ঈদের ছুটি শেষে খুলতে শুরু করেছে তৈরি পোশাক কারখানা

ঈদের এক সপ্তাহ ছুটির শেষে গতকাল থেকে খুলতে শুরু করেছে শিল্পকারখানা। ইতোমধ্যে কাজে যোগ দিয়েছেন অধিকাংশ কারখানার শ্রমিকরা। তবে বাড়তি ছুটি পাওয়ায় এখনও অনেক শ্রমিক কর্মস্থলের বাইরে আছেন। তাই আশা করা যাচ্ছে, গতকাল, আজ ও মঙ্গলবার থেকে পুরোদমে কারখানায় কাজ শুরু হওয়ার কথা।

এ বিষয়ে তৈরি পোশাক মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএর পরিচালক মহিউদ্দিন রুবেল গণমাধ্যমকে বলেন, ‘ঈদের ছুটি শেষে আজ থেকে আমাদের কোম্পানিসহ অধিকাংশ পোশাক কারখানায় কাজ শুরু হয়েছে। বেশকিছু কারখানা প্রয়োজন অনুসারে শ্রমিকদের ছুটি একটু বেশি দিয়েছিল। তারা পর্যায়ক্রমে আগামীকাল বা পরশু থেকে কারখানা খুলতে শুরু করবে। অনেকগুলো গার্মেন্টস ১০ থেকে ১৫ দিন পর্যন্ত ছুটি দিয়েছে শ্রমিকদের। সরকারি ও সাপ্তাহিক ছুটির পর আজ কিছু গার্মেন্টসে উৎপাদন শুরু হয়েছে। আগামী ৩-৪ দিনের মধ্যে সব কারখানায় কাজ শুরু হবে। যেসব কারখানায় শিপমেন্টের চাপ ছিল সেগুলো খুলে দেয়া হয়েছে। আর যেগুলোতে চাপ কম সেগুলো আরও দুই-তিন দিন পর খুলবে।’

এদিকে ছুটি শেষে কর্মস্থলে যোগ দিতে বাস, লঞ্চ ও ট্রেনের পাশাপাশি দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে ট্রাকে করে শ্রমিকরা ঢাকা, গাজীপুর, আশুলিয়া, সাভার এবং নারায়ণগঞ্জে ফিরছেন। এই সুযোগে বাস-ট্রাক মালিকরা যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়াও আদায় করছেন।

রবিবার, ০৮ মে ২০২২ , ২৪ বৈশাখ ১৪২৮ ০৫ শাওয়াল ১৪৪৩

ঈদের ছুটি শেষে খুলতে শুরু করেছে তৈরি পোশাক কারখানা

image

ঈদের এক সপ্তাহ ছুটির শেষে গতকাল থেকে খুলতে শুরু করেছে শিল্পকারখানা। ইতোমধ্যে কাজে যোগ দিয়েছেন অধিকাংশ কারখানার শ্রমিকরা। তবে বাড়তি ছুটি পাওয়ায় এখনও অনেক শ্রমিক কর্মস্থলের বাইরে আছেন। তাই আশা করা যাচ্ছে, গতকাল, আজ ও মঙ্গলবার থেকে পুরোদমে কারখানায় কাজ শুরু হওয়ার কথা।

এ বিষয়ে তৈরি পোশাক মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএর পরিচালক মহিউদ্দিন রুবেল গণমাধ্যমকে বলেন, ‘ঈদের ছুটি শেষে আজ থেকে আমাদের কোম্পানিসহ অধিকাংশ পোশাক কারখানায় কাজ শুরু হয়েছে। বেশকিছু কারখানা প্রয়োজন অনুসারে শ্রমিকদের ছুটি একটু বেশি দিয়েছিল। তারা পর্যায়ক্রমে আগামীকাল বা পরশু থেকে কারখানা খুলতে শুরু করবে। অনেকগুলো গার্মেন্টস ১০ থেকে ১৫ দিন পর্যন্ত ছুটি দিয়েছে শ্রমিকদের। সরকারি ও সাপ্তাহিক ছুটির পর আজ কিছু গার্মেন্টসে উৎপাদন শুরু হয়েছে। আগামী ৩-৪ দিনের মধ্যে সব কারখানায় কাজ শুরু হবে। যেসব কারখানায় শিপমেন্টের চাপ ছিল সেগুলো খুলে দেয়া হয়েছে। আর যেগুলোতে চাপ কম সেগুলো আরও দুই-তিন দিন পর খুলবে।’

এদিকে ছুটি শেষে কর্মস্থলে যোগ দিতে বাস, লঞ্চ ও ট্রেনের পাশাপাশি দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে ট্রাকে করে শ্রমিকরা ঢাকা, গাজীপুর, আশুলিয়া, সাভার এবং নারায়ণগঞ্জে ফিরছেন। এই সুযোগে বাস-ট্রাক মালিকরা যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়াও আদায় করছেন।