রাজধানীর সড়কে বাস কেড়ে নিল বৃদ্ধের প্রাণ

রাজধানীর কলবাগানে বাসের ধাক্কায় উজির আহমেদ (৭২) নামে এক বৃদ্ধ নিহত হয়েছে। পেশায় তিনি একজন ফুচকা বিক্রেতা। গতকাল সকাল ৬টায় এ দুর্ঘটনাটি ঘটে। নিহতের ছেলে মো. আবদুল মাজেদ আহমেদ জানান, গতকাল সকালে বাসা থেকে আমার ভাগনেকে মোহাম্মদপুরে একটি মাদ্রাসায় ভর্তি করানোর উদ্দেশ্যে বাবা ও আমার বোন কলাবাগানে স্ট্যান্ডে দাঁড়িয়ে সিএনজি চালিত অটোরিকশা ঠিক করছিলেন। সে সময় দুর্ঘটনার শিকার হয়।

তিনি বলেন, সকালে কলাবাগান স্টাফ কোয়ার্টার ভাড়া বাসা থেকে বের হন তিনি। রাস্তায় আনোয়ার খান মর্ডান হাসপাতালের পাশে স্টাফ কোয়ার্টার ২নং গেটের সামনে সিএনজি (অটোরিকশা) দাঁড় করিয়ে ভাড়া ঠিক করছিলেন। এ সময়ের সাভার থেকে ছেড়ে আসা গুলিস্তানগামী যাত্রীবাহী সাভার পরিবহনের একটি বাস সজোরে সিএনজি অটোরিকশাসহ তার বাবাকে ধাক্কা দিলে রাস্তায় ছিটকে পড়ে মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে গুরুতর আহত হন। পরে সেখান থেকে তাকে উদ্ধার করে সকাল ৭টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

কলাবাগান থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সাইদুর রহমান বলেন, যাত্রীবাহী বাস ও সিএনজিটি জব্দ করা হয়েছে, বাস চালক পালিয়ে গেছে। এ ঘটনায় সিএনজি চালক চান মিয়া সামান্য আহত হয়েছে, তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। আর নিহতের মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। মৃত উজির আহমেদ কুমিল্লা জেলার লাকসাম উপজেলার আউশ পাড়া গ্রামের বাসিন্দা। তার বাবার নাম মৃত মোহাম্মদ আলী। বর্তমানে কলাবাগান স্টাফ কোয়াটারে এলাকায় পরিবারের সঙ্গে থাকতেন। তিন ছেলে ও পাঁচ মেয়ের জনক ছিলেন উজির আহমেদ।

এদিকে রাজধানীর রামপুরা বনশ্রী এলাকায় ৭তলা ভবনের ছাদ থেকে পড়ে মো. রিজন খান (২২) নামে এক শিক্ষার্থীর মতু্যু হয়েছে। গতকাল দুপুর ১টার দিকে এ ঘটনাটি ঘটে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সাড়ে ৩টার দিকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত রিজনের আত্মীয় রাজ বলেন, গত ডিসেম্বরে আমি গ্রামের বাড়ি জয়পুরহাট থেকে তাকে সঙ্গে করে নিয়ে আসি। জয়পুরহাটে একটি কলেজে ডিগ্রির শিক্ষার্থী ছিলেন রিজন। অভাব অনটনের সংসার তাদের। ঢাকায় একটি চাকরি দেয়ার জন্য আমি তাকে ঢাকায় নিয়ে আসি। আমরা রামপুরা বনশ্রীর ৭তলা ভবনের ছাদে মেস করে থাকতাম। গতকাল দুপুরের দিকে আমি রান্না ঘরে ছিলাম। হঠাৎ সাত তলার ছাদ থেকে নিচে পড়ে যায় সে। পরে তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাই। পরে অবস্থার অবনতি হলে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে আসলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ঢামেক হাসপাতালে পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক) মো. বাচ্চু মিয়া বলেন, মরদেহটি ঢামেক হাসপাতালের জরুরি বিভাগের মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানাকে অবগত করা হয়েছে।

এছাড়া পুরান ঢাকার লালবাগ থানার আজিমপুর কবরস্থানের পাশ থেকে অজ্ঞাত পরিচয়ের (৬৫) এক বৃদ্ধের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল দুপুর ১২টার দিকে তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে তাকে মৃত ঘোষণা করেন। লালবাগ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) লুৎফর রহমান বলেন, সকালে খবর পেয়ে আজিমপুর কবরস্থানের পাশ থেকে অচেতন অবস্থায় এক বৃদ্ধকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে যাই। নেয়ার পর পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তিনি আরও বলেন, প্রাথমিকভাবে আশপাশের লোকমুখে জানতে পারি তিনি ভিক্ষুক ছিলেন। আমরা এখনও তার পরিচয় নিশ্চিত করতে পারিনি। পরিচয় জানার চেষ্টা চলছে। মরদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে বলে জানান তিনি।

মঙ্গলবার, ১০ মে ২০২২ , ২৭ বৈশাখ ১৪২৮ ০৭ শাওয়াল ১৪৪৩

রাজধানীর সড়কে বাস কেড়ে নিল বৃদ্ধের প্রাণ

রাজধানীর কলবাগানে বাসের ধাক্কায় উজির আহমেদ (৭২) নামে এক বৃদ্ধ নিহত হয়েছে। পেশায় তিনি একজন ফুচকা বিক্রেতা। গতকাল সকাল ৬টায় এ দুর্ঘটনাটি ঘটে। নিহতের ছেলে মো. আবদুল মাজেদ আহমেদ জানান, গতকাল সকালে বাসা থেকে আমার ভাগনেকে মোহাম্মদপুরে একটি মাদ্রাসায় ভর্তি করানোর উদ্দেশ্যে বাবা ও আমার বোন কলাবাগানে স্ট্যান্ডে দাঁড়িয়ে সিএনজি চালিত অটোরিকশা ঠিক করছিলেন। সে সময় দুর্ঘটনার শিকার হয়।

তিনি বলেন, সকালে কলাবাগান স্টাফ কোয়ার্টার ভাড়া বাসা থেকে বের হন তিনি। রাস্তায় আনোয়ার খান মর্ডান হাসপাতালের পাশে স্টাফ কোয়ার্টার ২নং গেটের সামনে সিএনজি (অটোরিকশা) দাঁড় করিয়ে ভাড়া ঠিক করছিলেন। এ সময়ের সাভার থেকে ছেড়ে আসা গুলিস্তানগামী যাত্রীবাহী সাভার পরিবহনের একটি বাস সজোরে সিএনজি অটোরিকশাসহ তার বাবাকে ধাক্কা দিলে রাস্তায় ছিটকে পড়ে মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে গুরুতর আহত হন। পরে সেখান থেকে তাকে উদ্ধার করে সকাল ৭টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

কলাবাগান থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সাইদুর রহমান বলেন, যাত্রীবাহী বাস ও সিএনজিটি জব্দ করা হয়েছে, বাস চালক পালিয়ে গেছে। এ ঘটনায় সিএনজি চালক চান মিয়া সামান্য আহত হয়েছে, তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। আর নিহতের মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। মৃত উজির আহমেদ কুমিল্লা জেলার লাকসাম উপজেলার আউশ পাড়া গ্রামের বাসিন্দা। তার বাবার নাম মৃত মোহাম্মদ আলী। বর্তমানে কলাবাগান স্টাফ কোয়াটারে এলাকায় পরিবারের সঙ্গে থাকতেন। তিন ছেলে ও পাঁচ মেয়ের জনক ছিলেন উজির আহমেদ।

এদিকে রাজধানীর রামপুরা বনশ্রী এলাকায় ৭তলা ভবনের ছাদ থেকে পড়ে মো. রিজন খান (২২) নামে এক শিক্ষার্থীর মতু্যু হয়েছে। গতকাল দুপুর ১টার দিকে এ ঘটনাটি ঘটে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সাড়ে ৩টার দিকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত রিজনের আত্মীয় রাজ বলেন, গত ডিসেম্বরে আমি গ্রামের বাড়ি জয়পুরহাট থেকে তাকে সঙ্গে করে নিয়ে আসি। জয়পুরহাটে একটি কলেজে ডিগ্রির শিক্ষার্থী ছিলেন রিজন। অভাব অনটনের সংসার তাদের। ঢাকায় একটি চাকরি দেয়ার জন্য আমি তাকে ঢাকায় নিয়ে আসি। আমরা রামপুরা বনশ্রীর ৭তলা ভবনের ছাদে মেস করে থাকতাম। গতকাল দুপুরের দিকে আমি রান্না ঘরে ছিলাম। হঠাৎ সাত তলার ছাদ থেকে নিচে পড়ে যায় সে। পরে তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাই। পরে অবস্থার অবনতি হলে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে আসলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ঢামেক হাসপাতালে পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক) মো. বাচ্চু মিয়া বলেন, মরদেহটি ঢামেক হাসপাতালের জরুরি বিভাগের মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানাকে অবগত করা হয়েছে।

এছাড়া পুরান ঢাকার লালবাগ থানার আজিমপুর কবরস্থানের পাশ থেকে অজ্ঞাত পরিচয়ের (৬৫) এক বৃদ্ধের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল দুপুর ১২টার দিকে তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে তাকে মৃত ঘোষণা করেন। লালবাগ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) লুৎফর রহমান বলেন, সকালে খবর পেয়ে আজিমপুর কবরস্থানের পাশ থেকে অচেতন অবস্থায় এক বৃদ্ধকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে যাই। নেয়ার পর পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তিনি আরও বলেন, প্রাথমিকভাবে আশপাশের লোকমুখে জানতে পারি তিনি ভিক্ষুক ছিলেন। আমরা এখনও তার পরিচয় নিশ্চিত করতে পারিনি। পরিচয় জানার চেষ্টা চলছে। মরদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে বলে জানান তিনি।