লেনদেন বাড়লেও সূচক কমেছে

পবিত্র ঈদুল ফিতর পরবর্তী দ্বিতীয় ও তৃতীয় কার্যদিবস উত্থান হলেও চতুর্থ কার্যদিবস গতকাল পতন হয়েছে শেয়ারবাজারে। এদিন শেয়ারবাজারের সব সূচক কমেছে। সূচকের সঙ্গে বেশিরভাগ সিকিউরিটিজের দর কমলেও টাকার পরিমাণে লেনদেন আগের কার্যদিবস থেকে বেড়েছে। গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৩২.৪৬ পয়েন্ট বা ০.৪৮ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ৬৬৫.৬১ পয়েন্টে। ডিএসইর অপর সূচকগুলোর মধ্যে শরিয়াহ সূচক ৫.২৪ পয়েন্ট বা ০.৩৬ শতাংশ এবং ডিএসই-৩০ সূচক ১৩.৬২ পয়েন্ট বা ০.৫৬ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে এক হাজার ৪৪৮.৮৯ পয়েন্টে এবং দুই হাজার ৪৩৫.৭৭ পয়েন্টে।

ডিএসইতে গতকাল টাকার পরিমাণে লেনদেন হয়েছে এক হাজার ২৫৭ কোটি ২৪ লাখ টাকার যা আগের কার্যদিবস থেকে ৪৮ কোটি ৯৩ লাখ টাকা বেশি। আগের কার্যদিবস লেনদেন হয়েছিল এক হাজার ২০৮ কোটি ৩১ লাখ টাকার। ডিএসইতে গতকাল ৩৮০টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১৩০টির বা ৩৪.২১ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে। দর কমেছে ২০৫টির বা ৫৩.৯৫ শতাংশের এবং ৪৫টির বা ১১.৮৪ শতাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর অপরিবর্তিত রয়েছে।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই এদিন ১২২.৯২ পয়েন্ট বা ০.৬২ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ১৯ হাজার ৫১৬.২১ পয়েন্টে। এদিন সিএসইতে হাত বদল হওয়া ৩০৯টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ১১৬টির, কমেছে ১৬৮টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৫টির দর। গতকাল সিএসইতে ৪৭ কোটি ৪৮ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। গতকাল ডিএসইর ব্লক মার্কেটে মোট ৫০টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিগুলোর মোট ৬৫ লাখ ১৬ হাজার ২৩০টি শেয়ার লেনদেন হয়েছে। যার আর্থিক মূল্য ৫৯ কোটি ১৮ লাখ টাকা। ব্লক মার্কেটে সবচেয়ে বেশি টাকার লেনদেন হয়েছে এসিআই ফরমুলেশন লিমিটেডের শেয়ার। কোম্পানিটি ২০ কোটি ১৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন করেছে। আইপিডিসি ফিন্যান্স ৬ কোটি ৩৬ লাখ টাকার শেয়ার বিক্রি করে তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে। মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক ৫ কোটি ৬০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন করে তালিকার তৃতীয় স্থানে রয়েছে। ব্লক মার্কেটে লেনদেন করা অন্য কোম্পানিগুলো হচ্ছে- আমরা টেকনোলজি, এসিআই, অ্যাডভেন্ট ফার্মা, আনোয়ার গ্যালভানাইজিং, বঙ্গজ, ব্যাংক এশিয়া, বিএটিবিসি, বিডিকম অনলাইন, বিকন ফার্মা, বেক্সিমকো, ব্র্যাক ব্যাংক, বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশন, ডেল্টা লাইফ ইন্স্যুরেন্স, ইস্টার্ন হাউজিং, এনভয় টেক্সটাইল, ফারইস্ট ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্স, ফরচুন সুজ, ফু-ওয়াং ফুড, জেনেক্স ইনফোসিস, গ্রামীণফোন, জিএসপি ফিন্যান্স, হামিদ ফেব্রিক্স, এইচ.আর টেক্সটাইল, আইপিডিসি ফিন্যান্স, ইসলামী ইন্স্যুরেন্স, জেএমআই হসপিটাল, কেপিসিএল, কাট্টালি টেক্সটাইল, লংকাবাং ফিন্যান্স,লাফার্জহোলসিম, নাহি অ্যালুমিনিয়াম, এনসিসি ব্যাংক, এনআরবিসি ব্যাংক, এনটিসি, ওরিয়ন ফার্মা, পদ্মা ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্স, প্রাইম ইন্স্যুরেন্স, প্রভাতি ইন্স্যুরেন্স, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল, আরডি ফুড, রবি, সাইফ পাওয়ারটেক, সায়হাম টেক্সটাইল, সোনারগাঁও টেক্সটাইল ও ইউনিক হোটেল অ্যান্ড রিসোর্টস লিমিটেড। গতকাল ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ১৩০টির বা ৩৪.২১ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিটের দর বেড়েছে। কোম্পানিগুলোর মধ্যে এসিআই ফর্মূলেশনের শেয়ারের প্রতি বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ ছিল সবচেয়ে বেশি। আগের কার্যদিবস এসিআই ফর্মূলেশনের শেয়ারের ক্লোজিং দর ছিল ১৮৬ টাকায়। গতকাল লেনদেন শেষে এর শেয়ারের ক্লোজিং দর দাঁড়ায় ২০৪.৬০ টাকায়। অর্থাৎ গতকাল কোম্পানিটির শেয়ার দর ১৮.৬০ টাকা বা ১০ শতাংশ বেড়েছে। এর মাধ্যমে এসিআই ফর্মূলেশন ডিএসইর টপটেন গেইনার তালিকার শীর্ষে উঠে আসে।

এদিন ডিএসইতে টপটেন গেইনার তালিকায় উঠে আসা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে বঙ্গজের ৯.৯৪ শতাংশ, ন্যাশনাল ফিড মিলসের ৯.৬০ শতাংশ, ঢাকা ডাইংয়ের ৯.৫৯ শতাংশ, এনভয় টেক্সটাইলের ৯.৫৮ শতাংশ, তাকাফুল ইন্স্যুরেন্সের ৭.৭৪ শতাংশ, সোনারগাঁও টেক্সটাইলের ৬.৮৯ শতাংশ, আইএফআইএল ইসলামিক মিউচ্যুয়াল ফান্ড ওয়ানের ৬.০৬ শতাংশ, জিএসপি ফাইন্যান্সের ৫.৯৬ শতাংশ এবং আলিফ ম্যানুফ্যাকচারিংয়ের শেয়ার দর ৫.৮৮ শতাংশ বেড়েছে।

গতকা ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ২০৫টির বা ৫৩.৯৫ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিটের দর কমেছে। কোম্পানিগুলোর মধ্যে ইমাম বাটনের শেয়ারের প্রতি বিনিয়োগকারীদের অনাগ্রহ ছিল সবচেয়ে বেশি।

আগের কার্যদিবস ইমাম বাটনের শেয়ারের ক্লোজিং দর ছিল ৫৬ টাকায়। গতকাল লেনদেন শেষে এর শেয়ারের ক্লোজিং দর দাঁড়ায় ৫৩.২০ টাকায়। অর্থাৎ গতকাল কোম্পানিটির শেয়ার দর ২.৮০ টাকা বা ৫ শতাংশ কমেছে। এর মাধ্যমে ইমাম বাটন ডিএসইর টপটেন লুজার তালিকার শীর্ষে উঠে আসে।

এদিন ডিএসইতে টপটেন লুজার তালিকায় উঠে আসা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে সাভার রিফ্রাক্টরিজের ৪.৯৮ শতাংশ, জেএমআই হসপিটালের ৪.৯৬ শতাংশ, মনোস্পুল পেপারের ৪.৭৬ শতাংশ, পেনিনসুলার ৪.৭৪ শতাংশ, ন্যাশনাল পলিমারের ৪.৩৮ শতাংশ, দুলামিয়া কটনের ৪.৩৪ শতাংশ, সোনালী পেপারের ৪.২৩ শতাংশ, এডিএন টেলিকমের ৪.১৯ শতাংশ এবং বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশনের শেয়ার দর ৪.১২ শতাংশ কমেছে।

বুধবার, ১১ মে ২০২২ , ২৮ বৈশাখ ১৪২৮ ০৮ শাওয়াল ১৪৪৩

লেনদেন বাড়লেও সূচক কমেছে

পবিত্র ঈদুল ফিতর পরবর্তী দ্বিতীয় ও তৃতীয় কার্যদিবস উত্থান হলেও চতুর্থ কার্যদিবস গতকাল পতন হয়েছে শেয়ারবাজারে। এদিন শেয়ারবাজারের সব সূচক কমেছে। সূচকের সঙ্গে বেশিরভাগ সিকিউরিটিজের দর কমলেও টাকার পরিমাণে লেনদেন আগের কার্যদিবস থেকে বেড়েছে। গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৩২.৪৬ পয়েন্ট বা ০.৪৮ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ৬৬৫.৬১ পয়েন্টে। ডিএসইর অপর সূচকগুলোর মধ্যে শরিয়াহ সূচক ৫.২৪ পয়েন্ট বা ০.৩৬ শতাংশ এবং ডিএসই-৩০ সূচক ১৩.৬২ পয়েন্ট বা ০.৫৬ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে এক হাজার ৪৪৮.৮৯ পয়েন্টে এবং দুই হাজার ৪৩৫.৭৭ পয়েন্টে।

ডিএসইতে গতকাল টাকার পরিমাণে লেনদেন হয়েছে এক হাজার ২৫৭ কোটি ২৪ লাখ টাকার যা আগের কার্যদিবস থেকে ৪৮ কোটি ৯৩ লাখ টাকা বেশি। আগের কার্যদিবস লেনদেন হয়েছিল এক হাজার ২০৮ কোটি ৩১ লাখ টাকার। ডিএসইতে গতকাল ৩৮০টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১৩০টির বা ৩৪.২১ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে। দর কমেছে ২০৫টির বা ৫৩.৯৫ শতাংশের এবং ৪৫টির বা ১১.৮৪ শতাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর অপরিবর্তিত রয়েছে।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই এদিন ১২২.৯২ পয়েন্ট বা ০.৬২ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ১৯ হাজার ৫১৬.২১ পয়েন্টে। এদিন সিএসইতে হাত বদল হওয়া ৩০৯টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ১১৬টির, কমেছে ১৬৮টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৫টির দর। গতকাল সিএসইতে ৪৭ কোটি ৪৮ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। গতকাল ডিএসইর ব্লক মার্কেটে মোট ৫০টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিগুলোর মোট ৬৫ লাখ ১৬ হাজার ২৩০টি শেয়ার লেনদেন হয়েছে। যার আর্থিক মূল্য ৫৯ কোটি ১৮ লাখ টাকা। ব্লক মার্কেটে সবচেয়ে বেশি টাকার লেনদেন হয়েছে এসিআই ফরমুলেশন লিমিটেডের শেয়ার। কোম্পানিটি ২০ কোটি ১৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন করেছে। আইপিডিসি ফিন্যান্স ৬ কোটি ৩৬ লাখ টাকার শেয়ার বিক্রি করে তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে। মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক ৫ কোটি ৬০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন করে তালিকার তৃতীয় স্থানে রয়েছে। ব্লক মার্কেটে লেনদেন করা অন্য কোম্পানিগুলো হচ্ছে- আমরা টেকনোলজি, এসিআই, অ্যাডভেন্ট ফার্মা, আনোয়ার গ্যালভানাইজিং, বঙ্গজ, ব্যাংক এশিয়া, বিএটিবিসি, বিডিকম অনলাইন, বিকন ফার্মা, বেক্সিমকো, ব্র্যাক ব্যাংক, বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশন, ডেল্টা লাইফ ইন্স্যুরেন্স, ইস্টার্ন হাউজিং, এনভয় টেক্সটাইল, ফারইস্ট ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্স, ফরচুন সুজ, ফু-ওয়াং ফুড, জেনেক্স ইনফোসিস, গ্রামীণফোন, জিএসপি ফিন্যান্স, হামিদ ফেব্রিক্স, এইচ.আর টেক্সটাইল, আইপিডিসি ফিন্যান্স, ইসলামী ইন্স্যুরেন্স, জেএমআই হসপিটাল, কেপিসিএল, কাট্টালি টেক্সটাইল, লংকাবাং ফিন্যান্স,লাফার্জহোলসিম, নাহি অ্যালুমিনিয়াম, এনসিসি ব্যাংক, এনআরবিসি ব্যাংক, এনটিসি, ওরিয়ন ফার্মা, পদ্মা ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্স, প্রাইম ইন্স্যুরেন্স, প্রভাতি ইন্স্যুরেন্স, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল, আরডি ফুড, রবি, সাইফ পাওয়ারটেক, সায়হাম টেক্সটাইল, সোনারগাঁও টেক্সটাইল ও ইউনিক হোটেল অ্যান্ড রিসোর্টস লিমিটেড। গতকাল ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ১৩০টির বা ৩৪.২১ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিটের দর বেড়েছে। কোম্পানিগুলোর মধ্যে এসিআই ফর্মূলেশনের শেয়ারের প্রতি বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ ছিল সবচেয়ে বেশি। আগের কার্যদিবস এসিআই ফর্মূলেশনের শেয়ারের ক্লোজিং দর ছিল ১৮৬ টাকায়। গতকাল লেনদেন শেষে এর শেয়ারের ক্লোজিং দর দাঁড়ায় ২০৪.৬০ টাকায়। অর্থাৎ গতকাল কোম্পানিটির শেয়ার দর ১৮.৬০ টাকা বা ১০ শতাংশ বেড়েছে। এর মাধ্যমে এসিআই ফর্মূলেশন ডিএসইর টপটেন গেইনার তালিকার শীর্ষে উঠে আসে।

এদিন ডিএসইতে টপটেন গেইনার তালিকায় উঠে আসা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে বঙ্গজের ৯.৯৪ শতাংশ, ন্যাশনাল ফিড মিলসের ৯.৬০ শতাংশ, ঢাকা ডাইংয়ের ৯.৫৯ শতাংশ, এনভয় টেক্সটাইলের ৯.৫৮ শতাংশ, তাকাফুল ইন্স্যুরেন্সের ৭.৭৪ শতাংশ, সোনারগাঁও টেক্সটাইলের ৬.৮৯ শতাংশ, আইএফআইএল ইসলামিক মিউচ্যুয়াল ফান্ড ওয়ানের ৬.০৬ শতাংশ, জিএসপি ফাইন্যান্সের ৫.৯৬ শতাংশ এবং আলিফ ম্যানুফ্যাকচারিংয়ের শেয়ার দর ৫.৮৮ শতাংশ বেড়েছে।

গতকা ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ২০৫টির বা ৫৩.৯৫ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিটের দর কমেছে। কোম্পানিগুলোর মধ্যে ইমাম বাটনের শেয়ারের প্রতি বিনিয়োগকারীদের অনাগ্রহ ছিল সবচেয়ে বেশি।

আগের কার্যদিবস ইমাম বাটনের শেয়ারের ক্লোজিং দর ছিল ৫৬ টাকায়। গতকাল লেনদেন শেষে এর শেয়ারের ক্লোজিং দর দাঁড়ায় ৫৩.২০ টাকায়। অর্থাৎ গতকাল কোম্পানিটির শেয়ার দর ২.৮০ টাকা বা ৫ শতাংশ কমেছে। এর মাধ্যমে ইমাম বাটন ডিএসইর টপটেন লুজার তালিকার শীর্ষে উঠে আসে।

এদিন ডিএসইতে টপটেন লুজার তালিকায় উঠে আসা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে সাভার রিফ্রাক্টরিজের ৪.৯৮ শতাংশ, জেএমআই হসপিটালের ৪.৯৬ শতাংশ, মনোস্পুল পেপারের ৪.৭৬ শতাংশ, পেনিনসুলার ৪.৭৪ শতাংশ, ন্যাশনাল পলিমারের ৪.৩৮ শতাংশ, দুলামিয়া কটনের ৪.৩৪ শতাংশ, সোনালী পেপারের ৪.২৩ শতাংশ, এডিএন টেলিকমের ৪.১৯ শতাংশ এবং বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশনের শেয়ার দর ৪.১২ শতাংশ কমেছে।