তীব্র বিস্ফোরণে কাঁপল হিজবুল্লাহর ভবন

লেবাননের প্রতিরোধ আন্দোলন হিজবুল্লাহর ব্যবহৃত একটি ভবনে শক্তিশালী বিস্ফোরণ ঘটেছে। দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় নাবাতিহ জেলায় অবস্থিত ভবনটিতে সংঘটিত বিস্ফোরণে কেউ হতাহত হয়েছে কি না তা স্পষ্ট নয়। হিজবুল্লাহ কোনো মন্তব্য করেনি এ বিষয়ে।

তুরস্কের সরকারি বার্তা সংস্থা আনাদুলু এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, গতকাল বৃহস্পতিবার হিজবুল্লাহ হাউমিন এল-ফাউকা শহরের ওই ভবনটি সামাজিক পরিষেবা অফিস হিসেবে ব্যবহার করতো। বিস্ফোরণে ভবনটিসহ আশপাশের অবকাঠামো ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় মিডিয়া আউটলেটগুলোতে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওর বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভবনটি থেকে ঘন ধোঁয়া এবং অগ্নিশিখা বের হতে দেখা গেছে। বিস্ফোরণের পর হিজবুল্লাহর কর্মকর্তারা তাৎক্ষণিকভাবে এলাকাটি বন্ধ করে দেয়। পাশপাশি উদ্ধারকারী পরিষেবা সংস্থা বিস্ফোরণের ফলে ছড়িয়ে পড়া আগুন নিভিয়ে ফেলে।

প্রাথমিক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিস্ফোরণে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। বিস্ফোরণের কারণ সম্পর্কে স্পষ্ট কিছু জানা যায়নি। এই ঘটনার বিষয়ে এখনও কোনো মন্তব্য করেনি হিজবুল্লাহ।

শনিবার, ১৫ জানুয়ারী ২০২২ , ০১ মাঘ ১৪২৮ ১১ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

তীব্র বিস্ফোরণে কাঁপল হিজবুল্লাহর ভবন

লেবাননের প্রতিরোধ আন্দোলন হিজবুল্লাহর ব্যবহৃত একটি ভবনে শক্তিশালী বিস্ফোরণ ঘটেছে। দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় নাবাতিহ জেলায় অবস্থিত ভবনটিতে সংঘটিত বিস্ফোরণে কেউ হতাহত হয়েছে কি না তা স্পষ্ট নয়। হিজবুল্লাহ কোনো মন্তব্য করেনি এ বিষয়ে।

তুরস্কের সরকারি বার্তা সংস্থা আনাদুলু এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, গতকাল বৃহস্পতিবার হিজবুল্লাহ হাউমিন এল-ফাউকা শহরের ওই ভবনটি সামাজিক পরিষেবা অফিস হিসেবে ব্যবহার করতো। বিস্ফোরণে ভবনটিসহ আশপাশের অবকাঠামো ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় মিডিয়া আউটলেটগুলোতে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওর বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভবনটি থেকে ঘন ধোঁয়া এবং অগ্নিশিখা বের হতে দেখা গেছে। বিস্ফোরণের পর হিজবুল্লাহর কর্মকর্তারা তাৎক্ষণিকভাবে এলাকাটি বন্ধ করে দেয়। পাশপাশি উদ্ধারকারী পরিষেবা সংস্থা বিস্ফোরণের ফলে ছড়িয়ে পড়া আগুন নিভিয়ে ফেলে।

প্রাথমিক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিস্ফোরণে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। বিস্ফোরণের কারণ সম্পর্কে স্পষ্ট কিছু জানা যায়নি। এই ঘটনার বিষয়ে এখনও কোনো মন্তব্য করেনি হিজবুল্লাহ।