার্জ স্পেকট্রামে সর্বোচ্চ পরিমাণ ব্যান্ডউইথ (২০ মেগাহার্জ) স্থাপন করেছে।

২০২১ সালের মাঝামাঝি থেকে রবি ফোরজি হ্যান্ডসেটের জন্য ৩০ থেকে ৩৫ মেগাহার্টজ ব্যান্ডউইথ বরাদ্দ করেছে যা একাধিক স্পেকট্রাম ব্যান্ড থেকে ডাটা ব্যবহার করতে পারবে। এর ফলে ফোরজি স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের ইন্টারনেট ব্যবহারের অভিজ্ঞতা আরো উন্নত হওয়ার পাশাপাশি ডাটার গতি ৩০-৩৫ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে।

রবি’র চিফ কমার্শিয়াল অফিসার শিহাব আহমেদ বলেন, “গ্রাহকদের লাইফে নতুন এক্সপেরিয়েন্স প্রদানে আমাদের প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে মূল চাবিকাঠি হল বিশ^মানের ইন্টারনেট সুবিধা প্রদান। এরই ধারাবাহিকতায় নেটওয়ার্ক আপগ্রেডেশন গ্রাহকদের কাছে আমাদের প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নেরই প্রতিফলন। ডাটা মার্কেট শেয়ারে অসাধারণ অগ্রগতির পাশাপাশি ৩০ মিলিয়ন ডাটা ব্যবহারকারী সঙ্গে নিয়ে ২০২১ সাল শেষ করছি আমরা যার মধ্যে সিংহভাগই ৪.৫জি ডাটা ব্যবহারকারী।”

ডুয়েল-ব্যান্ড উপযোগী ফোরটিফোরআর রেডিও ব্যবহারের মাধ্যমে সর্বোত্তম ডাটা সেবা নিশ্চিত করতে রবি’র রয়েছে অত্যাধুনিক হার্ডওয়্যার। মালয়েশিয়া, চীন, জাপান, থাইল্যান্ডসহ বিভিন্ন দেশের অপারেটররা এই প্রযুক্তিটি ব্যাবহার করছে। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

রবিবার, ০৯ জানুয়ারী ২০২২ , ২৫ পৌষ ১৪২৮ ৫ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

৪.৫ জি ইন্টারনেটের মান আরও উন্নত করল রবি

image

দেশজুড়ে গ্রাহকদের ইন্টারনেট ব্যবহারের অভিজ্ঞতা আরো উন্নত করতে সম্প্রতি উল্লেখযোগ্য একটি নেটওয়ার্ক আপগ্রেডেশন প্রকল্প সম্পন্ন করেছে রবি। এই উদ্যোগের মাধ্যমে উন্নত ইনডোর কভারেজ নিশ্চিত করতে দেশে সর্বাধিক সংখ্যক এল৯০০ সাইট স্থাপন করা হয়েছে। অন্যদিকে আউটডোরে গ্রাহকদের অভিজ্ঞতা আরো স্বাচ্ছন্দ্যময় করতে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক এল২১০০ ফোরজি সাইট স্থাপন করেছে অপারেটরটি।

নেটওয়ার্ক আপগ্রেডেশন প্রকল্পটি দেশজুড়ে সম্পন্ন করার পাশাপাশি সিলেট ও ময়মনসিংহ বিভাগে ৪.৫জি নেটওয়ার্ক কভারেজ সম্প্রসারণ করতে বিশেষ গুরুত্ব দিয়েছে অপারেটরটি। ক্রমবর্ধমান ডাটা ব্যবহারের প্রয়োজনীয়তা বিবেচনা করে সকল অপারেটরের মধ্যে শুধু রবি ১৮০০ মেগাহার্জ স্পেকট্রামে সর্বোচ্চ পরিমাণ ব্যান্ডউইথ (২০ মেগাহার্জ) স্থাপন করেছে।

২০২১ সালের মাঝামাঝি থেকে রবি ফোরজি হ্যান্ডসেটের জন্য ৩০ থেকে ৩৫ মেগাহার্টজ ব্যান্ডউইথ বরাদ্দ করেছে যা একাধিক স্পেকট্রাম ব্যান্ড থেকে ডাটা ব্যবহার করতে পারবে। এর ফলে ফোরজি স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের ইন্টারনেট ব্যবহারের অভিজ্ঞতা আরো উন্নত হওয়ার পাশাপাশি ডাটার গতি ৩০-৩৫ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে।

রবি’র চিফ কমার্শিয়াল অফিসার শিহাব আহমেদ বলেন, “গ্রাহকদের লাইফে নতুন এক্সপেরিয়েন্স প্রদানে আমাদের প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে মূল চাবিকাঠি হল বিশ^মানের ইন্টারনেট সুবিধা প্রদান। এরই ধারাবাহিকতায় নেটওয়ার্ক আপগ্রেডেশন গ্রাহকদের কাছে আমাদের প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নেরই প্রতিফলন। ডাটা মার্কেট শেয়ারে অসাধারণ অগ্রগতির পাশাপাশি ৩০ মিলিয়ন ডাটা ব্যবহারকারী সঙ্গে নিয়ে ২০২১ সাল শেষ করছি আমরা যার মধ্যে সিংহভাগই ৪.৫জি ডাটা ব্যবহারকারী।”

ডুয়েল-ব্যান্ড উপযোগী ফোরটিফোরআর রেডিও ব্যবহারের মাধ্যমে সর্বোত্তম ডাটা সেবা নিশ্চিত করতে রবি’র রয়েছে অত্যাধুনিক হার্ডওয়্যার। মালয়েশিয়া, চীন, জাপান, থাইল্যান্ডসহ বিভিন্ন দেশের অপারেটররা এই প্রযুক্তিটি ব্যাবহার করছে। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।