সিসিইউ থেকে কেবিনে খালেদা জিয়া

বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে বসুন্ধরার এভারকেয়ার হাসপাতালে ক্রিটিক্যাল কেয়ার ইউনিট (সিসিইউ) থেকে কেবিনে স্থানান্তর করা হয়েছে। রোববার রাত ৮টার পরে খালেদাকে কেবিনে নেয়া হয়েছে। তার অন্যতম চিকিৎসক ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেনÑএ কথা জানিয়ে বলেন, ম্যাডামকে মেডিকেল বোর্ডের সুপারিশে সিসিইউ থেকে কেবিনে স্থানান্তর করা হয়েছে। কেবিনে সিসিইউয়ের সব সুবিধা রাখা হয়েছে এবং সিসিইউ-এর নার্সরা কেবিনে ম্যাডামের সেবায় নিয়োজিত থাকছেন।

প্রসঙ্গত, গত ১৩ নভেম্বর এভারকেয়ার হাসপাতালের কেবিনে ভর্তির পরদিনই লিভার সিরোসিসে আক্রান্ত খালেদা জিয়ার অবস্থার অবনতি হলে দ্রুতই তাকে সিসিইউতে নিয়ে যাওয়া হয়। প্রায় ৫৭ দিন পর তাকে আবার কেবিনে নিয়ে আসা হলো।

জানা গেছে, এভারকেয়ার হাসপাতালের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক অধ্যাপক শাহাবুদ্দিন তালুকদারের নেতৃত্বে ১০ সদস্যের একটি মেডিকেল বোর্ড সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার এই দুরারোগ্য রোগের চিকিৎসায় নিয়োজিত আছে। তারা ইতোমধ্যে তাকে বিদেশে উন্নত চিকিৎসার জন্য পাঠানোর সুপারিশ করেছে। ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন জানিয়েছেন, তার (খালেদা জিয়া) শারীরিক অবস্থার কোন উন্নতি হয়নি। তার অবস্থা আগের মতোই আছে। সবগুলো প্যারামিটার আগে মতোই উঠানামা করছে।

মঙ্গলবার, ১১ জানুয়ারী ২০২২ , ২৭ পৌষ ১৪২৮ ৭ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

সিসিইউ থেকে কেবিনে খালেদা জিয়া

বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে বসুন্ধরার এভারকেয়ার হাসপাতালে ক্রিটিক্যাল কেয়ার ইউনিট (সিসিইউ) থেকে কেবিনে স্থানান্তর করা হয়েছে। রোববার রাত ৮টার পরে খালেদাকে কেবিনে নেয়া হয়েছে। তার অন্যতম চিকিৎসক ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেনÑএ কথা জানিয়ে বলেন, ম্যাডামকে মেডিকেল বোর্ডের সুপারিশে সিসিইউ থেকে কেবিনে স্থানান্তর করা হয়েছে। কেবিনে সিসিইউয়ের সব সুবিধা রাখা হয়েছে এবং সিসিইউ-এর নার্সরা কেবিনে ম্যাডামের সেবায় নিয়োজিত থাকছেন।

প্রসঙ্গত, গত ১৩ নভেম্বর এভারকেয়ার হাসপাতালের কেবিনে ভর্তির পরদিনই লিভার সিরোসিসে আক্রান্ত খালেদা জিয়ার অবস্থার অবনতি হলে দ্রুতই তাকে সিসিইউতে নিয়ে যাওয়া হয়। প্রায় ৫৭ দিন পর তাকে আবার কেবিনে নিয়ে আসা হলো।

জানা গেছে, এভারকেয়ার হাসপাতালের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক অধ্যাপক শাহাবুদ্দিন তালুকদারের নেতৃত্বে ১০ সদস্যের একটি মেডিকেল বোর্ড সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার এই দুরারোগ্য রোগের চিকিৎসায় নিয়োজিত আছে। তারা ইতোমধ্যে তাকে বিদেশে উন্নত চিকিৎসার জন্য পাঠানোর সুপারিশ করেছে। ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন জানিয়েছেন, তার (খালেদা জিয়া) শারীরিক অবস্থার কোন উন্নতি হয়নি। তার অবস্থা আগের মতোই আছে। সবগুলো প্যারামিটার আগে মতোই উঠানামা করছে।