ফেনীবাসীদের মুগ্ধ করলেন তারা

১০ জানুয়ারি ছিল বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস। দিবসটিকে উপলক্ষে করে সেদিন সন্ধ্যায় ফেনী পাইলট মাঠে মেয়র স্বপন মিয়াজীর উদ্যোগে ফেনীবাসীদের বিনোদন ও আনন্দ দিতে বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। মুজিববর্ষ, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী, বিজয়ের সুবর্ণজয়ন্তী, নতুন বছর আর বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসের বিশেষ এই আয়োজনে ইভান শাহরিয়ার সোহাগের কোরিওগ্রাফিতে সফর তারকা দম্পতি ওমর সানী-মৌসুমী ও সিনেমার নন্দিত জুটি ফেরদৌস-পূর্ণিমা এই আয়োজনে গানে গানে উপস্থিত দর্শকের মাঝে মুগ্ধতা ছড়ান। মঞ্চে উঠার আগেই ফেনীসহ আশেপাশের সব এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে যে সেদিন সন্ধ্যায় গানে গানে পারফর্ম করবেন তারা। তা-ই সেই অনুষ্ঠান উপভোগ করার জন্য আশেপাশের লোকজন অনুষ্ঠানে ছুটে আসেন। শুরুতেই মঞ্চে উঠেন ফেরদৌস-পূর্ণিমা। দর্শকের মাঝে তখন উচ্ছ্বাস ছড়িয়ে পড়ে। তাদের অনবদ্য পারফরম্যান্সে মুগ্ধ হন দর্শক। এরপর মঞ্চে উঠেন ওমর সানী-মৌসুমী। দুজনের অভিনীত সিনেমার জনপ্রিয় গানগুলোর পারফরম্যান্সেও মুগ্ধতা ছড়ান। এমন বর্ণাঢ্য আয়োজনে অংশ নেয়া প্রসঙ্গে ওমর সানী বলেন, ‘বেশ কয়েকবছর পর এতো এতো দর্শকের সমাগম দেখতে পেলাম। সত্যিই দর্শকের উচ্ছ্বাস দেখে মুগ্ধ হয়েছি, আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েছি।’ প্রিয়দর্শিনী মৌসুমী বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে তার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে এই আয়োজন ছিল সত্যিই অসাধারণ। অনেকদিন পর এমন একটি জমকালো অনুষ্ঠানে আমরা একত্রে পারফর্ম করেছি।’

ফেরদৌস আহমেদ বলেন,‘ অনেকদিন পর এক মঞ্চে আমরা’সহ আরো ছিলেন জেমস ভাই, হাসান ভাই সহ কয়েকজন অভিনেতা। মাননীয় এমপি মহোদয় নিজাম হাজারী ভাইকেও ধন্যবাদ এমন আয়োজনের জন্য।’ পূর্ণিমা বলেন, ‘এক কথায় সব মিলিয়ে এতো দর্শকের উপস্থিতি এবং আমাদের পারফরম্যান্সের কারণে তাদের মাঝে মুগ্ধতা দেখে সত্যিই মনটা ভরে গিয়েছিল।’

বুধবার, ১২ জানুয়ারী ২০২২ , ২৮ পৌষ ১৪২৮ ৮ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

ফেনীবাসীদের মুগ্ধ করলেন তারা

image

১০ জানুয়ারি ছিল বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস। দিবসটিকে উপলক্ষে করে সেদিন সন্ধ্যায় ফেনী পাইলট মাঠে মেয়র স্বপন মিয়াজীর উদ্যোগে ফেনীবাসীদের বিনোদন ও আনন্দ দিতে বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। মুজিববর্ষ, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী, বিজয়ের সুবর্ণজয়ন্তী, নতুন বছর আর বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসের বিশেষ এই আয়োজনে ইভান শাহরিয়ার সোহাগের কোরিওগ্রাফিতে সফর তারকা দম্পতি ওমর সানী-মৌসুমী ও সিনেমার নন্দিত জুটি ফেরদৌস-পূর্ণিমা এই আয়োজনে গানে গানে উপস্থিত দর্শকের মাঝে মুগ্ধতা ছড়ান। মঞ্চে উঠার আগেই ফেনীসহ আশেপাশের সব এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে যে সেদিন সন্ধ্যায় গানে গানে পারফর্ম করবেন তারা। তা-ই সেই অনুষ্ঠান উপভোগ করার জন্য আশেপাশের লোকজন অনুষ্ঠানে ছুটে আসেন। শুরুতেই মঞ্চে উঠেন ফেরদৌস-পূর্ণিমা। দর্শকের মাঝে তখন উচ্ছ্বাস ছড়িয়ে পড়ে। তাদের অনবদ্য পারফরম্যান্সে মুগ্ধ হন দর্শক। এরপর মঞ্চে উঠেন ওমর সানী-মৌসুমী। দুজনের অভিনীত সিনেমার জনপ্রিয় গানগুলোর পারফরম্যান্সেও মুগ্ধতা ছড়ান। এমন বর্ণাঢ্য আয়োজনে অংশ নেয়া প্রসঙ্গে ওমর সানী বলেন, ‘বেশ কয়েকবছর পর এতো এতো দর্শকের সমাগম দেখতে পেলাম। সত্যিই দর্শকের উচ্ছ্বাস দেখে মুগ্ধ হয়েছি, আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েছি।’ প্রিয়দর্শিনী মৌসুমী বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে তার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে এই আয়োজন ছিল সত্যিই অসাধারণ। অনেকদিন পর এমন একটি জমকালো অনুষ্ঠানে আমরা একত্রে পারফর্ম করেছি।’

ফেরদৌস আহমেদ বলেন,‘ অনেকদিন পর এক মঞ্চে আমরা’সহ আরো ছিলেন জেমস ভাই, হাসান ভাই সহ কয়েকজন অভিনেতা। মাননীয় এমপি মহোদয় নিজাম হাজারী ভাইকেও ধন্যবাদ এমন আয়োজনের জন্য।’ পূর্ণিমা বলেন, ‘এক কথায় সব মিলিয়ে এতো দর্শকের উপস্থিতি এবং আমাদের পারফরম্যান্সের কারণে তাদের মাঝে মুগ্ধতা দেখে সত্যিই মনটা ভরে গিয়েছিল।’